• ঢাকা বুধবার, ২৪ জুলাই ২০২৪, ৯ শ্রাবণ ১৪৩১
logo

যে দুই কারণে খুন হয়েছেন এমপি আনার!

আরটিভি নিউজ

  ২৪ মে ২০২৪, ১০:৪২
ফাইল ছবি

ঝিনাইদহ-৪ আসনের সংসদ সদস্য আনোয়ারুল আজিম আনার ভারতের কলকাতায় গিয়ে পরিকল্পিত ও নৃশংস হত্যাকাণ্ডের শিকার হয়েছেন। রহস্যে ঘেরা তার এ হত্যাকাণ্ডের পেছনে ২টি কারণ খুঁজে পেয়েছেন তদন্ত কর্মকর্তারা।

বৃহস্পতিবার (২৩ মে) বিকেলে ভারতীয় পুলিশের চার সদস্য ঢাকায় এসে পৌঁছান। ঢাকায় ভারতীয় দূতাবাস হয়ে তারা ঢাকা মহানগর পুলিশের (ডিএমপি) সদর দপ্তরে যান এবং সেখানে বৈঠক করেন। দুই দেশের পুলিশের বৈঠকে বিষয়গুলো সামনে আসে।

শুক্রবার এমপি আনারের হত্যায় জড়িত আসামিদের জিজ্ঞাসাবাদের সময় থাকা একাধিক পুলিশ কর্মকর্তা এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন। মোটিভ দুইটি হচ্ছে- চরমপন্থীদের পোষা রাগ, স্বর্ণ চোরাচালানের আধিপত্য নেওয়া।

এমপি আনোয়ারুল আজিম ওই অঞ্চলের চরমপন্থীদের বিভিন্ন সময় ক্রসফায়ারসহ নানাভাবে ‘শায়েস্তা’ করিয়েছেন। এমপির ওপর পোষা রাগ ছিল চরমপন্থীদের। আর এমপি আনার হত্যার প্রধান খুনি শিমুল ভূঁইয়া ওরফে আমানুল্লাহ চরমপন্থী সংগঠন পূর্ব বাংলার কমিউনিস্ট পার্টির (এমএল-জনযুদ্ধ) অন্যতম শীর্ষ নেতা।

এ ছাড়া কলকাতায় স্বর্ণ চোরাচালানের আধিপত্য ছিল সংসদ সদস্য আনোয়ারুল আজিমের। তাকে সরিয়ে না দিলে স্বর্ণ চোরাচালানের নিয়ন্ত্রণ নিতে পারছিলেন না শাহীন। তাই কলকাতায় স্বর্ণ চোরাচালানের আধিপত্য নিতেই এমপিকে হত্যা করায় শাহীন। কলকাতার বড় একটা স্বর্ণ পার্টির সঙ্গে মিটিং করানো হবে এই কথা বলে শিমুল, এমপি আনারকে কলকাতা নিয়ে যায়। একজনের কাছে অনেক স্বর্ণের বিস্কুট আছে, একথা বললেই এমপি আনার সেখানে যেতে রাজি হন।

অন্যদিকে, শাহীন এমপি আনারের কাছে ৫০ কোটি টাকা পেত। সেই টাকা সরকার দলীয় এমপি আনার দিচ্ছিলেন না।

মন্তব্য করুন

  • বাংলাদেশ এর পাঠক প্রিয়
আরও পড়ুন
আসালাঙ্কাকে নেতৃত্ব দিয়ে ভারত সিরিজের দল ঘোষণা শ্রীলঙ্কার
নাশকতাকারীদের তথ্য দিয়ে সহযোগিতার আহ্বান পুলিশ সদর দপ্তরের
দেশজুড়ে সাঁড়াশি অভিযানে গ্রেপ্তার ২৭৪৭
চট্টগ্রামে পুলিশের সঙ্গে আন্দোলনকারীদের সংঘর্ষ, নিহত ২