logo
  • ঢাকা সোমবার, ২৭ জানুয়ারি ২০২০, ১৪ মাঘ ১৪২৭

‘জয় বাংলা’কে সর্বস্তরে জাতীয় স্লোগান হিসেবে চায় হাইকোর্ট

আরটিভি অনলাইন রিপোর্ট
|  ১০ ডিসেম্বর ২০১৯, ১৫:১০ | আপডেট : ১০ ডিসেম্বর ২০১৯, ১৯:৫৭
জয় বাংলা জাতীয় স্লোগান হাইকোর্ট
একাত্তরে মহান মুক্তিযুদ্ধের সময় রণাঙ্গণে উজ্জীবিত করা ও অনুপ্রেরণা দেয়া ‘জয় বাংলা’কে সর্বস্তরে জাতীয় স্লোগান হিসেবে ব্যবহার করা উচিত বলে অভিমত দিয়েছেন হাইকোর্ট। 

এ সংক্রান্ত এক রিট আবেদনের শুনানি নিয়ে মঙ্গলবার (১০ ডিসেম্বর) বিচারপতি এফ আর এম নাজমুল আহসান ও বিচারপতি কে এম কামরুল কাদেরের সমন্বয়ে গঠিত হাইকোর্ট বেঞ্চ অভিমত দেন।

রুলে মন্ত্রিপরিষদ সচিব, আইন সচিব ও শিক্ষা সচিবকে বিবাদী করা হয় এবং পরবর্তী ৭২ ঘণ্টার মধ্যে তাদেরকে রুলের জবাব দিতে বলেন আদালত।

আদালত বলেছেন, ‘আগামী ১৪ জানুয়ারি এ বিষয়ে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত জানানো হবে।’

তার আগে ১৬ ডিসেম্বরকে সামনে রেখে ‘জয় বাংলা’কে জাতীয় স্লোগান হিসেবে ব্যবহারের মৌখিক অভিমত দেন আদালত। এদিন আদালতে রিটের পক্ষে শুনানি করেন আইনজীবী ইউসুফ হোসেন হুমায়ুন। রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন অ্যাটর্নি জেনারেল মাহবুবে আলম।

এসময় উপস্থিত ছিলেন ব্যারিস্টার শফিক আহমেদ, আব্দুল মতিন খসরু ও সুপ্রিম কোর্ট আইনজীবী সমিতির (বার) সভাপতি এ এম আমিন উদ্দিন।

‘জয় বাংলা’কে জাতীয় স্লোগানের নির্দেশনা চেয়ে গেল ৪ ডিসেম্বর হাইকোর্টে একটি রিট আবেদন করেন সুপ্রিম কোর্ট আইনজীবী সমিতির সম্পাদক ড. বশির আহমেদ। ওইদিনই বিচারপতি এফ আর এম নাজমুল আহসান ও বিচারপতি কে এম কামরুল কাদেরের বেঞ্চে রিটের শুনানি হয়।

রিট শুনানির এক পর্যায়ে ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল ব্যারিস্টার আব্দুল্লাহ আল মাহমুদ বাসার আদালতকে বলেন, ‘একাত্তরে মুক্তিযুদ্ধকালে ‘জয় বাংলা’হয়ে উঠেছিল আমাদের মুক্তির আন্দোলনের প্রধান স্লোগান।’তখন আদালত বলেন, ‘মুক্তিযুদ্ধে সবার স্লোগান ছিল ‘জয় বাংলা’। এছাড়া পাকিস্তানেও অনেক কবি, সাহিত্যিক, বুদ্ধিজীবী মুক্তিযুদ্ধের পক্ষ নিয়ে ‘জয় বাংলা’স্লোগান দিয়েছেন। আমাদের মুক্তিযোদ্ধারা পাকিস্তানি হানাদারদের গুলি বুকে নিয়েও ‘জয় বাংলা’স্লোগান দিয়েছেন। রিট শুনানির পর ‘জয় বাংলা’কেন জাতীয় স্লোগান হিসেবে ঘোষণা করা হবে না- তা জানতে চেয়ে গেল ৪ ডিসেম্বরই রুল জারি করেন হাইকোর্ট।

পি

  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়
  • আইন-বিচার এর সর্বশেষ
  • আইন-বিচার এর পাঠক প্রিয়