Mir cement
logo
  • ঢাকা শনিবার, ২৯ জানুয়ারি ২০২২, ১৫ মাঘ ১৪২৮
discover

চাঁদপুরে স্কুল ছাত্রী ধর্ষণের প্রধান আসামি শিমুল গ্রেপ্তার

চাঁদপুরে স্কুল ছাত্রী ধর্ষণের প্রধান আসামি শিমুল গ্রেপ্তার

চাঁদপুর জেলার ফরিদগঞ্জে জোরপূর্বক তুলে নিয়ে স্কুল ছাত্রীকে ধর্ষণের ঘটনায় মূল আসামি শিমুলকে আটক করেছে পুলিশ।

মঙ্গলবার (১১ জানুয়ারি) বিকেলে চাঁদপুর লঞ্চঘাট থেকে চাঁদপুর জেলা পুলিশ সুপার মিলন মাহমুদের নির্দেশে ফরিদগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ মোহাম্মদ শহীদ হোসেন ও এস.আই নূরুল ইসলাম সঙ্গীয় ফোর্সসহ গোপন সংবাদের ভিত্তিতে তাকে আটক করে।

এর আগে শিক্ষার্থীকে ধর্ষণের সহযোগিতা করায় তিন সন্তানের মা লিপি বেগম (৩২), ইজাজ হোসেন (২৩) ও সাব্বির হোসেন (২৬) কে ১০ জানুয়ারি সোমবার সকালে কুমিল্লা থেকে আটক করা হয়।

পুলিশ জানায়, ফরিদগঞ্জ উপজেলার গুপ্টি পূর্ব ইউনিয়নের স্কুল থেকে বাড়ি ফেরার পথে রোববার তিন বখাটে শিক্ষার্থীকে তুলে নিয়ে লিপি বেগমের বসত ঘরে নিয়ে ধর্ষণ করে।

এ সময় ধর্ষণের ভিডিও ধারণ করে ধর্ষক। পরে ওই ছাত্রী ধর্ষকের কাছ থেকে ছাড়া পেয়ে বাড়িতে এসে পরিবারের লোকজনকে জানালে ঘটনার দিন সন্ধ্যায় শিক্ষার্থীর মা বাদী হয়ে ফরিদগঞ্জ থানায় মামলা দায়ের করে।

ফরিদগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ মোহাম্মদ শহীদ হোসেন বলেন, স্কুল ছাত্রী গণধর্ষণের মামলাটি গ্রহণ করা হয়েছে। এ মামলার প্রধান আসামি শিমুলকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। তার আগে শিমুলের ৩ সহযোগীকেও গ্রেপ্তার করতে আমরা সক্ষম হয়েছি।

ফরিদগঞ্জ থানার এস আই নুরুল ইসলাম ও স্থানীয়রা সাংবাদিকদের বলেন, শিমুলের তেমন কোন পড়ালেখা নেই এবং সে মাদকসেবী। এলাকায় কিশোর গ্যাং চক্রের মূলহোতা এই শিমুল। নানা সময়ে এলাকায় প্রভাব বিস্তার করে নানান অপকর্মে সে লিপ্ত থাকতো। সে মনে মনে স্বাধীনতা বিরোধী চক্র মনা হলেও উপরে উপরে বড় মাপের আওয়ামী মনোভাব প্রকাশ করতো। নিজের ছবি ব্যবহার করে এলাকায় বেশ কিছু ব্যানার পোষ্টারও টানিয়েছিলো। অপকর্ম ঢাকতে শিমুল যুবলীগের পদ-পদবীতে থাকা নেতাকর্মীদের সাথে ছবি তুলে সোশ্যাল মিডিয়ায় নিজেকে বড় যুবলীগারও প্রমাণ করাতে চেয়েছিলো। আর এসবের আড়ালেই সে মাদকবিক্রি, ইভটিজিং, কিশোর গ্যাংসহ নানা অপকর্ম করতো।

এমএন

মন্তব্য করুন

RTV Drama
RTVPLUS