Mir cement
logo
  • ঢাকা মঙ্গলবার, ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১৩ আশ্বিন ১৪২৮

ময়মনসিংহ প্রতিনিধি, আরটিভি নিউজ

  ১০ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১৮:১৬

শিশু গৃহকর্মীকে নির্যাতনের অভিযোগ

শিশু গৃহকর্মীকে নির্যাতনের অভিযোগ
নির্যাতনের শিকার তানিয়া

ময়মনসিংহের ফুলবাড়িয়ায় ১০ বছরের এক শিশু গৃহকর্মীকে নির্মমভাবে নির্যাতনের অভিযোগ উঠেছে আছমা আক্তার (৩৫) নামের একজন মহিলার বিরুদ্ধে। বৃহস্পতিবার (৯ সেপ্টেম্বর) শিশু গৃহকর্মীকে অজ্ঞান অবস্থায় তার বাড়ির পাশে ফেলে আসা হয়েছে। শিশুটিকে পুলিশ ও পরিবারের লোকজন ফুলবাড়িয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করান।

নির্যাতনের শিকার তানিয়া (১০) ফুলবাড়িয়া উপজেলার কুশমাইল পানের ভিটা গ্রামের নাজিমুদ্দিনের মেয়ে। অভিযুক্ত আছমা আক্তার উপজেলার একই গ্রামের মৃত বীর মুক্তিযোদ্ধা ওয়াজেদ মিয়ার মেয়ে। আছমা আক্তার ও তার স্বামী সাইফুল ইসলাম ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে কর্মরত বলে জানা গেছে। তারা নগরীর চরপাড়া এলাকায় ভাড়া বাসায় থাকেন।

ফুলবাড়িয়া থানার এসআই জ্যোতিষ চন্দ্র জানান, শিশুটিকে বৃহস্পতিবার রাতে তার পরিবারের লোকজন থানায় নিয়ে আসার পর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়। পরে শুক্রবার সকালে উন্নত চিকিৎসার জন্য শিশুর পরিবারকে ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেয়ার জন্য বলা হয়। ঘটনাটি সদরের বলে কোতোয়ালি থানায় বিষয়টি জানানো হয়েছে। তারাই প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেবে।

ফুলবাড়িয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি অবস্থায় তানিয়া জানায়, তাকে খুব মারধর করা হয়েছে।তখন সে সহ্য করতে না পেরে বলে ‘আন্টি আমারে আর মাইরেন না, আমি মইরা যামু’। পরে আমারে আরো অনেক মারে।মাইরা ফুলবাড়িয়ায় রাইখা যায়।

নির্যাতিতা শিশুটির চাচা জানান, বড় ভাইয়ের সংসারে অভাব থাকায় তিন মাস আগে আছমার বাসায় আমার ভাতিজিকে কাজে দেওয়া হয়। এরপর থেকেই নানা অজুহাতে শিশুটিকে নির্যাতন করা হতো। বৃহস্পতিবারও বেদম মারলে শিশুটি অজ্ঞান হয়ে পড়ে। তখন অন্য এক মহিলার সাহায্যে বিকেল ৫টার দিকে আমাদের বাড়ির পাশে রেখে চলে যান। পরে লোকজন অজ্ঞান অবস্থায় শিশুটিকে দেখে পরিবারে খবর দেয়। এরপর তাকে নিয়ে প্রথমে ফুলবাড়িয়া থানায় নিয়ে গেলে পুলিশের সহায়তায় ভাতিজিকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করি।

এমএন

মন্তব্য করুন

RTV Drama
RTVPLUS