logo
  • ঢাকা শনিবার, ২৮ মার্চ ২০২০, ১৪ চৈত্র ১৪২৬

‘আমাদের করোনা নেই, পরিবারের সঙ্গেই থাকব’

রাজবাড়ী প্রতিনিধি, আরটিভি অনলাইন
|  ২৫ মার্চ ২০২০, ১৯:০৯
ফেরিঘাট মানুষ দৌলতদিয়া
দৌলতদিয়া ফেরিঘাটে মানুষের উপচে পড়া ভিড়
করোনাভাইরাস প্রতিরোধে জনসমাগম রোধে ছুটি ঘোষণা করে সবাইকে ঘরে থাকার পরামর্শ দেয়া হলেও বাড়ি ফিরছেন সাধারণ মানুষ।

বুধবার সকাল থেকেই দৌলতদিয়া-পাটুরিয়া নৌপথের একাধিক ফেরিতে দক্ষিণাঞ্চলের দুই জেলার যাত্রীদের বাড়ি ফেরার এ দৃশ্য ঈদের ছুটিকেও হার মানিয়েছে। বুধবার সকাল থেকে দেশের দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চলের ২১ জেলার প্রবেশদ্বার হিসাবে পরিচিত রাজবাড়ীর দৌলতদিয়া প্রান্ত দিয়ে বিপুলসংখ্যক নারী-পুরুষ শিশু-বৃদ্ধরা একযোগে বাড়ি ফিরছেন। দৌলতদিয়া-পাটুরিয়া নৌরুটে এখন পর্যন্ত ছোট-বড় ১৪টি ফেরি চলাচল করলেও বাস ও প্রাইভেটকার না থাকার পরেও যাত্রী ও ট্রাক পারাপারে হিমসিম খেতে হচ্ছে কর্তৃপক্ষকে। তবে বুধবার সকাল থেকে এ রুটে লঞ্চ চলাচল বন্ধ থাকার কারণে ফেরিতে প্রচণ্ড ভিড় রয়েছে।

ঢাকাসহ দেশের বিভিন্ন স্থান থেকে আসা যাত্রীরা বলেন, আমাদের তো  করোনা ভাইরাস নেই। আমরা বাড়িতে গিয়েই পরিবারের সঙ্গে ঘরে থাকব। এতে কারও কোনও সমস্যা হবে না।

 পথে কোনও সমস্যা হয়েছে কিনা এমন প্রশ্নের জবাবে কয়েকজন যাত্রী বলেন, ঠিক ঈদের মতো। এখনতো আর মানুষ ঢাকাতে যাচ্ছে না বরং আসছে। অতিরিক্ত ভাড়া ছাড়া তেমন কোনও সমস্যা হচ্ছে না বলেও জানান তারা।

দৌলতদিয়াতে দায়িত্বরত ট্রাফিক সার্জেন্ট সঞ্জীব আরটিভি অনলাইনকে বলেন, গতকাল মঙ্গলবার থেকে ঈদের সময় যাত্রী আসার পরিমাণের চেয়েও বেশি ছিল। আজকে বুধবার যাত্রীর চাপ অপেক্ষাকৃত কম হলেও দেখে মনে হচ্ছে ঈদযাত্রায় বাড়ি যাচ্ছেন যাত্রীরা।

বাংলাদেশ অভ্যন্তরীণ নৌ-পরিবহন করপোরশেন (বিআইডব্লিটিসির) দৌলতদিয়া ফেরিঘাটের ব্যবস্থাপক মো. আবু আব্দুল্লাহ রনি বলেন, আমরা শুধুমাত্র জরুরি পণ্যসামগ্রী পারাপারের জন্য দৌলতদিয়া-পাটুরিয়া নৌরুটে ১৪টি ফেরি চালু রেখেছি। কিন্তু দৌলতদিয়া প্রান্ত দিয়ে ঘরেফেরা মানুষের ব্যাপক চাপ রয়েছে।

তিনি আরও বলেন, ১০ দিন ছুটি দেবার কারণে মানুষ ঈদের মতো বাড়ি আসছে। আবার যখন ছুটি শেষ হবে তখন এই সংখ্যক মানুষ আবার একইভাবে ঢাকায় ফিরবে। এটা যেন দক্ষিণাঞ্চলের মানুষের হ্যাবিট হয়ে গেছে।

জেবি

  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়
  • দেশজুড়ে এর সর্বশেষ
  • দেশজুড়ে এর পাঠক প্রিয়