logo
  • ঢাকা সোমবার, ১৯ আগস্ট ২০১৯, ৪ ভাদ্র ১৪২৬

ছাত্রীদের যৌন হয়রানি: প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক আটক

নোয়াখালী প্রতিনিধি
|  ২০ জুলাই ২০১৯, ২০:৫১ | আপডেট : ২০ জুলাই ২০১৯, ২০:৫৯
যৌন হয়রানি
ছাত্রীদের যৌন হয়রানির অভিযোগে আটক প্রধান শিক্ষক ইউছুফ হোসেন, ছবি: আরটিভি অনলাইন
নোয়াখালীর সোনাইমুড়ী উপজেলার নাটেশ্বর ইউনিয়নের পূর্ব মির্জানগর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক ইউছুফ হোসেনকে ছাত্রীদের যৌন হয়রানির অভিযোগে আটক করেছে পুলিশ। শনিবার অভিযুক্ত প্রধান শিক্ষককে আটক করে পুলিশে সোপর্দ করেছে শিক্ষার্থীদের অভিভাবক ও স্থানীয় লোকজন।

bestelectronics
ভুক্তভোগী শিক্ষার্থী ও অভিভাবকরা জানান, বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক দীর্ঘদিন ধরে বিদ্যালয়ের তৃতীয়, চতুর্থ ও পঞ্চম শ্রেণির একাধিক ছাত্রীকে কৌশলে ডেকে মোবাইলে পর্নো ভিডিও ও ছবি দেখাতো। একইসাথে ক্লাস ও অফিস কক্ষে ছাত্রীদের ডেকে নিয়ে তাদের শরীরের স্পর্শকাতর স্থানে হাত দিত। ছাত্রীদের বাথরুমের সামনে গিয়ে দাঁড়িয়ে থেকে উঁকি মারতো এবং কয়েকজন ছাত্রীকে ধর্ষণের চেষ্টাও করে। এ নিয়ে কোমলমতি ছাত্রীরা প্রতিবাদ করলে তাদের বিভিন্ন ভয়ভীতি প্রদর্শন করতো প্রধান শিক্ষক। বিদ্যালয়ের অন্যান্য শিক্ষকদের জানালেও তারা কেউ প্রধান শিক্ষককের এ অপকর্মের প্রতিবাদ করতো না। গত বৃহস্পতিবার (১৮ জুলাই) এ নিয়ে ছাত্রীদের সাথে প্রধান শিক্ষকের কথা কাটাকাটি হয়। পরে ভুক্তভোগী ছাত্রীরা বাড়িতে গিয়ে বিষয়টি তাদের পরিবারের লোকজনকে জানায়। এর ভিত্তিতে শনিবার সকালে শিক্ষার্থীদের অভিভাবক ও স্থানীয় লোকজন একত্রিত হয়ে বিদ্যালয়ে গিয়ে প্রধান শিক্ষক ইউছুফকে আটক করে। তারা নুসরাত হত্যাকাণ্ডের মতো ওই শিক্ষকের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দাবি করেন।

সোনাইমুড়ী থানার উপপরিদর্শক আলাউদ্দিন জানান, খবর পেয়ে তারা স্থানীয় জনগণের রোষানল থেকে অভিযুক্ত শিক্ষক ইউছুফকে উদ্ধার করে থানায় নিয়ে আসেন। তার বিরুদ্ধে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে একটি মামলা হয়েছে। তাকে আদালতের মাধ্যমে কারাগারে প্রেরণ করা হবে।

পি

bestelectronics bestelectronics
  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়