smc
logo
  • ঢাকা শনিবার, ৩১ অক্টোবর ২০২০, ১৬ কার্তিক ১৪২৭

চাঁদপুর পৌরসভা নির্বাচন স্থগিত চেয়ে হাইকোর্টে করা রিট খারিজ

  চাঁদপুর প্রতিনিধি, আরটিভি নিউজ

|  ২১ সেপ্টেম্বর ২০২০, ১৪:০৩
High Court dismisses, writ petition seeking, rtv news
হাইকোর্ট
চাঁদপুর পৌরসভার নির্বাচন স্থগিত চেয়ে হাইকোর্টে করা রিট আবেদন খারিজ করে দিয়েছেন আদালত।

গতকাল রোববার শুনানি শেষে মহামান্য আদালত এ রায় দেন। এর আগে গেলো ১৩ সেপ্টেম্বর রোববার হাইকোর্টে বিচারপতি জেবিএম হাসানের কোর্টে এই রিট পিটিশন করেন পৌরসভার দুইজন নাগরিক।

রিট খারিজের তথ্যটি নিশ্চিত করেছেন আওয়ামী লীগের মেয়র প্রার্থী জেলা আওয়ামী লীগের শিক্ষা ও মানবসম্পদ বিষয়ক সম্পাদক অ্যাডভোকেট জিল্লুর রহমান জুয়েল।

তিনি আরও জানান, উচ্চ আদালতের যে বেঞ্চে রিট করা হয়েছিল ওই একই বেঞ্চ রিট খারিজ করে দিয়েছেন। গতকাল রোববার শুনানি শেষে আদালত খারিজ করে দেন বিচারপতি জেবিএম হাসান ও বিচারপতি মো. খায়রুল আলমের সমন্বয়ে গঠিত বেঞ্চ।  রোববার সন্ধ্যায় হাইকোর্টের সংশ্লিষ্ট আইনজীবী বিষয়টি নিশ্চিত করেছে। রিটকারী দুইজন হচ্ছেন, পৌরসভার বর্তমান মেয়র নাছির উদ্দিন আহমেদের ভাগনে মাহবুব আলম আখন্দ এবং মেয়রের ব্যক্তিগত কর্মকর্তার ভাই মো. হাসিবুল হাসান মুন্না।

এদিকে পুরানবাজার এলাকার মো. আবুল খায়ের মিজি নামের আরেক ব্যক্তি নতুন রিট দাখিল করেন। তিনিও করোনা পরিস্থিতির কথা উল্লেখ করে চাঁদপুর পৌরসভা নির্বাচন স্থগিত চেয়েছেন। তিনি  গতকাল রোববার বিচারপতি জেবিএম হাসান ও বিচারপতি মো. খায়রুল আলমের সমন্বয়ে গঠিত বেঞ্চে নতুন করে আরও একটি রিট করে চাঁদপুর পৌরসভা নির্বাচন স্থগিত চেয়েছেন।

গেলো তিন সেপ্টেম্বর চাঁদপুর পৌর নির্বাচনের পুনঃতফসিল ঘোষণা করে নির্বাচন কমিশন। ঘোষিত তফসিল অনুযায়ী ১৫ সেপ্টেম্বর ছিল জেলা রিটার্নিং অফিসারের কাছে মনোনয়নপত্র দাখিলের শেষ দিন। আর ১৭ সেপ্টেম্বর মনোনয়নপত্র যাচাই-বাছাইও শেষ হয়েছে। ২৪ সেপ্টেম্বর বৃহস্পতিবার মনোনয়ন প্রত্যাহারের শেষ দিন এবং ১০ অক্টোবর শনিবার ভোটগ্রহণ।

চাঁদপুর পৌরসভা নির্বাচনে মেয়র পদে তিনজন প্রার্থী হয়েছেন। তারা হলেন, আওয়ামী লীগ মনোনীত নৌকা প্রতীকের প্রার্থী অ্যাডভোকেট জিল্লুর রহমান জুয়েল, বিএনপি মনোনীত ধানের শীষ প্রতীকের প্রার্থী আক্তার হোসেন মাঝি এবং বাংলাদেশ ইসলামী আন্দোলন মনোনীত হাতপাখা প্রতীকের প্রার্থী মামুনুর রশিদ বেলাল।

এদিকে আগামী ১০ আক্টোবর চাঁদপুর পৌরসভা নির্বাচন সুষ্ঠু ও শান্তিপূর্ণভাবে অনুষ্ঠিত করার লক্ষ্যে নির্বাচনী এলাকার ১৫টি ওয়ার্ডে নির্ধারিত ৫২টি কেন্দ্রে মোট ৩০৫টি কক্ষ ব্যবহারের জন্য চূড়ান্ত করা হচ্ছে। আর এসব কক্ষে ভোট দিতে আসবেন ভোটাররা। চাঁদপুর পৌরসভায় সর্বমোট  এক লাখ ১৬ হাজার ৪৮৭ জন ভোটার।

চাঁদপুর জেলা নির্বাচন অফিসার মোহাম্মদ তোফায়েল হোসেন জানান, এই নির্বাচনে ১৫টি ওয়ার্ডে নির্ধারিত ৫২টি কেন্দ্রে মোট ৩০৫টি কক্ষ ব্যবহারের জন্য চূড়ান্ত করা হয়েছে। ৫২ কেন্দ্রে ৫২ জন প্রিজাইডিং অফিসার, ৩০৫টি কক্ষে ৩০৫ জন সহকারী প্রিজাইডিং অফিসার এবং কক্ষ প্রতি দুইজন পোলিং অফিসার অর্থাৎ ৩০৫ কক্ষে মোট  ৬১০ জন পোলিং অফিসার সুষ্ঠু নির্বাচন উপহার দিতে দায়িত্ব পালন করবেন। 

এই নির্বাচন ইলেক্ট্রনিক ভোটিং মেশিন (ইভিএম)-এ হচ্ছে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন জেলা নির্বাচন অফিসার মোহাম্মদ তোফায়েল হোসেন।

জেবি

RTVPLUS
bangal
corona
দেশ আক্রান্ত সুস্থ মৃত
বাংলাদেশ৪০৩০৭৯ ৩১৯৭৩৩ ৫৮৬১
বিশ্ব ৪,৪৩,৫৭,৬৭১ ৩,২৫,০৫,১৫৫ ১১,৭৩,৮০৮
  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়
  • দেশজুড়ে এর সর্বশেষ
  • দেশজুড়ে এর পাঠক প্রিয়