Mir cement
logo
  • ঢাকা শনিবার, ১৮ সেপ্টেম্বর ২০২১, ৩ আশ্বিন ১৪২৮

পরীসহ নারীর চরিত্র হননের প্রতিবেদন-ভিডিও বন্ধে লিগ্যাল নোটিশ

পরীসহ নারীর চরিত্র হননের প্রতিবেদন-ভিডিও বন্ধে লিগ্যাল নোটিশ

ঢাকাই সিনেমার আলোচিত চিত্রনায়িকা পরীমণি, ডা. সাবরিনা আরিফ চৌধুরী, মোসারাত জাহান মুনিয়াসহ বিভিন্ন ব্যক্তির- বিশেষ করে নারীর ব্যক্তিগত চরিত্র হনন করে ছবি, ভিডিও ও প্রতিবেদন প্রকাশের ওপর নিষেধাজ্ঞা চাওয়া হয়েছে। ইতোমধ্যে গণমাধ্যমসহ সব ধরনের প্রচার মাধ্যমে এসব প্রচার-প্রকাশ বন্ধের নির্দেশনা চেয়ে সরকারের তথ্য মন্ত্রণালয়ের সচিবসহ সংশ্লিষ্টদের প্রতি লিগ্যাল নোটিশ পাঠানো হয়েছে।

আজ বৃহস্পতিবার (৯ সেপ্টেম্বর) সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী অ্যাডভোকেট তাসমিয়া নুহাইয়া আহমেদ এই লিগ্যাল নোটিশ পাঠান। সেই নোটিশে আগামী পাঁচদিনের মধ্যে এ বিষয়ে পদক্ষেপ গ্রহণ করতে বলা হয়েছে। তা না হলে সংশ্লিষ্টদের বিরুদ্ধে আইনি পদক্ষেপ নেওয়া হবে বলেও উল্লেখ করা হয়েছে।

গণমাধ্যমে প্রকাশিত খবরের সূত্রে জানা যায়- রিটে ডাক ও টেলিযোগাযোগ সচিব, তথ্য সচিব এবং বাংলাদেশ টেলিযোগাযোগ নিয়ন্ত্রণ কমিশনের (বিটিআরসি) চেয়ারম্যানসহ সংশ্লিষ্টদের বিবাদী করা হয়েছে। একই সঙ্গে পরীমণি-এডিসি সাকলায়েনসহ যাদের নিয়ে প্রতিবেদন, ছবি, ভিডিও প্রকাশিত ও প্রচারিত হয়েছে তা অপসারণের নির্দেশনা চাওয়া হয়েছে।

লিগ্যাল নোটিশ পাঠানোর বিষয়ে আইনজীবী তাসমিয়া নুহিয়া আহমেদ গণমাধ্যমকে বলেন, আমরা দেখতে পাচ্ছি কিছু ব্যক্তিকে নির্দিষ্টভাবে টার্গেট করে প্রতিবেদন প্রকাশ হয়েছে। যেখানে মূলধারার গণমাধ্যমসহ বিভিন্ন সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছবি ও ভিডিও প্রকাশ হচ্ছে। এতে বিশেষ করে নারীদের চরিত্র টার্গেট করেই করা হচ্ছে।

এই আইনজীবী বলেন- সম্প্রতি চিত্রনায়িকা পরীমণি, ডা. সাবরিনা আরিফ চৌধুরী, কলেজছাত্রী মুনিয়াসহ অনেকের ব্যক্তিগত ভিডিও প্রকাশ হয়েছে, যা সম্পূর্ণ ব্যক্তিগত আক্রোশ থেকে এবং তাদের চরিত্র হরণ করার জন্যই করা হয়েছে। এ সংক্রান্ত বিভিন্ন প্রতিবেদন যুক্ত করেছি।

তিনি বলেন, পরীমণি মাদক মামলার আসামি। কিন্তু বিভিন্ন প্রচার মাধ্যমে তার ব্যক্তিগত জীবনের নানান ভিডিও প্রচার করা হচ্ছে। ডা. সাবরিনা আরিফ চৌধুরী কোভিড-১৯ এর জাল সনদ মামলায় অভিযুক্ত হওয়ার পর তার ব্যক্তিগত ছবি, ভিডিও প্রচার-প্রকাশ করা হয়েছে। এগুলো ব্যক্তির গোপনীয়তা রক্ষার অধিকার যেমন খর্ব করছে তেমনি এটা নারীর ক্ষমতায়নকে প্রশ্নবিদ্ধ করছে। এমনকি নারীর ক্ষমতায়নকে পেছনে টেনে ধরছে। সংবিধান ও আইন লঙ্ঘন করে এসব করা হলেও তা বন্ধে রাষ্ট্র বা সরকারের সংশ্লিষ্টরা কোনো পদক্ষেপই নিচ্ছে না। এ কারণে লিগ্যাল নোটিশ পাঠানো হয়েছে।

এনএস

মন্তব্য করুন

RTV Drama
RTVPLUS