logo
  • ঢাকা শনিবার, ১৬ জানুয়ারি ২০২১, ২ মাঘ ১৪২৭

টিউনিং মদ খেয়েই রাজশাহীতে ৫ যুবকের মৃত্যু হয়

টিউনিং মদ খেয়েই রাজশাহীতে ৫ যুবকের মৃত্যু হয়
রাজশাহী মহানগরীতে মদ্যপানে ৫ যুবকের মৃত্যুর ঘটনায় রহস্য উদঘাটন করা হয়েছে। জানা গেছে বিদেশি মদের সঙ্গে রেক্টিফাইড স্পিরিটসহ অন্যান্য উপকরণ মিশিয়ে এক বোতলকে একাধিক বোতলে পরিণত করা মদ পানের জন্য মৃত্যু হয়েছে ওই যুবকদের।

রাজশাহী মহানগর পুলিশের মুখপাত্র গোলাম রুহুল কুদ্দুস জানিয়েছেন, গত শুক্রবার রাতে মদপানে তিন যুবক রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে (রামেক) চিকিৎসাধীন অবস্থায়  মৃত্যু হয়, এরপর রোববার পর্যন্ত আরও দুইজনের মৃত্যু হলে  বিষয়টি নিয়ে অনুসন্ধানে নামে মহানগর পুলিশ। অভিযানে চার মদ বিক্রেতাকে আটক করা হয়। 

এরা হলেন- নগরীর সাগর পাড়া এলাকার পরিমল (৬০), রাজু (৩০), বাপ্পা সিং (২৮) ও সিপাইপাড়া এলাকার ইফতেখায়ের হোসেন ওরফে সুমন (৫০)।

জিজ্ঞাসাবাদে আটককৃতরা স্বীকার করেন যে, অতিরিক্ত লাভের আশায় বিদেশী মদের সঙ্গে রেক্টিফাইড স্পিরিটসহ অন্যান্য কিছু উপকরণ মিশিয়ে এক বোতলকে একাধিক বোতল করে বিক্রি করা হয় ওই ৫ যুবকের কাছে। অসুস্থ ও মৃত যুবকদের ছবি দেখানো হলে তাদের কাছে মদ বিক্রির বিষয়টিও স্বীকার করেন মদ বিক্রেতারা।

পুলিশ তাদের আটকের পর অভিযান চালিয়ে মদের ৩টি কাঁচের খালি বোতল, টিউনিং মদ (মিশ্রিত) তৈরির তরল পদার্থ ভর্তি ১টি প্লাস্টিকের তৈরি বোতল, তেঁতুলের বিচি ভর্তি ১টি কাঁচের বোতল, কমলা কালারের ৫০ গ্রাম গুড়ো রং ২৯টি টিন ও প্লাস্টিকের তৈরি কর্ক, ১১টি কর্কের নিব ও ৫০টি কর্কের প্রটেকশন, এলকোহল ভর্তি ২টি প্লাস্টিকের সাদা বোতল উদ্ধার করে।

আটককৃতদের বিরুদ্ধে রাজশাহী নগরীর বোয়ালিয়া মডেল থানায় একটি মামলা দায়ের করা হয়েছে।

গত শুক্রবার দিবাগত রাতে রাজশাহীর হোসনিগঞ্জ এলাকায় একসঙ্গে ৬ যুবক মদপান করে। পরে তারা অসুস্থ হলে রামেক হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। সে রাতেই চিকিৎসাধীন অবস্থায় তিনজন ও শনিবার বিকেলে আরও একজন মারা যান। এছাড়া বাকি একজন রোববার মারা যান।

এসআর/এসএস

RTV Drama
RTVPLUS