• ঢাকা শুক্রবার, ১৪ ডিসেম্বর ২০১৮, ৩০ অগ্রহায়ণ ১৪২৬

অজানা কারণে বন্ধ রাস্তার কাজ

শাহাবুদ্দিন শিহাব, আরটিভি
|  ১২ নভেম্বর ২০১৮, ০৯:৩৩ | আপডেট : ১২ নভেম্বর ২০১৮, ১০:০৮
রাজধানীর খিলগাঁও, মাদারটেকবাসীর চলাচলের গুরুত্বপূর্ণ রাস্তা তিতাস রোডটির অনেকদিন ধরেই বেহাল দশা। বছরের পর বছর ধরে এ পথে চলাচলকারীরা অসহনীয় দুর্ভোগ পোহালেও কর্তৃপক্ষের গা নেই। নগর উন্নয়নে সুষম নীতি অবলম্বনের দাবি করছেন নগরবিদেরা।

রাজধানীর রামপুরা থেকে নবীনবাগ, সিপাহীবাগ হয়ে মাদারটেক পর্যন্ত চার কিলোমিটার দীর্ঘ ব্যস্ত রোড ‘তিতাস’। এলাকার বেশিরভাগ মানুষ- মধ্যবিত্ত, নিম্নবিত্ত ও শ্রমজীবী শ্রেণির। অল্প সময়ে গন্তব্যে যাওয়ার একমাত্র সংযোগ সড়ক বলে প্রতিদিন এখান দিয়ে অসংখ্য গাড়ি ও হাজার হাজার মানুষ চলাচল করেন। এলাকাবাসীর অনেক দেন-দরবার ও চেষ্টা-তদবিরের পর রাস্তার এক-তৃতীয়াংশের কাজ হলেও, অজানা কারণে বাকি কাজ বন্ধ হয়ে আছে। সড়কের বেহাল দশার প্রভাব পড়ছে শিক্ষার্থীদের লেখাপড়ায়ও। 

western অভিভাবকরা বলছেন, বৃষ্টিতে অনেক বেশি পানি জমে। বড়দের চলতে কষ্ট হয়। মাঝে মাঝে রিকশা উল্টে যায়। বাচ্চারা স্কুলে যেতে পারে না। এভাবেই বাচ্চাদের লেখাপড়ায় ব্যাঘাত ঘটে।   
ভাঙা রাস্তার কারণে, ব্যবসা-বাণিজ্যও বন্ধ হওয়ার উপক্রম। 

ব্যবসায়ীরা বলছেন, পুঁজি শেষ হয়ে যাচ্ছে। ঠিক মত ব্যবসা-বাণিজ্য না হওয়ায় না খেয়ে মরার অবস্থা।  
নর্দমা পরিষ্কার হয় না বলে বৃষ্টি হলে এখানে পানি জমে যায়। শুকনা মৌসুমেও সে ক্ষত চিহ্ন চোখে পড়ে। এ বিষয়ে কথা বলতে ওয়ার্ড কাউন্সিলরের সঙ্গে দেখা করতে গিয়ে তাকে পাওয়া যায়নি। 

তবে এ বিষয়ে বাংলাদেশ ইনস্টিটিউট অব প্ল্যানার্স এর সাধারণ সম্পাদক আদিল মুহাম্মদ খান বলেন, সুষম উন্নয়নের জন্য রাজধানীর অবহেলিত এলাকাগুলোর দিকে সরকারকে বেশি মনোযোগী হতে হবে।

তিনি বলেন, আমরা যারা স্বল্প আয়ের জনগোষ্ঠী আছি সেগুলোর কোন কোন অঞ্চলের রাস্তাঘাটগুলো কতটুকু ভাঙা আছে তার একটা তালিকা তৈরি করা। সারা বছর এনঅয়াই যখন অডিট করেন সেই অডিটেও এসব এলাকার উন্নয়নের চিত্র তুলে ধরতে হবে। নাহলে এই স্থানিক বৈষম্য দিন দিন বেড়ে যাচ্ছে। এতে জনমানুষের মনে জনরোষ তৈরি হচ্ছে।  

এতদিন ধরে ঝুলে থাকা তিতাস রোডের সংস্কারের বিষয়টি নজরে আসার পর শিগগির সমস্যা সমাধানের প্রতিশ্রুতি দিলেন দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা মুস্তাফিজুর রহমান। তিনি বলেন, একটা ভাঙা সংস্কার ও মেরামতের প্রকল্প নেয়া হয়েছে। সেটার মধ্যে এই সড়ক অন্তর্ভুক্ত করা হবে। এ সড়ক ছাড়াও আমরা আরও কয়েকটি সড়ক সংস্কার করতে পারব।

এলাকাবাসী প্রত্যাশা করছেন কেবল কথার কথা নয়, জরুরি ভিত্তিতে প্রতিশ্রুতি বাস্তবায়ন হবে। 

জিএ/এসএস

  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়