Mir cement
logo
  • ঢাকা রোববার, ২০ জুন ২০২১, ৬ আষাঢ় ১৪২৮

শঙ্কটাপন্ন এক দগ্ধ নারীর সম্পর্ক ও পরিচয় নিয়ে রহস্যজট

Mystery about the relationship and identity of a skeptical burnt woman
ফাইল ছবি

রাজধানীর মিরপুরে মধ্যরাতে আগুনে দগ্ধ হয়ে হাসপাতালে শঙ্কটাপন্ন অবস্থায় চিকিৎসাধীন রয়েছেন এক নারী। তবে নারীর নাম জানা গেলেও, তাকে যিনি হাসপাতালে নিয়ে এসেছেন তার সঙ্গে ওই নারীর পরিচয় নিয়ে রহস্য তৈরি হয়েছে।

এদিকে দগ্ধ নারীর পরিবার বলছে- ‘গত ২০ দিন যাবত তার কোন খোঁজ পাওয়া যাচ্ছিল না।’ অন্যদিকে ওই নারীকে যে ব্যক্তি হাসপাতালে নিয়ে এসেছিলেন তিনি দাবি করছেন- ‘ওই নারী সম্পর্কে তার স্ত্রী হয়।’

জানা গেছে, দগ্ধ নারীর নাম মাহমুদা সিহাবুম মুবিন মৌ (৩০)। তাকে রোববার (৬ জুন) রাতে শেখ হাসিনা জাতীয় বার্ন ও প্লাস্টিক সার্জারি ইন্সটিটিউটে ভর্তি করা হয়েছে।

ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ (পরিদর্শক) মো. বাচ্চু মিয়া চিকিৎসকের বরাত দিয়ে বলেন, মাহমুদার শরীরের ৪৬ শতাংশ পুড়ে গেছে। তার অবস্থা শঙ্কটাপন্ন বলে জানিয়েছেন চিকিৎসকেরা। যে কারণে তাকে হাইডিপেন্ডেন্সি ইউনিটে (এইচডিইউ) চিকিৎসা দেয়া হচ্ছে।

পুলিশ পরিদর্শক বাচ্চু মিয়া আরও জানান, ‘হাইউম’ নাম পরিচয় দেয়া এক ব্যক্তি তাকে দগ্ধ অবস্থায় হাসপাতালে ভর্তি করিয়েছেন। হাইউম জানিয়েছেন, মিরপুরের কাজীপাড়া এলাকার বাসায় এ ঘটনা ঘটেছে। হাইউম নামের ওই ব্যক্তির সঙ্গে ফোনে যোগাযোগ করা হলে তিনি নিজেকে ওই নারীর স্বামী বলে পরিচয় দেন। তবে কিভাবে মাহমুদা দগ্ধ হয়েছেন তিনি সেটি বলেননি। হাইউম একটি বেসরকারি টেলিভিশন চ্যানেলে কাজ করেন বলে জানান।

এদিকে খবর পেয়ে মাহমুদার স্বজনরা হাসপাতালে ছুটে যান। দগ্ধ মৌয়ের মা সালমা বেগম বলেন, ‘গত ২০ দিন ধরে মেয়ের কোনো খোঁজ-খবর পাচ্ছিলাম না। রাতে তার দগ্ধ হওয়ার সংবাদ পাই।’

মেয়েটির স্বজনরা আসার পর হাসপাতালের জরুরি বিভাগে হৈচৈ শুরু হয়। খবর পেয়ে শাহবাগ থানার এসআই গোলাম হোসেন সেখানে উপস্থিত হন। পরে এসআই গোলাম হোসেন বলেন, ‘এক রোগীকে ভর্তি নিয়ে হৈচৈ হচ্ছিল শুনে সেখানে গিয়েছি। কিন্তু ওই রোগী সম্পর্কে তেমন কিছুই জানতে পারিনি।’

কেএফ/পি

RTV Drama
RTVPLUS