• ঢাকা রোববার, ১৬ জুন ২০২৪, ২ আষাঢ় ১৪৩১
logo

ভালোবেসে বিয়ে, সমাপ্তি ঘটলো মৃত্যু দিয়ে

টাঙ্গাইল (উত্তর) প্রতিনিধি, আরটিভি নিউজ

  ১৬ মে ২০২৪, ২৩:০৩
ছবি : আরটিভি

ভালোবেসে যে মানুষটির হাত ধরে সুখের সংসার করতে চেয়েছিলেন আজ সেই মানুষটির হাতেই নির্মম হত্যাকাণ্ডের শিকার হয়েছেন নূরী। বছর না যেতেই স্বামী রাকিবের নির্যাতনের বলি হতে হলো তাকে। ঘটনাটি ঘটেছে টাঙ্গাইলের গোপালপুর পৌর শহরের হাটবৈরিয়ান গ্রামে।

বৃহস্পতিবার (১৬ মে) দুপুরে মারধরের পর জ্ঞান হারালে নূরীকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসার জন্য নিয়ে আসেন রাকিব নিজেই।

রাকিব ওই গ্রামের জয়নাল আবেদীনের ছেলে আর নূরী সূতী লাঙ্গলজোড়া এলাকার আব্দুর রাজ্জাকের মেয়ে। এক বছর আগে ভালোবেসে বিয়ে করেন তারা।

জানা যায়, প্রেমের বিয়ের কিছুদিন না যেতেই নূরী বেগমের ওপর অমানুষিক শারীরিক নির্যাতনের অভিযোগ ওঠে স্বামী রাকিবের বিরুদ্ধে।

উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. সারোয়ার হোসেন খাঁন সোহেল জানান, মৃত অবস্থায় নূরীকে হাসপাতালে নিয়ে আসে স্বামী রাকিব। চিকিৎসক মৃত ঘোষণার সাথে সাথেই রাকিব সটকে পড়ে। মৃতদেহ পুলিশের নিকট হস্তান্তর করা হয়েছে। মরদেহের শরীরে নির্যাতনের পুরোনো দাগ রয়েছে।

নূরীর বড় বোন মল্লিকা জানান, বিয়ের পর থেকেই নেশায় আসক্ত রাকিব আমার বোনকে অমানুষিক শারীরিক নির্যাতন করতো। আমাদের সাথে যোগাযোগ করতে দিতো না। এমনকি ফোনেও কথা বলতে বাধা দিতো। ওর নির্যাতনে আমার বোনের মৃত্যু হয়েছে। আমরা ওর দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি চাই।

গোপালপুর থানা অফিসার ইনচার্জ (ওসি) ইমদাদুল ইসলাম তৈয়ব জানান, মরদেহের শরীরে নির্যাতনের চিহ্ন রয়েছে, খবর পেয়ে আমরা মূল অভিযুক্তকে আটক করে থানায় এনেছি। মামলা দায়ের ও মরদেহ ময়নাতদন্তের জন্য পাঠানোর প্রস্তুতি চলছে।

মন্তব্য করুন

daraz
  • দেশজুড়ে এর পাঠক প্রিয়
আরও পড়ুন
আখাউড়ায় পুকুরে ডুবে শিশুর মৃত্যু
বজ্রপাতে অন্তঃসত্ত্বার মৃত্যু
পশুর হাটে বিদ্যুৎস্পৃষ্টে যুবকের মৃত্যু
স্বামীর মৃত্যুর ৭ ঘণ্টা পর মারা গেলেন স্ত্রীও