logo
  • ঢাকা বুধবার, ০২ ডিসেম্বর ২০২০, ১৭ অগ্রহায়ণ ১৪২৭

পোশাক বিক্রিতে প্রতারণা করায় আড়ংকে সাড়ে ৩ লাখ টাকা জরিমানা

সাতশ টাকার পোশাক সাত দিনের ব্যবধানে প্রায় দ্বিগুণ দামে ১৩শ টাকায় বিক্রির অভিযোগে আড়ংয়ের উত্তরা শাখাকে সাড়ে তিন লাখ টাকা জরিমানা ও ২৪ ঘণ্টার জন্য বন্ধের নির্দেশ দিয়েছেন জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদফতরের ভ্রাম্যমাণ আদালত।

আজ সোমবার ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদফতরের উপপরিচালক মঞ্জুর মোহাম্মদ শাহরিয়ারের সার্বিক তত্ত্বাবধানে অভিযান পরিচালনা করেন অধিদফতরের সহকারী পরিচালক মো. আব্দুল জব্বার মণ্ডল।

এবিষয়ে শাহরিয়ার বলেন, মোহাম্মদ ইব্রাহিম নামে একজন ক্রেতা গত ২৫ মে আড়ংয়ের উত্তরা শাখা থেকে একটি পাঞ্জাবি ৭০০ টাকা দিয়ে কেনেন। একই পাঞ্জাবি ৩১ মে ১৩০০ টাকা দিয়ে কিনতে হয় তাকে। পরে তিনি ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদফতরে অভিযোগ করলে অভিযান চালানো হয়।

মঞ্জুর মোহাম্মদ শাহরিয়ার আরও বলেন, সাত দিনের ব্যবধানে ৭০০ টাকার পণ্য হয়ে গেল ১৩০০ টাকা। এটি আমরা তদারকি করতে এসেছি, তাদের এ বিষয়ে জিজ্ঞাসা করেছি । পণ্যগুলোর ট্যাগে কী ধরনের কটন, তাও উল্লেখ নেই। এই আউটলেটকে ২৪ ঘণ্টার জন্য আমরা বন্ধ রেখেছি ও সাড়ে তিন লাখ টাকা জরিমানা করেছি।

তিনি বলেন, আড়ং একটি ব্র্যান্ড। দেশি ভালো পণ্য বিক্রি করে বলে তাদের প্রতি ক্রেতাদের রয়েছে আস্থা ও সরল বিশ্বাস। এটি পুঁজি করে কৌশলে ক্রেতাদের ঠকাচ্ছে, যা ভোক্তা আইনপরিপন্থী।

উত্তরা আড়ং শাখার হিসাবরক্ষক আনিসুর রহমান জানান, অভিযোগ সত্য নয়। দুই পাঞ্জাবিতে দুই ধরনের কাপড় ছিল, যদিও দেখতে ছিল প্রায় একইরকম। আমাদের  ঊর্ধ্বতন  কর্মকর্তারা বিষয়টি দেখছেন।

সোমবার ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদফতরের অভিযানে আড়ংয়ের পাশাপাশি উত্তরায় আরও দুটি প্রতিষ্ঠানকে ৫০ হাজার টাকা করে মোট এক লাখ টাকা জরিমানা করা হয়েছে।

এমকে

RTVPLUS