Mir cement
logo
  • ঢাকা রোববার, ২৮ নভেম্বর ২০২১, ১৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৮

আগের রুপে ফিরছে পীরগঞ্জের হিন্দুপল্লী

আগের রুপে ফিরছে হিন্দুপল্লী
পীরগঞ্জের হিন্দুপল্লী

সাম্প্রদায়িক হামলার শিকার পীরগঞ্জের হিন্দুপল্লীর ক্ষতিগ্রস্ত বাড়িঘরগুলো এখন চকচক করছে। হামলায় ক্ষতিগ্রস্তদের ঘরের ছাউনি ও বেড়া নতুন টিন দিয়ে তৈরি ও মেরামত করা হয়েছে। ফলে চকচক করছে পুরো গ্রামটি।

সোমবার (২৫ অক্টোবর) কসবা হিন্দুপল্লী দেখা গেছে, উপজেলা প্রশাসনের তদারকি এবং ত্রাণ ও দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা বিভাগের পক্ষ থেকে ঘরগুলোর কাজ সম্পন্ন করা হয়েছে।

গত ১৭ অক্টোবর রাতে ফেসবুকে উসকানিমূলক পোস্ট দেওয়াকে কেন্দ্র করে উগ্রবাদী দুর্বৃত্তরা উপজেলার রামনাথপুর ইউনিয়নের বড় করিমপুর কসবা হিন্দুপল্লী মাঝিপাড়ায় বাড়ি ঘরে হামলা, লুটপাট, ভাঙচুর ও অগ্নিসংযোগ করেন। এতে ২৬টি পরিবারের ঘর আগুনে পুড়ে যায়। আর ৪০টি পরিবারের আংশিক ক্ষতি হয়।

উপজেলা ত্রাণ ও দুর্যোগ বিভাগের সূত্রে জানা গেছে, উপজেলার ওই পল্লিতে আগুনে ক্ষতিগ্রস্তদের তালিকা করেছে। তালিকায় ২৬টি পরিবারের বেশি ক্ষতি এবং হালকা ক্ষতি হয়েছে ৪০টি পরিবার। ওইসব পরিবারকে দেওয়া সরকারি-বেসরকারি, স্বেচ্ছাসেবী প্রতিষ্ঠান ও ব্যক্তির পক্ষ থেকে দেয়া নগদ টাকাসহ অন্যান্য সামগ্রীর তালিকা করা হয়েছে। এতে ২৬টি পরিবার ২ লাখ ২০ হাজার টাকা করে নগদ টাকা এবং কাপড়, শুকনো খাবারও পেয়েছেন। এছাড়া যাদের কম ক্ষতি হয়েছে তারাও অর্ধ লক্ষাধিক টাকা করে নগদ সাহায্য পেয়েছেন।

মাঝিপাড়ার নিখিল চন্দ্র বলেন, ‘আগুন নাগে দি মোর দোকান ঘর পুড়ি দিচে। ঘটনার একদিন পরেই ইউএনও স্যার, পিআইও স্যার হামার পাড়ার পোড়া-ভাঙা বাড়িগুলো ঠিক করার জন্যে মিস্ত্রি নাগে দেয়। মুই এখন মোর নতুন ঘরে দোকান করোচো।

ক্ষতিগ্রস্ত দেবেন চন্দ্র বলেন, হামার এমপি স্পিকার আপা টিন আর নগদ ট্যাকা দিছে। পিআইও স্যার সেই টিন দিয়া মোর ঘরগুল্যা একদম নতুন করি বানে দিচে। এ জন্য হামরা সবাই খুশি।’

উপজেলা নির্বাহী অফিসার বিরোদা রানী রায় আরটিভি নিউজকে বলেন, আমরা খুবই দ্রুততম সময়ে ক্ষতিগ্রস্তদের সহায়তা দিয়েছি। তাদের ঘরগুলোও নতুন টিন দিয়ে মেরামত করা হয়েছে।

এমআই/এসকে

মন্তব্য করুন

RTV Drama
RTVPLUS