Mir cement
logo
  • ঢাকা মঙ্গলবার, ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১৩ আশ্বিন ১৪২৮

মানিকগঞ্জে চালু হয়নি ২১ স্কুল 

মানিকগঞ্জে চালু হয়নি ২১ স্কুল 
বন্যার পানিতে স্কুল

মানিকগঞ্জে বন্যায় ক্ষতিগ্রস্ত হওয়ায় জেলার মোট ৮৮৪টি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের মধ্যে ২১টি বিদ্যালয় চালু হয়নি। তবে খুব শীঘ্রই চালু করা সম্ভব হবে বলে জানিয়েছেন সংশ্লিষ্ট বিভাগ।

রোববার (১২ সেপ্টেম্বর) সরেজমিনে গিয়ে এই চিত্র দেখা যায়।

এলাকার বেশ কয়েকটি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে ঘুরে দেখা গেছে, শিক্ষার্থীরা মুখে মাস্ক পড়ে সামাজিক দূরত্ব রক্ষা করে পাঠদান কক্ষে বসেছে। প্রতিষ্ঠানের পক্ষ থেকে থার্মাল স্ক্যানার, স্প্রে মেশিন, হ্যান্ড স্যানিটাইজার, হাত ধোয়ার ব্যবস্থাসহ স্বাস্থ্যবিধি রক্ষা নিশ্চিত করা হয়েছে। বিদ্যালয়গুলোতে শিক্ষার্থীদের উপস্থিতিও ছিল সন্তোষজনক।

এদিকে ঘিওর উপজেলার দিয়াইল সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়সহ বেশ-কয়েকটি বিদ্যালয়ের চারপাশে পানি থাকলেও চলছে পাঠদান কার্যক্রম। আর বেশ কিছু বিদ্যালয়ের আঙিনা থেকে পানি নেমে গেলেও রয়েছে কাদামাটি। তবে প্রস্তুতি চলছে চালু করার।

মানিকগঞ্জ সদর উপজেলার জয়নগর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক এস এম রাব্বি আরটিভি নিউজকে বলেন, আমদের বিদ্যালয়ে পঞ্চম শ্রেণিতে ৪৫ জন শিক্ষার্থীর মধ্যে উপস্থিতি ছিল ৪১ জন। আর তৃতীয় শ্রেণিতে ৪৯ জনের মধ্যে উপস্থিত ছিল ২৯ জন। অর্থাৎ পঞ্চম শ্রেণিতে উপস্থিতির হার ৯১ শতাংশ এবং তৃতীয় শ্রেণিতে উপস্থিতির হার ৫৯ শতাংশ।

সাটুরিয়া উপজেলার ফুকুরহাটি পূর্বাপাড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক রিনা আক্তার আরটিভি নিউজকে বলেন, ’আমদের বিদ্যালয়ে পঞ্চম শ্রেণিতে ৬১ জন শিক্ষার্থীর মধ্যে উপস্থিতি ছিল ৫৬ জন। আর তৃতীয় শ্রেণিতে ৭৯ জনের মধ্যে উপস্থিত ছিল ৬০ জন। অর্থাৎ পঞ্চম শ্রেণিতে উপস্থিতির হার ৯১.৮০ শতাংশ এবং তৃতীয় শ্রেণিতে উপস্থিতির হার ৭৫.৯৪ শতাংশ।

জেলা প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তা তাপস কুমার অধিকারী আরটিভি নিউজকে বলেন, জেলার মোট ৬৫২টি প্রাথমিক বিদ্যালয় রয়েছে। বিদ্যালয়ের চারপাশে পানি থাকায় ২০টি প্রাথমিক বিদ্যালয় এখনও চালু করা সম্ভব হয়নি। এছাড়া হরিরামপুর উপজেলার সুতালড়ী রামচন্দ্রপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়টি এবার পদ্মা নদীগর্ভে বিলীন হয়েছে। সেটি অন্যত্র স্থানান্তরের প্রক্রিয়া চলমান রয়েছে।

জেলা শিক্ষা কর্মকর্তা রেবেকা জাহান আরটিভি নিউজকে বলেন, জেলায় মাধ্যমিক ও উচ্চমাধ্যমিক পর্যায়ে প্রতিষ্ঠান রয়েছে ২৩২টি। এসব প্রতিষ্ঠানের মধ্যে দৌলতপুর উপজেলার চরকাটারী সবুজসেনা উচ্চ বিদ্যালয় চালু করা সম্ভব হয়নি। তবে বিদ্যালয় প্রাঙ্গণে কাদামাটি শুকিয়ে গেলে খুব দ্রুতই চালু হবে।

জিএম

মন্তব্য করুন

RTV Drama
RTVPLUS