logo
  • ঢাকা শনিবার, ২৫ জানুয়ারি ২০২০, ১২ মাঘ ১৪২৭

মুন্সীগঞ্জে নিজ ঘর থেকে গৃহবধূর মরদেহ উদ্ধার

মুন্সীগঞ্জ প্রতিনিধি, আরটিভি অনলাইন
|  ১২ ডিসেম্বর ২০১৯, ২০:১৮ | আপডেট : ১২ ডিসেম্বর ২০১৯, ২২:৪৩
মুন্সীগঞ্জে নিজ ঘর থেকে গৃহবধূর মরদেহ উদ্ধার

মুন্সীগঞ্জের সিরাজদিখান উপজেলার চর নিমতলী এলাকায় নিজ ঘর থেকে কুলসুম আক্তার (২২) নামের এক গৃহবধূর মরদেহ উদ্ধার করছে পুলিশ। নিহত গৃহবধূ কুয়েত প্রবাসী ওয়াজদ্দিনের স্ত্রী এবং একই উপজেলার রশুনিয়া ইউনিয়নের ধামালিয়া এলাকার কুদ্দুস শেখের কন্যা।

বৃহস্পতিবার সকাল সাড়ে ১১টার দিকে তার মরদেহ উদ্ধার করা হয়। বিষয়টি সিরাজদিখান থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) মো. মোতালেব হোসেন নিশ্চিত করেছেন।
 
নিহত গৃহবধূর ফুপু সাথী জানান, ৪ বছর আগে কুলসুমের সঙ্গে ওয়াজদ্দিনের বিয়ে হয়। তাদের ২ বছর বয়সের এক ছেলে রয়েছে। বিয়ের সময় আমাদের পক্ষ থেকে ছেলের পক্ষকে নগদ ৩ লাখ টাকা এবং ৮ আনা সোনা দেওয়া হয়। সেই টাকা ও আরও কিছু টাকা লোন নিয়ে প্রায় দুই বছর আগে কুয়েতে যান ওয়াজদ্দিন।

ওয়াজদ্দিন বিদেশ যাওয়ার পর থেকে কুসুমের সাথে বনিবনা হচ্ছিলো না। ওয়াজদ্দিন বিদেশ থেকে টাকা পাঠান তার বোনের (ননদ) কাছে। নিহত কুলসুম তার চলার জন্য খরচের টাকা চাইলেই ননদ, ভাসুর, শ্বশুর ও শ্বাশুড়ি তার উপর প্রায়ই নানা ধরনের অত্যাচার করতো। এ নিয়ে একাধিকবার বিচার হয়েছে। বুধবারও ঝগড়া হয় বলে আমরা খবর পাই।

এ ব্যাপারে সিরাজদিখান থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) মো. মোতালেব হোসেন  জানান, গৃহবধূ কুলসুম আক্তারের মা আয়শা বেগম ঝগড়ার খবর শুনে মেয়েকে রাত সাড়ে ১১টার পরে দেখতে যান। এ সময় মেয়ের ঘরের দরজা খোলা অবস্থায় বিছানায় মেয়ের মরদেহ পড়ে থাকতে দেখেন। খবর পেয়ে সকাল সাড়ে ১১টার দিকে নিহতের মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে।

তিনি আরও জানান, বুধবার রাত সাড়ে ৯ টা থেকে পোনে ১২টার মধ্যে কোনও এক সময় তার মৃত্যু হয়েছে। নিহতের শ্বশুর বাড়ির কাউকে পাওয়া যায়নি। নিহতের দেহে আঘাতের কোনও চিহ্ন পাওয়া যায়নি। তবে গলায় দাগ রয়েছে। এ ঘটনায় থানায় একটি মামলা দায়ের করা হয়েছে।

এজে

 

  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়
  • দেশজুড়ে এর সর্বশেষ
  • দেশজুড়ে এর পাঠক প্রিয়