Mir cement
logo
  • ঢাকা শনিবার, ১৮ সেপ্টেম্বর ২০২১, ৩ আশ্বিন ১৪২৮

রিমান্ড শেষে ভারতের কারাগারে ই-অরেঞ্জ'র সোহেল রানা

রিমান্ড শেষে ভারতের কারাগারে ই-অরেঞ্জ'র সোহেল রানা
সোহেল রানা

পালিয়ে ভারতে গিয়ে ধরা পড়া বনানী থানার বরখাস্ত পরিদর্শক শেখ সোহেল রানাকে পুলিশ রিমান্ড শেষে আগামী ২২ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত জেল হেফাজতে থাকার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

বুধবার (৮ সেপ্টেম্বর) সোহেল রানাকে সাতদিনের রিমান্ড শেষে কোচ বিহার জেলার মেখলিগঞ্জের স্থানীয় নিম্ন আদালতে তোলা হলে বিচারক তাকে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দেন।

আসামিপক্ষের আইনজীবী তপন রায় বলেন, সোহেল রানাকে জেল হাজতে পাঠানো হয়েছে। ২২ সেপ্টেম্বর তাকে আবার আদালতে তোলার নির্দেশ দেয়া হয়েছে। সে পর্যন্ত উনি জেল হেফাজতে থাকবেন। সোহেল রানার শারীরিক অবস্থা ভালো নয়। আমরা আবেদন করেছি, জেলে থাকা অবস্থায় যেন ওনার ট্রিটমেন্ট করা হয়। আদালত আমাদের আবেদন মঞ্জুর করেছেন।

সোহেল রানার বিরুদ্ধে ই-অরেঞ্জ নামে অনলাইন মার্কেট প্লেসের সঙ্গে যোজসাজশ থাকার অভিযোগ রয়েছে। প্রতারণার মামলায় ইতোমধ্যে গ্রেপ্তার করা হয়েছে প্রতিষ্ঠানটির মালিককে।

এর আগে শুক্রবার (৩ সেপ্টেম্বর) অবৈধভাবে ভারতে প্রবেশের অভিযোগে পশ্চিমবঙ্গের কোচবিহার জেলার চ্যাংরাবান্ধা সীমান্ত থেকে সোহেল রানাকে আটক করে ভারতীয় সীমান্তরক্ষী বাহিনীর (বিএসএফ) সদস্যরা।

সোহেল রানা রাজধানীর বনানী থানার পরিদর্শক (তদন্ত) হিসেবে কর্মরত ছিলেন। তার বোন ও ভগ্নিপতি ই-কমার্স প্রতিষ্ঠান ‘ই-অরেঞ্জ’ পরিচালনা করতেন। প্রতিষ্ঠানটির বিরুদ্ধে গ্রাহকের ১ হাজার ১০০ কোটি টাকা আত্মসাতের অভিযোগ রয়েছে। গ্রাহকের টাকা আত্মসাতের অভিযোগে সোহেলের নামও এসেছে।

এ ঘটনায় শনিবার (৪ সেপ্টেম্বর) বনানী থানার পরিদর্শক (তদন্ত) সোহেল রানাসহ ১০ জনের বিরুদ্ধে মামলা করা হয়।

এমএন

মন্তব্য করুন

RTV Drama
RTVPLUS