Mir cement
logo
  • ঢাকা রোববার, ২৯ মে ২০২২, ১৫ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯

কয়রার চেয়ারম্যানের নাম ভাঙিয়ে চাঁদাবাজি ভন্ড প্রতারকদের

কয়রার চেয়ারম্যানের নাম ভাঙিয়ে চাঁদাবাজি ভন্ড প্রতারকদের
এস এম বাহারুল ইসলাম। ছবি : সংগৃহীত

খুলনার কয়রা সদর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান এস এম বাহারুল ইসলামের নাম-পরিচয় ব্যবহার করে উপজেলার বিভিন্ন ব্যক্তি ও প্রতিষ্ঠানের কাছে চাঁদা দাবি করছে একটি চক্র। তিনি জানিয়েছেন নাম ভাঙিয়ে যদি কেউ চাঁদাবাজি করে তাহলে সরাসরি আমাকে অথবা প্রশাসনকে অবগত করবেন।

রোববার (৭ মে) নিজের ফেসবুক অ্যাকাউন্টে পোস্ট দিয়ে এ কথা জানান তিনি।

চেয়ারম্যানের সেই পোস্ট পাঠকের উদ্দেশে তুলে ধরা হলো—

আমি আপনাদের ভোটে নির্বাচিত একজন জন প্রতিনিধি, তাই আমি মনে করি আপনাদের কাছে আমার কাজের জবাবদিহিতা নিশ্চিত করা অন্যতম দায়িত্ব। সেই দায়বদ্ধতা থেকে আমি আপনাদের উদ্দেশ্যে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে কিছু বিষয় সবিনয়ে অবগত করতে চাই।

আমি বিভিন্ন সময়ে খবর পাই যে, কয়রা উপজেলার কোথাও কোথাও অনেকেই নিজেকে আমার গ্রুপ বা আমার লোক বলে পরিচয় দিয়ে চাঁদাবাজি করেন। যেটা খুবই দুঃখজনক। এরা ভন্ড প্রতারক। এরা সুযোগ সন্ধানী লোক। অনেকেই বলেন, কয়রা ইউনিয়ন পরিষদের কোন টেন্ডার/ইজারা হলে সেখানে নাকি আমার নামে একটা গ্রুপ কাজ পায়। এমনকি বিভিন্ন জায়গায় কিছু লোক এমন পরিচয় দেন বলে আমি জেনেছি।

এ বিষয়ে আমি আগেও বলেছি এবং এখন আবারও বলছি, আমার কোন গ্রুপ নাই। আমি সমস্ত অপকর্মের বিরুদ্ধে। আমার কোন বাহিনী নাই। আমার বিশেষ পছন্দনীয় কোন ব্যক্তিও নাই। জননেত্রী শেখ হাসিনার আওয়ামী লীগ। এই দলে এটাই একমাত্র গ্রুপ। এখানে আমি কেন, কারো নামেই কোন গ্রুপ নাই। আমি এটি বিশ্বাস করি ও ধারণ করি।

আমার বিশেষ পছন্দনীয় কোন ব্যক্তি নাই। কেউ যদি কোথাও এমনটা পরিচয় দেয়, তাহলে বুঝবেন তিনি ব্যক্তিগত কোন সুবিধা পাওয়ার আশায় আমার নাম ভাঙাচ্ছেন। আমি সবাইকে নিয়ে পথ চলতে চাই। বিশেষ কাউকে সুবিধা দিতে আপনারা কেউ আমাকে ভোট দিয়ে চেয়ারম্যান করেননি। আমি সবার, আর সবাইকে নিয়েও পথ চলতে চাই।

তিনি আরও লিখেছেন, আমার নাম ভাঙিয়ে যদি কেউ ফায়দা লুটতে চায় তাহলে সরাসরি আমাকে অথবা প্রশাসনকে অবগত করবেন। আমি সবার চেয়ারম্যান হতে চাই। আশা করি, স্বার্থান্বেষী একটি মহলের চক্রান্তে আপনারা আমাকে ভুল বুঝবেন না। আমি কাউকে বিশেষ সুবিধা দিতে কখনো কোথাও ফোন করি না। আমি রাজনীতিতে এসেছি শুধুমাত্র অবহেলিত কয়রার কাঙ্ক্ষিত উন্নয়ন করার জন্য, ব্যক্তি উন্নয়ন বা কাউকে বিশেষ সুবিধা দিতে আমি আসিনি এবং এজন্য আপনারাও আমাকে ভোট দিয়ে চেয়ারম্যান নির্বাচিত করেননি।

আমরা সবাই ছোট্ট দুর্যোগ কবলিত এলাকার বাসিন্দা। ছোট্ট এই উপজেলাকে বিভিন্ন গ্রুপ, সাব গ্রুপে ভাগ করে আরও ছোট করে ফেলা, খন্ড-বিখন্ড করা আমাদের সংকীর্ণতার পরিচায়ক। আয়তনে কয়রা ছোট হলেও ঐক্যে, বন্ধনে আমরা সবাই মিলে অনেক বড় উপজেলা হতে চাই। আয়তনের ক্ষুদ্রতাকে চিন্তা চেতনার ক্ষুদ্রতা দিয়ে আরও সংকীর্ণ করতে চাই না। আসুন আমরা সকলে এলক্ষে একসঙ্গে কাজ করি।

মন্তব্য করুন

RTV Drama
RTVPLUS