logo
  • ঢাকা বৃহস্পতিবার, ১৫ এপ্রিল ২০২১, ২ বৈশাখ ১৪২৮

ব্রাহ্মণবাড়িয়া প্রতিনিধি, আরটিভি নিউজ

  ০৩ এপ্রিল ২০২১, ১৭:১০
আপডেট : ০৩ এপ্রিল ২০২১, ১৭:৩০

ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় তাণ্ডব: আরও নতুন ৩ মামলা, গ্রেপ্তার ৩২

Violence in Brahmanbaria: 3 more new cases, 32 arrested
ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় তাণ্ডব

হেফাজতে ইসলামের হরতাল চলাকালে ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় বিভিন্ন স্থাপনায় হামলা, ভাঙচুর ও অগ্নিসংযোগের ঘটনায় আরও ৩টি মামলা দায়ের করা হয়েছে। এ নিয়ে সহিংসতার ঘটনায় মোট ২২টি মামলা দায়ের করা হয়েছে।

শনিবারের নতুন ৩টি মামলার সবকটিই সদর মডেল থানায় দায়ের করা হয়েছে। নতুন মামলাগুলোর মধ্যে উল্লেখযোগ্য হচ্ছে পৌরসভা ভাঙচুর ও বিভিন্ন সরকারি প্রতিষ্ঠানে অগ্নিসংযোগের মামলা, সদর উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) এর কার্যালয়ে অগ্নিসংযোগের মামলা, জেলা গণগ্রন্থাগার ও প্রেসক্লাব ভাঙচুরের মামলা।

এনিয়ে শনিবার (৩ এপ্রিল) পর্যন্ত ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর মডেল থানায় ভাঙচুর ও অগ্নিযোগের ঘটনায় ১৮টি মামলা দায়ের করা হয়েছে। এছাড়াও গত বুধবার পর্যন্ত সরাইল থানায় একটি, আশুগঞ্জ থানায় দুটি ও আখাউড়া রেলওয়ে থানায় একটি মামলা দায়ের করা হয়েছে।

পুলিশের এক বিবৃতিতে জানা যায়, দায়েরকৃত ২২টি মামলায় ১০৭ জনের নাম উল্লেখ করে অজ্ঞাতনামা প্রায় ২৩ হাজার লোককে আসামি করা হয়েছে। এ সহিংসার ঘটনায় এ পর্যন্ত ৩২ জনকে গ্রেপ্তার করেছে ব্রাহ্মণবাড়িয়া পুলিশ।

এদিকে, হামলার ঘটনার সময় বেশ কিছু ভিডিও ফুটেজ সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকেও ভাইরাল হয়েছে। পুলিশ এসব ভিডিও ফুটেজ সংগ্রহ করে হামলাকারীদের চিহ্নিত করার চেষ্টা করছে।

ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মো. আবদুর রহিম মামলার বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, শনিবার পর্যন্ত হামলা, ভাঙচুর ঘটনায় সদর থানায় ১৮টি মামলা হয়েছে। এসব মামলায় ১০৭ জনের নাম উল্লেখ করে অজ্ঞাতনামা ২৩ হাজার মানুষকে আসামি করা হয়েছে। এ পর্যন্ত ৩২ জনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

উল্লেখ্য, ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির বাংলাদেশ সফরের প্রতিবাদে এবং ঢাকা ও চট্টগ্রামে মাদরাসা ছাত্রদের ওপর পুলিশের হামলার খবরে গত ২৬ থেকে ২৮ মার্চ পর্যন্ত ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় ব্যাপক তাণ্ডব চালায় হেফাজতে ইসলামের কর্মীরা। এসময় তারা পুলিশ সুপারের কার্যালয়, সিভিল সার্জনের কার্যালয়, মৎস্য কর্মকর্তার কার্যালয়, ভূমি কর্মকর্তার কার্যালয়, পৌরসভা কার্যালয়, ব্রাহ্মণবাড়িয়া প্রেসক্লাব, জেলা পরিষদ কার্যালয় ও ডাকবাংলো, খাঁটিহাতা হাইওয়ে থানা ভবন, আলাউদ্দিন সংগীতাঙ্গন, আলাউদ্দিন খাঁ পৌর মিলনায়তন ও শহীদ ধীরেন্দ্রনাথ দত্ত ভাষা চত্বরসহ বেশ কয়েকটি সরকারি-বেসরকারি স্থাপনায় হামলা চালিয়ে ভাঙচুর ও অগ্নিসংযোগ করে।

পি

RTV Drama
RTVPLUS