logo
  • ঢাকা শনিবার, ২২ ফেব্রুয়ারি ২০২০, ৯ ফাল্গুন ১৪২৬

নাগরিকত্ব পেলে ‘বাংলাদেশ অর্ধেক’ ফাঁকা হয়ে যাবে: ভারতীয় মন্ত্রী

আন্তর্জাতিক ডেস্ক, আরটিভি অনলাইন
|  ১০ ফেব্রুয়ারি ২০২০, ১৪:৫৮ | আপডেট : ১০ ফেব্রুয়ারি ২০২০, ১৫:০৩
জি কিষাণ রেড্ডি
ছবি সংগৃহীত
ভারতের কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী জি কিষাণ রেড্ডি রোববার বলেছেন, নাগরিকত্বের প্রতিশ্রুতি পেলে বাংলাদেশের অর্ধেক মানুষ সেদেশ ছেড়ে সীমান্ত পেরিয়ে ভারতে চলে আসবেন। হায়দরাবাদে সন্ত রবিদাস জয়ন্তী উপলক্ষে এক অনুষ্ঠানে এমন মন্তব্য করেন তিনি।

রেড্ডিকে উদ্ধৃত করে সংবাদ সংস্থা পিটিআই বলেছে, ভারতের নাগরিক হওয়ার সুযোগ পেলে তো অর্ধেক বাংলাদেশ ফাঁকা হয়ে যাবে। নাগরিকত্বের প্রতিশ্রুতি পেলে বাংলাদেশের অর্ধেক নাগরিক ভারতে চলে আসবেন। কে নেবে দায়িত্ব? কেসিআর (তেলেঙ্গানার মুখ্যমন্ত্রী কে চন্দ্রশেখর রাও)? নাকি রাহুল গান্ধী?

ভারতের কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী বলেন, তারা অনুপ্রবেশকারীদের জন্য নাগরিকত্ব চাইছেন। সিএএ-তে যদি ভারতের ১৩০ কোটি নাগরিকের বিরুদ্ধে একটি কথাও বলা হয়ে থাকে, তবে তার পর্যালোচনা করতে প্রস্তুত ভারত সরকার। কিন্তু পাকিস্তানি বা বাংলাদেশি মুসলমানদের জন্য নয়।

পাকিস্তান, আফগানিস্তান ও বাংলাদেশে নির্দিষ্ট কিছু নিপীড়িত গোষ্ঠীর কল্যাণার্থেই প্রণীত হয়েছে সিএএ। সে কথা আরও একবার জোর দিয়ে বলেন রেড্ডি। একই সঙ্গে তিনি দাবি করেন, কিছু রাজনৈতিক দল চাইছে যে সেসব দেশের মুসলমানদেরও নাগরিকত্ব দেয়া হোক।

আসাদুদ্দিন ওয়াইসির নেতৃত্বাধীন অল ইন্ডিয়া মজলিস-এ-ইত্তেহাদুল মুসলিমিন (এআইএমআইএম)-কে চন্দ্রশেখর রাওয়ের দল তেলেঙ্গানা রাষ্ট্র সমিতির (টিআরএস) ‘মিত্র দল’ বলেও বর্ণনা করেছেন রেড্ডি। তিনি অভিযোগ করে বলেন যে, ভোটব্যাংকের রাজনীতি করছে এআইএমআইএম।

রেড্ডি আরও বলেন, আমি মুখ্যমন্ত্রী কেসিআর-কে চ্যালেঞ্জ জানাচ্ছি, তিনি প্রমাণ করুন যে এই দেশের ১৩০ কোটি নাগরিকের একজনও নাগরিকত্ব সংশোধনী আইনের দ্বারা ক্ষতিগ্রস্ত হবেন। শরণার্থী ও অনুপ্রবেশকারীদের এক আসনে বসানো উচিত নয় বলেও মন্তব্য করেন রেড্ডি।

এ/পি

  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়
  • আন্তর্জাতিক এর সর্বশেষ
  • আন্তর্জাতিক এর পাঠক প্রিয়