logo
  • ঢাকা সোমবার, ২৫ জানুয়ারি ২০২১, ১১ মাঘ ১৪২৭

আটঘরিয়ায় ধর্ষণের শিকার স্কুলছাত্রী ৬ মাসের অন্তঃসত্ত্বা

The schoolgirl who, was raped in Atgharia, rtv news
ধর্ষণ
দীর্ঘদিন ধরে প্রথমে প্রেম পরে বিয়ের প্রলোভনে একাধিকবার ধর্ষণ। ফলে সপ্তম শ্রেণি পড়ুয়া স্কুলছাত্রী এখন ছয় মাসের অন্তঃসত্তা। এ ঘটনায় আটঘরিয়া থানায় নারী ও শিশু নির্যাতন আইনে একটি মামলা দায়ের হয়েছে।

পরে আসামি মিরাজুল ইসলামকে গ্রেপ্তার করে জেলহাজতে  পাঠিয়েছে পুলিশ। ঘটনাটি ঘটেছে উপজেলার একদন্ত ইউনিয়নের ষাটগাছা গ্রামে।

মামলার এজাহারে জানা গেছে, আটঘরিয়া উপজেলার ষাটগাছা গ্রামের আবদুল খালেকের লম্পট ছেলে মিরাজুল ইসলাম (২৪) বাড়ির পাশের জনৈক ব্যক্তির সপ্তম শ্রেণির এক ছাত্রীর সঙ্গে প্রেম করে বিয়ের প্রলোভন দিয়ে চলতি বছর তিন মার্চ তারিখে ওই ছাত্রীকে ধর্ষণ করে। এরপরেও তাকে একাধিকবার ধর্ষণ করা হয়েছে। এ ঘটনাটি জানাজানি হলে মিরাজুলকে বিয়ের প্রস্তাব দিলে সে প্রেমের বিষয়টি অস্বীকার করে। এরপর গেলা চার নভেম্বর  ওই স্কুলছাত্রীকে ডাক্তারি পরীক্ষা করা হলে তার পেটে ২৫ সপ্তাহের বাচ্চা দেখা যায় বলে চিকিৎসক জানান।

পরে ছয় নভেম্বর ওই স্কুলছাত্রীর বাবা বাদী হয়ে মিরাজুল ইসলামের নামে আটঘরিয়া থানায় ২০০০ সালের নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইন (সংশোধনী) (০৩) এর ৯ (১) ধারায় একটি মামলা দায়ের করেছেন।

আটঘরিয়া  থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আসিফ মোহম্মদ সিদ্দিকুল ইসলাম আরটিভি নিউজকে জানান, এ বিষয়ে একটি মামলা হয়েছে। আসামি মিরাজুল ইসলামকে গ্রেপ্তার করে জেল হাজতে পাঠানো হয়েছে।

জেবি

RTV Drama
RTVPLUS