logo
  • ঢাকা মঙ্গলবার, ৩১ মার্চ ২০২০, ১৭ চৈত্র ১৪২৬

করোনা আপডেট

  •     স্পেনে গত ২৪ ঘণ্টায় মৃত্যু ৮৪৯ জন, মোট মৃত্যু ৮১৮৯ জন, আক্রান্ত ৯৪৪১৭ জন: এএফপি। সৌদিতে গত ২৪ ঘণ্টায় আরো ১১০ আক্রান্ত, মোট আক্রান্তের সংখ্যা ১৫৬৩ জন: সৌদি গেজেট। এই প্রথম কাতারে এক বাংলাদেশির মৃত্যু: কাতার স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়। গত ২৪ ঘণ্টায় বাংলাদেশে নতুন আক্রান্ত ২, মোট আক্রান্ত ৫১ জন, সুস্থ ৬ জন: আইইডিসিআর। যুক্তরাষ্ট্রে ২৪ ঘণ্টায় মৃত্যু ৫৬৫, আক্রান্ত ১৯৯৮৮, মোট মৃত্যু ৩০৪০, আক্রান্ত এক লাখ ৬৪২৭৪ জন, এর মধ্যে সবচেয়ে বেশি ২৭৯ জনের মৃত্যু হয়েছে নিউইয়র্ক সিটিতে। গত ২৪ ঘণ্টায় স্পেনে মৃত্যু ৯১৩, জীবন-মৃত্যুর সন্ধিক্ষণে ৫২৩১ জন, আক্রান্ত ৭৮৪৬, সবচেয়ে বেশি মৃত্যু ইতালিতে ১১ হাজার ৫৯১, তারপর স্পেনে ৭৭১৬, ফ্রান্স ৩১৮৬: জনস হপকিন্স ইউনিভার্সিটি।

ভারতীয় সাংবাদিক করণ থাপারের বিশ্লেষণ

ভারতকে যেভাবে পেছনে ফেলছে বাংলাদেশ

​​​​​​​আন্তর্জাতিক ডেস্ক, আরটিভি অনলাইন
|  ১৭ ফেব্রুয়ারি ২০২০, ১৩:০০ | আপডেট : ১৭ ফেব্রুয়ারি ২০২০, ১৬:৪৪
How Bangladesh is outperforming India writes Karan Thapar
ছবি সংগৃহীত

ভারতের স্বরাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী জি কিষাণ রেড্ডি গত সপ্তাহে বলেছিলেন, নাগরিকত্ব পেলে বাংলাদেশের অর্ধেক মানুষ ভারত চলে আসবে। কিন্তু বাংলাদেশ যে ভারতের চেয়ে কতটা এগিয়েছে তা সম্পর্কে রেড্ডি অজ্ঞ বলে মন্তব্য করেছেন দেশটির সিনিয়র সাংবাদিক করণ থাপার। দ্য হিন্দুস্তান টাইমসে নিজের এক মতামত কলামে এমনটাই লিখেছেন।

তিনি লিখেছেন, সত্যি বলতে, আমি হেনরি কিসিঞ্জারকে দোষ দিই। ১৯৭০-র দশকে তিনি বাংলাদেশকে ‘একটি আন্তর্জাতিক তলাবিহীন ঝুড়ি’ বলে অভিহিত করেছিলেন। সেই সময়ে, সন্দেহ নেই এটা সত্য ছিল। টেলিভিশনে প্রায়ই বাংলাদেশে ধ্বংসাত্মক বন্যার চিত্র ফুটে উঠতো। তাই সেটা বাংলাদেশের নামের সঙ্গে সেঁটে যায়।

কিন্তু আজকের বাংলাদেশ একটি ভিন্ন দেশ। বিশ্ব হয়তো তাদের মত পাল্টাতে কিছু ধীর হতে পারে- যদিও আমি এটার ব্যাপারে অতটা নিশ্চিত নই- কিন্তু ভারতের এখনও সেই ১৯৭০-র দশকে আটকে থাকার কোনও অধিকার নেই। তবুও জুনিয়র স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী গত সপ্তাহে ঠিক এমন মনোভাবই প্রকাশ করেছেন।

ভারতের স্বরাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী জি কিষাণ রেড্ডি বলেছেন, যদি ভারতের নাগরিকত্বের প্রতিশ্রুতি দেয়া হয়, তাহলে বাংলাদেশ অর্ধেক খালি হয়ে যাবে। নাগরিকত্ব পেলে বাংলাদেশের অর্ধেক মানুষ ভারত চলে আসবে।

করণ থাপার লিখেছেন, রেড্ডির এই মনোভাব কূটনৈতিক শিষ্টাচারবহির্ভূত এবং আক্রমণাত্মক। তিনি জানেনই না যে অধিকাংশ সূচকে না হলেও জীবনযাত্রার মানসহ অনেক সূচকে ভারতের চেয়ে বাংলাদেশ এগিয়ে রয়েছে।

প্রথমত, বাংলাদেশের প্রবৃদ্ধির হার। আমাদের প্রবৃদ্ধি যেখানে ৫ শতাংশের নিচে নেমে গেছে, সেখানে বাংলাদেশ এগিয়ে যাচ্ছে ৮ শতাংশের দিকে। দ্বিতীয়ত, ভারত যখন ১৫ শতাংশ করপোরেট ট্যাক্স দিয়ে চীনকে বিনিয়োগে আকৃষ্ট করার চেষ্টা করছেন, তখন বাস্তবতা হলো চীনের বিনিয়োগ যে দুটি দেশে যাচ্ছে, বাংলাদেশ তার একটি। ফলে লন্ডন কিংবা নিউ ইয়র্কের রাস্তাগুলো এখন বাংলাদেশের তৈরি পোশাকে ভরে গেছে। কিন্তু সেখানে লুধিয়ানা কিংবা তিরুপুরের তৈরি পোশাক খুবই কম। তাই ২০১৯ অর্থবছরে বাংলাদেশের পণ্য রপ্তানি ডাবল ডিজিটে পৌঁছেছে আর ভারতের দ্রুত হ্রাস পেয়েছে।

ভারতীয় এই সাংবাদিক আরও লিখেছেন, যেসব মানদণ্ড বাংলাদেশকে ভারতের চেয়ে আলাদা করেছে, অর্থনীতি সেগুলোর একটি। পরোক্ষভাবে বলতে গেলে, বাংলাদেশের জীবনযাত্রা ভারতের চেয়ে অনেক বেশি আকর্ষণীয়।

সংখ্যার দিকে তাকালেই দেখা স্পষ্ট হয়ে যায়। করণ থাপার লিখেছেন, বাংলাদেশে পুরুষ ও নারীর গড় আয়ু যথাক্রমে ৭১ ও ৭৪ বছর। অন্যদিকে ভারতে সেটা যথাক্রমে ৬৭ ও ৭০ বছর। আপনি যখন এসব পার্থক্য বিশ্লেষণ করবেন, তখন আরও উল্লেখযোগ্য পার্থক্য ধরা পড়বে।

প্রথমেই শিশু মৃত্যুহারের কথা ধরা যাক। ভারতে শিশু মৃত্যুর হার প্রতি হাজারে ২২.৭৩। কিন্তু বাংলাদেশে ১৭.১২। ভারতে নবজাতকের মৃত্যুর হার প্রতি হাজারে ২৯.৯৪, বাংলাদেশে ২৫.১৪। ভারতে পাঁচ বছরের কম বয়সী শিশুর মৃত্যুর হার প্রতি হাজারে ৩৮.৬৯, আর বাংলাদেশে ৩০.১৬।

এরপর আসা যাক নারীদের বিষয়ে। বাংলাদেশে ১৫ বছরের বেশি বয়সী নারীদের মধ্যে শিক্ষার হার ৭১ শতাংশ; ভারতের ৬৬ শতাংশ। বাংলাদেশে কর্মক্ষেত্রে নারীর অংশগ্রহণ ৩০ শতাংশ এবং এটা বাড়ছে; আর ভারতে এই হার ২৩ শতাংশ এবং গত এক দশকে তা ৮ শতাংশ কমেছে।

সব শেষে ছেলে-মেয়েদের হাইস্কুলে ভর্তির বিষয়ে আস যাক, যা দেখে ভবিষ্যতের উন্নয়নের ধারণা পাওয়া যায়। এটি ভারতে ০.৯৪, আর বাংলাদেশে ১.১৪। তাই সীমান্তের ওপারে (বাংলাদেশে) পরিস্থিতি শুধু ভালোই নয় বরং আরও ভালো হবে। আর আমরা পিছিয়ে পড়ছি।

তাই বাংলাদেশের পররাষ্ট্রমন্ত্রী একে আব্দুল মোমেন যখন বলেন যে, কিছু ভারতীয় নাগরিক অর্থনৈতিক কারণে বাংলাদেশে প্রবেশ করছে, তখন সেটা সত্য বলেই মনে হয়। মানুষজন তাদের জীবনমান উন্নয়নের জন্য অভিবাসন করে এবং বাংলাদেশে জীবনমান যথেষ্ট উন্নত। তাই যদি কোনও ভারতীয় মুসলিম মাংস বহনের অভিযোগ মার খাওয়ার ভয়, কোনও হিন্দুর প্রেমে পড়লে লাভ-জিহাদে অভিযুক্ত হওয়ার ভয় বা নাগরিকত্ব হারানোর ভয় থাকে, তাহলে তিনি খুব সহজেই সীমান্ত পাড়ি দেয়ার জন্য প্রলুব্ধ হতে পারেন।

করণ থাপার লিখেছেন, যে পরিসংখ্যান আমি তুলে ধরলাম, তাতে ভারতের বৈধ নাগরিক হয়ে থাকার চেয়ে বাংলাদেশে উইপোকা হয়ে থাকা বেশি আকর্ষণীয়। যদি আমেরিকা আজ ঘোষণা দেয় যে তারা নাগরিকত্ব দেবে, তাহলে দেখা যাবে অর্ধেক ভারত খালি হয়ে গেছে। বলতে গেলে এর চেয়েই বেশি খালি হবে। আরেকটা বিষয়, যুক্তরাষ্ট্রের দরজা এখন বন্ধ থাকলেও আমাদের থামানো যাচ্ছে না।

এ/পি

corona
দেশ আক্রান্ত সুস্থ মৃত
বাংলাদেশ ৫১ ১৯
বিশ্ব ৮০৩৬৫০ ১৭২৭৭২ ৩৯০৩৩
  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়
  • বাংলাদেশ এর সর্বশেষ
  • বাংলাদেশ এর পাঠক প্রিয়