logo
  • ঢাকা বৃহস্পতিবার, ০৩ ডিসেম্বর ২০২০, ১৮ অগ্রহায়ণ ১৪২৭

টেকনাফ সীমান্তে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ মাদক ব্যবসায়ী নিহত

ইয়াবা উদ্ধার মাদক
মাদক ব্যবসায়ীদের কাছ থেকে উদ্ধারকৃত ইয়াবা
টেকনাফ সীমান্তের বৃহত্তর জাদিমোরা-নয়াপাড়া পয়েন্টে মাদক পাচারকারী এবং বিজিবি জওয়ানদের মধ্যে বন্দুকযুদ্ধের ঘটনা ঘটেছে। এতে বিজিবির দুই জওয়ান আহত হলেও ঘটনাস্থল থেকে বিপুল পরিমাণ ইয়াবা ও অস্ত্রসহ এক মাদক ব্যবসায়ীকে গুলিবিদ্ধ অবস্থায় উদ্ধার করা হয়েছে।

সোমবার দিনগত রাত সোয়া দুইটার দিকে টেকনাফ- ২ বিজিবি ব্যাটালিয়নের দমদমিয়া বিওপির একটি টহল দল দক্ষিণ জাদিমোরা পয়েন্ট দিয়ে মিয়ানমারের লালদ্বীপ হতে ইয়াবার চালান আসার সংবাদ পেয়ে অবস্থান নেন।

এর কিছুক্ষণ পর মিয়ানমার হতে আসা কাঠের নৌকা হতে বেড়িবাঁধে অবস্থানে থাকা লোকটির কাছে গিয়ে কিছু নিয়ে ফেরার সময় বিজিবি জওয়ানেরা চ্যালেঞ্জ করলে মাদক ব্যবসায়ী গ্রুপের সদস্যরা বিজিবিকে লক্ষ্য করে গুলি করে। এতে বিজিবির নায়েক মো. হাবিবুর রহমান, সিপাহী মো. বিপ্লব হাসান আহত হলে বিজিবিও আত্মরক্ষার্থে পাল্টা গুলিবর্ষণ করে।

কিছুক্ষণ পর পরিস্থিতি শান্ত হয়। বিজিবি জওয়ানেরা কঠোর নিরাপত্তা ব্যবস্থা জোরদার করে ঘিরে রাখে। পরে ঘটনাস্থল তল্লাশি করে এক লাখ ২০ হাজার ইয়াবা, একটি দেশীয় বন্দুক, দুই রাউন্ড তাজা কার্তুজ ও একটি কিরিচসহ গুলিবিদ্ধ একজনকে উদ্ধার করে চিকিৎসার জন্য টেকনাফ উপজেলা সদর হাসপাতালে নেওয়া হয়।

সেখানে আহত বিজিবি জওয়ানদের চিকিৎসা দিয়ে গুলিবিদ্ধ মাদক ব্যবসায়ীকে উন্নত চিকিৎসার জন্য কক্সবাজার হাসপাতালে পাঠায়। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় সে মারা যায়। নিহত ব্যক্তি হ্নীলা জাদিমোরার আব্দুস সালামের ছেলে ঈমাম হোসেন (২৫) বলে শনাক্ত করা হয়। মরদেহ হাসপাতাল  পাঠানো হয়েছে।

টেকনাফ-২ বিজিবি ব্যাটালিয়নের অধিনায়ক লে. কর্নেল মোহাম্মদ ফয়সল হাসান খান (পিএসসি) বন্দুকযুদ্ধে নিহতের বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, এ ব্যাপারে পৃথক মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে।

জেবি/পি

RTVPLUS