Mir cement
logo
  • ঢাকা বুধবার, ০১ ডিসেম্বর ২০২১, ১৬ অগ্রহায়ণ ১৪২৮

‘নৌকায় ভোট না দিলে কেন্দ্রে আসার দরকার নেই’

স্বতন্ত্র প্রার্থী মো. আল-আমিন সরকারের সংবাদ সম্মেলন

সিরাজগঞ্জের উল্লাপাড়া উপজেলার পূর্ণিমাগাঁতী ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী ও তার সমর্থকদের বিরুদ্ধে অভিযোগ উঠেছে যে, তারা বলে বেড়াচ্ছেন ‘নৌকা প্রতীকে প্রকাশ্যে সিল মারতে হবে, নৌকায় যারা ভোট দেবেন না, তাদের কেন্দ্রে যাওয়ার দরকার নেই, ভোটের আগেই প্রতি কেন্দ্রে ৫০০ ব্যালটে সিল মারা হবে।’

বুধবার (২৪ নভেম্বর) স্বতন্ত্র চেয়ারম্যান প্রার্থী মো. আল-আমিন সরকার সংবাদ সম্মেলনে এ অভিযোগ করেন।

চেয়ারম্যান বাজার এলাকায় আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে আল-আমিন সরকার অভিযোগ করে বলেন, ক্ষমতাসীন দলের প্রার্থী আমার কর্মীদের ওপর সন্ত্রাসী হামলা, ভাঙচুর ও মারপিট চালাচ্ছেন। প্রচারণায় বাধা দিচ্ছেন। আজ (২৪ নভেম্বর) সকালে ভোট চাইতে গেলে আমার চার নারী কর্মীকে বেদম মারপিট করেছে নৌকা প্রার্থীর সন্ত্রাসী বাহিনী। তাদের তাণ্ডবে আমি নিজের জীবনের নিরাপত্তা নিয়েই শঙ্কিত হয়ে পড়েছি। অন্যদিকে ইউনিয়ন পরিষদ এলাকায় আমার বেশ কিছু কর্মীকে অবরুদ্ধ করে রাখা হয়েছে।

এর আগেও আমার নির্বাচনী অফিসে নৌকার প্রার্থী রেজাউল ইসলাম তপন ও ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি রাশেদুলের নেতৃত্বে হামলা চালানো হয়। আমার তিন কর্মীকে কুপিয়ে জখম করা হয়। এসব কারণে এখানে সুষ্ঠু নির্বাচন নিয়ে শঙ্কার সৃষ্টি হয়েছে। এ সময় তিনি প্রশাসনের কাছে অবাধ ও নিরপেক্ষ নির্বাচনের দাবি জানান।

তবে এসব অভিযোগ অস্বীকার করে আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী রেজাউল ইসলাম তপন বলেন, আমি কখনও গণ্ডগোল পছন্দ করি না। আমি নিরপেক্ষ নির্বাচন চাই। স্বতন্ত্র প্রার্থী যেসব অভিযোগ দিয়েছেন, তা সম্পূর্ণ মিথ্যা।

টিআই

মন্তব্য করুন

RTV Drama
RTVPLUS