• ঢাকা বৃহস্পতিবার, ২৫ জুলাই ২০২৪, ১০ শ্রাবণ ১৪৩১
logo

দুদিন পর মিলল ভস্মীভূত মরদেহ, গুমের চেষ্টায় আটক ২

বগুড়া প্রতিনিধি, আরটিভি নিউজ

  ০৪ জুন ২০২৪, ১১:০৯
দুদিন পর মিলল ভস্মীভূত মরদেহ, গুমের চেষ্টায় আটক ২
রহমত আলী। ছবি : সংগৃহীত

বগুড়ার শেরপুরে তেলের দোকানে বিস্ফোরণে আগুন লাগার ঘটনায় দুদিন পর রহমত আলী (৩২) নামে এক লরিচালকের সহকারীর মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে। ওই ব্যক্তি আগুন লাগার রাতেই ঘটনাস্থলে নিহত হয়েছিলেন। রোববার (২ জুন) ভস্মীভূত দোকানটি পরিষ্কার করতে গিয়ে আগুনে পুড়ে যাওয়া রহমতের মরদেহ পাওয়া যায়। পরে দোকানটির মালিকপক্ষ ঘটনাটি ধামাচাপা দেওয়ার চেষ্টা করেন। রহমত আলীর মরদেহ গুমের চেষ্টা চালানোর অভিযোগে দুজনকে আটক করে জিজ্ঞাসাবাদ করছে পুলিশ।

সোমবার (৩ জুন) সিরাজগঞ্জের শাহজাদপুর উপজেলা সদর থেকে মরদেহ পরিবহন কাজে ব্যবহৃত ট্রাক জব্দ করাসহ তাদের আটক করা হয়।

আটককৃতরা হলেন, ট্রাকচালক আনোয়ার হোসেন (৩৭) ও তার সহকারী শিপন আহমেদ (২৫)।

এ ঘটনায় সোমবার বিকেলে বগুড়ার শেরপুর থানায় নিহত রহমত আলীর ভাই রফিকুল ইসলাম বাদী হয়ে মামলা করেছেন।

এর আগে শেরপুর পৌর শহরের হাসপাতাল রোড এলাকায় জিন্নাহর গ্যাস ও তেলের দোকানে আগুন লাগার এ ঘটনা ঘটে। এ সময় ওই ব্যবসা প্রতিষ্ঠানের কর্মচারী শহিদুল ইসলাম ও আছের আলী অগ্ধিদগ্ধ হন। বর্তমানে বগুড়ায় শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ (শজিমেক) হাসপাতালের বার্ন ইউনিটে চিকিৎসাধীন রয়েছেন তারা। ঘটনার পর থেকে তেলের দোকান মালিক রফিকুল ইসলাম জিন্নাহ পলাতক রয়েছেন।

খোঁজ নিয়ে জানা যায়, ঘটনার পরদিন রোববার দুপুরের পর দুই ব্যক্তি আগুনে ভস্মীভূত হওয়া ভবনের ওই ব্যবসা প্রতিষ্ঠান পরিষ্কার করছিলেন। এ সময় তারা মানুষের হাড়, চামড়া দেখতে পান। তখন তারা আর পরিষ্কার না করে ঘটনাটি ব্যবসায়ী ও ভবন মালিক পক্ষের লোকজনকে জানান। পরবর্তীতে মরদেহটি উদ্ধার করে মোটা অঙ্কের টাকা নিয়ে ট্রাকে তুলে মরদেহ শাহজাদপুরে নিয়ে যান আটক ব্যক্তিরা। কিন্তু সেখানে নেওয়ার পর ঘটনাটি সন্দেহজনক হওয়ায় ট্রাকচালক ও তার সহকারীকে আটক করেন এলাকাবাসী। একপর্যায়ে ঘটনাটি সন্দেহজনক হওয়ায় প্রথমে শাহজাদপুর থানায় এবং পরবর্তীতে শেরপুর থানায় জানানো হয়।

শেরপুর থানার পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) কামাল হোসেন শাহজাদপুর থেকে মরদেহটি উদ্ধার করে বগুড়ায় মর্গে পাঠান। সেইসঙ্গে মরদেহ পরিবহনের কাজে ব্যবহৃত ট্রাকটি জব্দ করাসহ চালক-হেলপারকে আটক করে থানায় আনা হয়।

ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন শেরপুর থানার ওসি রেজাউল করিম রেজা।

তিনি বলেন, আগুন লাগা ভবন থেকে উদ্ধার হওয়া মরদেহ কেন গুম করার চেষ্টা করা হয়েছে, সেটি অনুসন্ধানে কাজ শুরু করেছে পুলিশ। পাশাপাশি দুজনকে আটক করে জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে। অচীরেই রহস্যের জট খুলবে।

এ ঘটনায় আইন অনুযায়ী পদক্ষেপ নেওয়া হবে বলেও জানান পুলিশ কর্মকর্তা রেজাউল।

মন্তব্য করুন

  • দেশজুড়ে এর পাঠক প্রিয়
আরও পড়ুন
বগুড়ায় প্রাণ গেল বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রীর
বগুড়ায় আওয়ামী লীগের অফিস ভাঙচুর
বগুড়া আজিজুল হক কলেজে ককটেল বিস্ফোরণ, আহত ৪
বগুড়ায় ট্রাকচাপায় একই পরিবারের তিনজনসহ নিহত ৪