Mir cement
logo
  • ঢাকা মঙ্গলবার, ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১৩ আশ্বিন ১৪২৮

গৃহবধূকে হাতুড়িপেটা করে হত্যার ঘটনার রহস্য উন্মোচন

Revealing the mystery of the murder of the housewife by beating her with a hammer
ফাইল ছবি

মায়ের সামনে দিপালী বেগম (৩৫) নামে এক গৃহবধূকে হাতুড়িপেটা করে হত্যার রহস্য উন্মোচন করেছে পুলিশের অপরাধ তদন্ত বিভাগ (সিআইডি)। যে ঘটনায় নিহতের স্বামী রকিবুল গাজীকে (৪০) গ্রেপ্তার করা হয়েছে। আজ বুধবার (৮ সেপ্টেম্বর) দুপুরে রাজধানীর মালীবাগে সিআইডি প্রধান কার্যালয়ে সংবাদ সম্মেলনে এ বিষয়ে বিস্তারিত জানান সিআইডির বিশেষ পুলিশ সুপার (এসএসপি) মুক্তা ধর।

সিআইডি জানায়, প্রায় ৬ বছর আগে নড়াইলে কালিয়া থানা এলাকার বাসিন্দা রকিবুল গাজীর সঙ্গে বিয়ে হয় দিপালী বেগমের।

বিয়ের সময় যৌতুক হিসেবে শ্বশুরবাড়ি থেকে ৫ লাখ চাকা নেন রকিবুল। পরবর্তিতে ব্যবসার জন্য আরও ১০ লাখ টাকা নেন। সম্প্রতি আরও ৪ লাখ টাকা চেয়ে পারিবারিক কলহের জেরে শাশুড়ির সামনেই নিজের স্ত্রীকে হাতুড়িপেটা করে হত্যা করেন রকিবুল।

তিনি জানান, ৬ বছর আগে ভিকটিম দিপালীর সঙ্গে রকিবুলের বিয়ে হয়। বিয়ের সময় যৌতুক হিসেবে নগদ ৫ লাখ টাকা নেয়। কিছুদিন পর আবার ১০ লাখ টাকা দাবি করে, কিন্তু ভিকটিমের পরিবারের তা দিতে অস্বীকার করে। এরপর থেকে ভিকটিমের ওপর নির্যাতনে বাধ্য হয়ে ভিকটিমের মা বসতবাড়ি বিক্রি করে ১০ লাখ টাকা দেন।

এই টাকা দিয়ে রকিবুল বাড়ি, ফার্নিচারের দোকান, কাঠের ডিজাইন করার মেশিন কেনেন। এরপর সে আবার ৪ লাখ টাকা দাবি করে স্ত্রীর ওপর পুনরায় নির্যাতন শুরু করে। ভিকটিমের মা বিষয়টি নিষ্পত্তির জন্য মেয়ের বাড়িতে আসেন। এ নিয়ে কলহের জেরে ০২ সেপ্টেম্বর দুপুরে মায়ের সামনে হাতুড়ি দিয়ে দিপালীকে মাথায় আঘাত করলে মাথার খুলি ফেটে মগজ বের হয়ে যায়। আশেপাশের মানুষ চিকিৎসার জন্য পল্লী চিকিৎসককে ডেকে আনলে ভিকটিমকেকে মৃত ঘোষণা করেন।

সিআইডির এই কর্মকর্তা বলেন, এই চাঞ্চল্যকর ঘটনায় দায়েরকৃত মামলাটি তদন্তের ধারাবাহিকতায় সাভারের ধামসোনা এলাকা থেকে পলাতক আসামি রকিবুল গাজীকে গ্রেপ্তার করা হয়। রকিবুল প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে হত্যাকাণ্ডের দায় স্বীকার করেছেন।

কেএফ

মন্তব্য করুন

RTV Drama
RTVPLUS