• ঢাকা রবিবার, ২৪ মার্চ ২০১৯, ১০ চৈত্র ১৪২৫

৬ ঘণ্টার মধ্যে ইজতেমা ময়দান খালি করতে নির্দেশ

আরটিভি অনলাইন রিপোর্ট
|  ১৬ ফেব্রুয়ারি ২০১৯, ১৬:৪৪ | আপডেট : ১৬ ফেব্রুয়ারি ২০১৯, ১৮:৪৫
টঙ্গীর তুরাগ নদীর তীরে চলা ৫৪তম বিশ্ব ইজতেমার প্রথম পর্ব আখেরি মোনাজাতের মাধ্যমে শেষ হয়েছে। এজন্য প্রথম পর্বের অনুসারীদের ইজতেমা ময়দান খালি করার জন্য ৬ ঘণ্টা সময় বেধে দিয়েছে প্রশাসন। অর্থাৎ বিকেল ৫টার মধ্যেই ইজতেমা ময়দান খালি করতে হবে।

এ বিষয়টি নিশ্চিত করে র‌্যাব-১ এর সিও (কমান্ডিং অফিসার) লেফটেন্যান্ট কর্নেল সারওয়ার বিন কাশেম গণমাধ্যমকে জানান, বিকেল ৫টার মধ্যে ইজতেমা ময়দান খালি করতে হবে এবং সে ব্যাপারে জোবায়েরপন্থীরা খালি করার প্রক্রিয়া শুরু করেছেন।

তিনি বলেন, ‘তাবলীগের দুইপক্ষকেই আমরা আগেই নির্দেশনা দিয়েছিলাম যাতে কোনও পক্ষ আরেক পক্ষকে দোষারোপ করে বক্তব্য না দেন। এক গ্রুপ আরেক গ্রুপকে নিয়ে যাকে কটাক্ষ না করেন। সেই অনুযায়ী মাওলানা জোবায়ের অনুসারীরা বয়ান এবং ইজতেমার অভ্যন্তরে প্রতিপক্ষ গ্রুপকে কটাক্ষ বা উসকানিমূলক কোনও কথা বলেননি। আশা করছি পরে যারা ইজতেমা পরিচালনা করবেন তারাও নির্দেশনাগুলো মেনেই ইজতেমা শেষ করবেন।’

এ প্রসঙ্গে গাজীপুর মেট্রোপলিটন পুলিশ কমিশনার ওয়াই এম বেলালুর রহমান বলেন, যেহেতু তাবলীগের অভ্যন্তরীণ সমস্যার জন্য ইজতেমা দুই পর্বে ভাগ করা হয়েছে।  সেহেতু এক গ্রুপেরটা শেষ হলে অন্য গ্রুপকে সুযোগ দিতে হবে। কোনও অপ্রীতিকর পরিস্থিতি যাতে সৃষ্টি না হয় সেজন্য আলাদা আলাদা আখেরি মোনাজাতের ব্যবস্থাও করা হয়।

কমিশনার বলেন, প্রথম পর্বের ইজতেমা পরিচালনা করেছেন মাওলানা জোবায়েরপন্থী অনুসারীরা। ইজতেমা শেষে আখেরি মোনাজাত পরিচালনা করেন মাওলানা জোবায়ের ইসলাম। তারা ইজতেমা ময়দান খালি করলে সাদপন্থীরা দ্বিতীয় পর্ব পরিচালনা করবেন। যতক্ষণ ময়দান খালি না হবে ততক্ষণ পর্যন্ত দ্বিতীয় পর্বের জন্য কাউকে প্রবেশ বা পরিচালনা কোনোটাই করতে দেওয়া হবে না। পুলিশসহ সকল আইনশৃঙ্খলা বাহিনী বিষয়টি তদারকি করছে।

গাজীপুরের জেলা প্রশাসক ড. দেওয়ান মুহাম্মদ হুমায়ূন কবীর বিষয়টি নিশ্চিত করে আরটিভি অনলাইনকে বলেন, আজকে রাতের মধ্যে ইজতেমা মাঠ খালি করে দিবেন জোবায়েরপন্থীরা। রোববার সকাল থেকে মাওলানা সা'দের অনুসারীরা ইজতেমা ময়দানে জমায়েত হবেন।

পি

  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়