logo
  • ঢাকা শুক্রবার, ২০ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ৫ আশ্বিন ১৪২৬

রাজধানীতে ২৯ কিশোর ছিনতাইকারী গ্রেপ্তার

আরটিভি অনলাইন রিপোর্ট
|  ৩১ জুলাই ২০১৯, ০১:৫৯ | আপডেট : ৩১ জুলাই ২০১৯, ১২:৩১
২৯ কিশোর ছিনতাইকারী গ্রেপ্তার
ছিনতাইচক্রের সদস্যরা

রাজধানীর বিভিন্ন অঞ্চলে র‍্যাবের অভিযানে ২৯ জন কিশোর ছিনতাইকারী গ্রেপ্তার করে ছয় মাসের সাজা দিয়েছে ভ্রাম্যমাণ আদালত।

মঙ্গলবার (৩০ জুলাই) রাতে আগারগাঁও, আসাদগেট, কলেজগেট ও শ্যামলী এলাকা থেকে ছিনতাই চক্রের ২৯ জনকে আটক করে র‍্যাব।   

গ্রেপ্তারকৃতরা সবাই মাদকাসক্ত। জানা যায়, একটি মোবাইল ছিনতাই করে দিতে পারলে বিনিময়ে এসব মাদকাসক্ত শিশু-কিশোর ছিনতাইকারীরা পায় তিন থেকে পাঁচটি ইয়াবা।

অভিযান পরিচালনা করেছেন র‍্যাবের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট সারোয়ার আলম। তিনি আরটিভি অনলাইনকে বলেন, ছিনতাইকারীরা মূলত রাস্তা পার হওয়ার সময় নারীদের টার্গেট করে তাদের ব্যাগের চেইন খুলে মোবাইল ছিনতাই করত। অনেক সময় হাত থেকে মোবাইল ছিনিয়ে নিয়ে চম্পট দিত। এদের বেশীর ভাগের বাসা কলেজ গেটের বিহারী ক্যাম্পে। শিশু-কিশোর হওয়ায় এদের শিশু সংশোধন কেন্দ্রে পাঠানো হবে।

---------------------------------------------------------------------
আরও পড়ুন : টেকনাফে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ মাদক ব্যবসায়ী নিহত
---------------------------------------------------------------------

উদ্ধার হওয়া জিনিস 

কিশোর এই গ্যাঙের সদস্য রাজ জানান, বিহারী ক্যাম্পের কামরান নামের মাদক সম্রাট তাদেরকে প্রথমে জোর করে ইয়াবা খাওয়াত, তারপর মোবাইল ছিনতাই করতে বাধ্য করাতো। একটি মোবাইল ছিনতাই করে দিলে তাদের খাওয়ার জন্য দিত তিন থেকে পাঁচটি ইয়াবা। মোবাইল ছিনতাই করতে না চাইলে কামরান মারধর করত এবং পুলিশ এনে ভয় দেখাত। পুলিশের সঙ্গে কামরানের সখ্যতা থাকায় সবাই জানার পরেও কামরানকে ভয় করে চলত।

রাজ আরও জানায়, এসব ঘটনা তার বাবা রাজ্জাককে জানালেও বিশ্বাস করত না। এরকম প্রায় একই অবস্থা অন্য শিশু-কিশোর অপরাধীদেরও। রাজধানীতে বিভিন্ন স্পটে  প্রায় একশো শিশুকে ছিনতাইয়ে ব্যবহার করে কামরান।

র‍্যাবের অভিযানে নেতৃত্ব দেওয়া নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট সারোয়ার আলম আরও বলেন, কামরান এ গ্রুপের প্রধান। সে ডাকাতির সঙ্গেও জড়িত। অপরাধ নির্মূলে আমাদের এই অভিযান অব্যাহত থাকবে।

আরও পড়ুন 

জিএ

  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়