logo
  • ঢাকা রবিবার, ২৫ আগস্ট ২০১৯, ১০ ভাদ্র ১৪২৬

সরকারি হাসপাতালে যন্ত্রপাতি নেই, তাই প্রাইভেট চেম্বারে যেতে বললেন ডাক্তার

ব্রাহ্মণবাড়িয়া প্রতিনিধি
|  ১২ জুন ২০১৯, ১১:০২ | আপডেট : ১২ জুন ২০১৯, ১১:২০
‘এখানে চিকিৎসা দেয়ার মতো তেমন যন্ত্রপাতি নেই। এটিতো সরকারি হাসপাতাল। বিকেলে আমার প্রাইভেট চেম্বারে আসেন। ভালো করে দেখে (চিকিৎসা) দেব।’

bestelectronics
দাঁতের ব্যথায় কাতর হয়ে খালেদা বেগম (৩২) নামের এক রোগী গতকাল মঙ্গলবার দুপুরে ব্রাহ্মণবাড়িয়ার নবীনগর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে কর্মরত ডেন্টাল সার্জন ডা. আবদুল্লাহ আল বারীর কাছে চিকিৎসা নিতে গেলে ডেন্টাল সার্জন ওই নারী রোগীকে এমন পরামর্শ দেন।

খালেদা বেগম অভিযোগ করে বলেন, গত দুদিন ধরে দাঁতের ব্যথায় অস্থির হয়ে তিনি (খালেদা) তার স্বামী দেলোয়ার হোসেনকে সঙ্গে নিয়ে মঙ্গলবার আনুমানিক সাড়ে এগারটার দিকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে যান। সেখানে ডেন্টাল সার্জন ডা. আবদুল্লাহ আল বারীর (বিডিএস) কক্ষে ঢুকে তার দাঁতের সমস্যার কথা তুলে ধরেন। এ সময় ওই দাঁতের ডাক্তার মোবাইল টর্চ লাইট দিয়ে খালেদার দাঁত দেখেন। পরে ওই নারী রোগীকে বিকেলে হাসপাতাল সড়কে অবস্থিত গ্রামীণ জেনারেল হাসপাতালে থাকা তার (সার্জন) প্রাইভেট চেম্বারে চিকিৎসা নেওয়ার পরামর্শ দেন।

খালেদার স্বামী দেলোয়ার হোসেন প্রশ্ন রেখে বলেন, সরকারি হাসপাতাল হলো গরিব ও সাধারণ রোগীদের জন্য। আর সেই সরকারি হাসপাতালের চিকিৎসকেরা যদি গরিব রোগীদের প্রাইভেট চেম্বারে যাওয়ার পরামর্শ দেন, তাহলে গরিব রোগীরা যাবে কোথায়?

তবে সরকারি হাসপাতালের ওই ডেন্টাল সার্জন আবদুল্লাহ আল বারী (বিডিএস) বলেন, ওই মহিলা রোগীর দাঁতের ভেতরে ছোট্ট একটি কাঠি ঢুকানো অবস্থায় দেখতে পাই। ওই কাঠিটি বের করার কোনও যন্ত্র সরকারি হাসপাতালে নেই। তাই বিকেলে ওই রোগীকে আমার প্রাইভেট চেম্বারে যাওয়ার পরামর্শ দিয়েছি।

এ বিষয়ে উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা (টিএইচএ) ডা. সাইমুল হুদা বলেন, সরকারি হাসপাতালে কর্তব্য চলাকালীন কোনও সরকারি ডাক্তার কখনও কোনও রোগীকে প্রাইভেট চেম্বারে যাওয়ার পরামর্শ দিতে পারেন না। ভুক্তভোগী ওই রোগী আমাকে বিষয়টি লিখিতভাবে জানালে ওই চিকিৎসকের বিরুদ্ধে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়া হবে।

জেবি/পি

bestelectronics bestelectronics
  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়