• ঢাকা বুধবার, ১৯ জুন ২০২৪, ৫ আষাঢ় ১৪৩১
logo

পুলিশের মাথা ফাটাল পুলিশ

আরটিভি নিউজ

  ০৭ জুন ২০২৪, ২৩:০৯
ফাইল ছবি

খুলনায় তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে কথা-কাটাকাটির জেরে এক এএসআইয়ের মাথা ফাটিয়ে দিয়েছেন আরেক এসআই।

শুক্রবার (৭ জুন) দুপুর ২টার দিকে কয়রা উপজেলার আঁখি খাবার হোটেলে এ ঘটনা ঘটে।

পুলিশ সদস্যরা হলেন- এসআই নিরঞ্জন রায় ও এসআই সরদার মো. মাসুম বিল্লাহ। এ ঘটনায় এসআই সরদার মো. মাসুমের মাথা ফেটে গেছে।

প্রত্যক্ষদর্শী সূত্রে জানা গেছে, এসআই মাসুম উপজেলা সদরের আঁখি হোটেলে খাবার জন্য বসেছিলেন। কিছুক্ষণ পর একটি মোটরসাইকেলযোগে এসআই নিরাঞ্জন সেখানে যান। মোটরসাইকেল থেকে নেমেই তিনি এসআই মাসুমকে অকথ্য ভাষায় গালাগাল করতে থাকেন। এসআই মাসুমও তাৎক্ষণিক প্রতিবাদ করেন। একপর্যায়ে এসআই নিরাঞ্জন প্লাস্টিকের চেয়ার তুলে মাসুমকে মারধর করতে উদ্যত হন। এতে তিনিও চেয়ার তুলে রুখে যান। দুজনের মারামারির একপর্যায়ে মাসুমের মাথা ফেটে যায়। পরে হোটেলে উপস্থিত লোকজন তাদের শান্ত করেন।

জানা যায়, একটি মোটরসাইকেল আটক করাকে কেন্দ্র করে থানার দুই এসআই মারামারিতে জড়িয়ে পড়েন। আমরা উপস্থিত লোকজন তাদের শান্ত করি। এ সময় নিরাঞ্জন এসআইর চেয়ারের বাড়িতে মাসুম এসআইর মাথা ফেটে রক্ত বের হয়। তাকে তাৎক্ষণিক প্রাথমিক চিকিৎসা দেওয়া হয়েছে।

এ বিষয়ে এসআই নিরাঞ্জন রায় বলেন, দুজনের মধ্যে ধ্বস্তাধ্বস্তির একপর্যায় তিনি পড়ে গিয়ে আহত হয়েছেন।

খুলনা জেলা পুলিশের সহকারী পুলিশ সুপার (ডি সার্কেল) মো. সাইফুল ইসলাম ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেন। তিনি বলেন, কয়রা থানার দুজন এসআই একটি বিষয় নিয়ে কথা-কাটাকাটির ঘটনা শোনার সঙ্গে সঙ্গে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করা হয়েছে। পাবলিক প্যালেসে এ ধরনের ঘটনা খুবই দুঃখজনক। বিষয়টি ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষকে জানানো হয়েছে। এ ঘটনায় তাৎক্ষণিক একজনকে পুলিশ লাইনে নেওয়া হয়েছে।

মন্তব্য করুন

daraz
  • দেশজুড়ে এর পাঠক প্রিয়
আরও পড়ুন
গরুর মাংস রাখার অপরাধে ১১ জনের ঘর ভাঙল পুলিশ
কোরবানি দিতে গিয়ে ঢাকায় আহত ৫৫ জন
নোয়াখালীতে মাদরাসার বিরুদ্ধে অপপ্রচারের প্রতিবাদে সংবাদ সম্মেলন
নিখোঁজ কিশোরীকে উদ্ধার করতে গিয়ে মারধরের শিকার ৪ পুলিশ