• ঢাকা সোমবার, ২২ এপ্রিল ২০২৪, ৯ বৈশাখ ১৪৩১
logo

৪৫৫ রানের লিডে দিন শেষ করল শ্রীলঙ্কা

প্রকাশ : ০১ এপ্রিল ২০২৪, ১০:০৭ | আপডেট : ০১ এপ্রিল ২০২৪, ১৮:১২

বাংলাদেশ
ছবি- বিসিবি

সংক্ষিপ্ত স্কোর

শ্রীলঙ্কা দ্বিতীয় ইনিংস : ২৫ ওভারে ১০২/৬

ডি সিলভার পর মেন্ডিসও ব্যর্থ

১৭:০৫, এপ্রিল ১

এদিন ব্যাট হাতে আলো ছড়াতে পারেননি অধিনায়ক ডি সিলভা। ৭ বলে ১ রানে হাসানের চতুর্থ শিকার হন এই ডান হাতি ব্যাটার। এরপর ৯ রানে কামিন্দু মেন্ডিসকে আউট করেন খালেদ আহমেদ।

মাদুশকার পর চান্দিমালের বিদায়

১৬:৪৪, এপ্রিল ১

মাদুশকার বিদায়ের পর ৭ বলে ৯ রান করে আউট হন চান্দিমাল। এবারেও দলের উইকেট শিকারী হাসান। অভিষেক ম্যাচের পঞ্চম উইকেট শিকার করেন তিনি। দলীয় ৭২ রানে চার উইকেট হারিয়েছে লঙ্কানরা।

মাদুশকাকে ফেরালেন হাসান মাহমুদ

১৬: ৩৬, এপ্রিল ১

অ্যাঞ্জেলো ম্যাথিউসকে সঙ্গে নিয়ে লঙ্কান শিবিরে হাল ধরেন নিশান মাদুশকা। দুজনের ব্যাটে ভর করে দলীয় ফিফটি পূরণ করে লঙ্কানরা। ৪৫ বলে ৩৪ রান করে আউট হন মাদুশকা। হাসানের দ্বিতীয় শিকার হন তিনি।

কুশল মেন্ডিসও বোল্ড

১৫: ৩৬, এপ্রিল ১

করুনারত্নের পর ক্রিজে নেমেছিলেন কুশল মেন্ডিস। এবার ডানহাতি এই ব্যাটারও বোল্ড হয়ে প্যাভিলিয়নে ফিরেছেন। খালেদ আহমেদের অফ স্টাম্পের বাইরের বল টেনে খেলতে চেয়েছিলেন। ঠিকঠাক টাইমিং না হওয়ায় ২ রানে ফিরলেন এই ব্যাটার।

দ্বিতীয় ইনিংসে ৩ ওভারে ২ উইকেটে ১৫ রান শ্রীলঙ্কার।

করুনারত্নেকে হারাল শ্রীলঙ্কা

১৫: ১৬, এপ্রিল ১

যেভাবে খেলতে চেয়েছিলেন, সেভাবে বলটি উঠেনি। ব্যাটের নিচের অংশে লেগে ঢুকেছে স্টাম্পে। অভিষিক্ত হাসানের বলে বোল্ড হয়েচ ফিরেছেন করুনারত্নে। ১২ রানে প্রথম উইকেট হারাল সফরকারীরা।

ফের ব্যাটিংয়ে শ্রীলঙ্কা

১৫: ১৬, এপ্রিল ১

৩৫৩ রানে এগিয়ে ছিল লঙ্কানরা। চাইলে বাংলাদেশকে ফলো-অন করাতে পারতো তারা। তবে ফের ব্যাটিংয়ের সিদ্ধান্ত নিয়েছে সফরকারীরা। চা-বিরতি শেষেই ব্যাট হাতে নেমেছেন দুই ওপেনার নিশান মাদুশঙ্কা ও দিমুত করুনারত্নে।

১৭৮ রানে থামল বাংলাদেশ

১৪: ৫৬, এপ্রিল ১

আসিতার বলে বোল্ড হয়েছেন খালেদ। এতে ১৭৮ রানেই থামল বাংলাদেশের প্রথম ইনিংস। ফলে ৩৫৩ রানে এগিয়ে থাকল শ্রীলঙ্কা। এখন চাইলেই স্বাগতিকদের ফলো-অন করাতে পারবে সফরকারীরা।

ফার্নান্দোর তৃতীয় শিকার

১৪: ৪৫, এপ্রিল ১

ব্যাটারদের আসা-যাওয়ার মিছিলে একপ্রান্ত আগলে রেখেছিলেন মুমিনুল হক। তবে এবার তাকেও থামতে হলো।

ফার্নান্দোর ফুললেংথের বলে এলবিডব্লু হয়েছেন সাবেক এই দলপতি। রিভিউ নিয়ে আম্পায়ার্স কলে কাটা পড়েছেন তিনি।

বাংলাদেশের বাকি আর মাত্র ১ উইকেট।

ফলোঅনের শঙ্কায় বাংলাদেশ

১৪: ২৯, এপ্রিল ১

জীবন পেয়েও কাজে লাগাতে পারেনি মিরাজ। অল্প সময়ের মধ্যেই ফিরেছেন ড্রেসিং রুমে। এতে ১৬৫ রানের মাথায় ৮ উইকেট হারিয়ে ফলোঅনের শঙ্কায় পড়ল বাংলাদেশ।

জায়াসুরিয়ার অফ স্টাম্পের বাইরের আর্ম ডেলিভারি ভুল লাইনে ডিফেন্ড করেন মিরাজ। সেটি প্যাডে লাগে তার। জোরালো আবেদনে সাড়া দেন আম্পায়ারও। রিভিউ নিয়েও বাঁচতে পারেননি এই অলরাউন্ডার।

৬২ ওভারে বাংলাদেশ ১৬৫/৮। ফলো-অন এড়াতে প্রয়োজন আরও ১৬৭ রান।

আরেকটি ক্যাচ মিস

১৪: ১০, এপ্রিল ১

বল মোকাবিলায় ধৈর্য ধরে রাখতে পারছিলেন না মিরাজ। তাই জয়াসুরিয়াকে ক্রিজ ছেড়ে বেরিয়ে এসে হাঁকাতে চেয়েছিলেন। যা ক্যাচ উঠেছিল। শর্ট কাভারে দীর্ঘ সময় পেয়েও সহজ ক্যাচ ফেলে দেন সাদিরা সামারাবিক্রমা।

বাংলাদেশ ১৫৫/৭, ৩৭৬ রানে পিছিয়ে

ফিরলেন দিপুও

১৩: ৪৬, এপ্রিল ১

৭ রানে অল্পের জন্য বেঁচে গিয়েছিলেন। তবে বেশিক্ষণ আর স্থায়ী হলেন না। লাহিরু কুমারার বলে স্কয়ারড আপ হয়ে স্লিপে ক্যাচ দিয়ে ফেরেন এই ব্যাটার।

ফলে উইকেট সপ্তম হারাল বাংলাদেশ। স্কোর ১৪৮/৭, প্রথম ইনিংসে পিছিয়ে ৩৮৩ রানে। ফলো-অন এড়াতে চাই আরও ১৮৩ রান।

অল্পের জন্য বাঁচলেন দিপু

১৩: ০৭, এপ্রিল ১

ক্যাচ তুলে বেঁচে গিয়েছিলেন তাইজুল-জাকির। তবে ফিল্ডার পর্যন্ত পৌঁছায়নি সেগুলো। এবার বেঁচে গেলেন শাহাদাতও।

জয়াসুরিয়াকে ড্রাইভ করতে গিয়ে ফিরতি ক্যাচ তুলেছিলেন এই ব্যাটার। নাগালের মধ্যেই ছিল, তবে রাখতে পারেননি তিনি। এতে ৭ রানে জীবন পেলেন শাহাদাত।

বাংলাদেশ ৫০ ওভারে ১৪১/৬, ৩৯০ রানে পিছিয়ে

চিরচেনা ব্যর্থতায় লিটন

১৩: ০৭, এপ্রিল ১

এবারও ব্যর্থ লিটন। তবে কিছুটা পার্থক্য আছে। এবার প্রথম না, তৃতীয় বলে আউট হয়েছেন উইকেটকিপার এই ব্যাটার। প্রথম বলটি দেখেশুনে ডিফেন্ড করেছিলেন। পরের বলেই হাঁকান বাউন্ডারি। এরপর লেংথ খানিকটা কমিয়ে দিয়েছিলেন ফার্নান্দো। সেটা বুঝতে পারেননি লিটন। ডেকে এনেছেন মহাবিপদ।

খোঁচা দিতে গিয়ে উইকেটের পেছনে ক্যাচ দিয়েছেন কুশল মেন্ডিসের হাতে। এতে ৪ বলের মধ্যেই সেরা দুই ব্যাটারকে হারাল বাংলাদেশ।

সাকিব এলবিডব্লু

১২: ৫৯, এপ্রিল ১

সাকিবের বিদায়ে পঞ্চম উইকেট হারাল বাংলাদেশ। আসিতা ফার্নান্ডোর ভেতরের দিকে ঢোকা বল লাইন মিস করেন সাকিব। বাকি গল্পটা এলবিডব্লু। এরপর রিভিউতেও বদলাল না রড টাকারের সিদ্ধান্ত।

বল ট্র্যাকিং দেখিয়েছে, আম্পায়ার্স কল। এতে বাঁচল বাংলাদেশের রিভিউ। তবে ঠিকই উইকেট হারাল লাল-সবুজেরা।

বাংলাদেশ ১২৬/৫, পিছিয়ে ৪০৫ রানে।

প্রথম সেশনে লঙ্কানদের প্রাপ্তি ৩ উইকেট

১২: ০৭, এপ্রিল ১

চট্টগ্রামে তৃতীয় দিনের শুরুটা বেশ ভালোই করেছিল বাংলাদেশ। তবে এরপরই দুই উইকেট হারিয়ে এলোমেলো হয়ে যায় টাইগার শিবির।

প্রথম ঘণ্টার মতো পরের ঘণ্টায়ও ৩০ রান তুলেছে বাংলাদেশ। প্রথম ঘণ্টায় উইকেট জিইয়ে রাখলেও দ্বিতীয় ঘণ্টায় ৩ উইকেট হারিয়ে চাপে শান্তর দল।

তৃতীয় দিনের মধ্যাহ্নবিরতি পর্যন্ত ৪১ ওভারে বাংলাদেশ ১১৫/৪। ফলো-অন এড়াতে আরও ২১৭ রান করতে হবে ৪১৬ রানে পিছিয়ে থাকা বাংলাদেশের।

ক্রিজে আছেন সাকিব আল হাসান ও মুমিনুল হক।

২ ওভারে ২ উইকেট

১১: ৪৭, এপ্রিল ১

প্রথমে শান্ত! পরের ওভারে তাইজুলও। এতে পরপর দুই ওভারে ২ উইকেট হারাল বাংলাদেশ। ওপেনার জাকিরের মতো বোল্ড হয়েছেন নাইটওয়াচম্যান তাইজুল।

ফার্নান্দোর অফ স্ট্যাম্পের বাইরে থেকে ভেতরে ঢোকা ডেলিভারি রক্ষণাত্মক ভঙ্গিতে খেলেছিলেন তাইজুল। তবে ব্যাটের কোনায় লেগে লেগ স্ট্যাম্পে আঘাত করে বল। এতে ৬৬ বলে ২২ রানে সমাপ্তি ঘটে তাইজুলের ইনিংসের।

৩৭ ওভারে ১০৬/৪, ৪২৫ রানে পিছিয়ে বাংলাদেশ।

দ্রুতই ফিরলেন শান্ত

১১: ৩২, এপ্রিল ১

ব্যর্থতার ধারা বজায় রেখে দ্রুতই ড্রেসিং রুমের পথ ধরলেন নাজমুল হোসেন শান্ত। জায়াসুরিয়ার ফুল লেংথ ডেলিভারি অন ড্রাইভে খেলতে গিয়ে শর্ট মিড উইকেটে ক্যাচ দিয়েছেন টাইগার দলপতি।

আউট হওয়ার আগে ১১ বলে করেছিলেন স্রেফ ১ রান। এতে চলতি সিরিজের তিন ইনিংসেই দুই অঙ্ক ছোঁয়ার আগে থামলেন শান্ত।

৩৬ ওভারে বাংলাদেশ ১০১/৩

প্যাভিলিয়নে জাকির

১১: ২৪, এপ্রিল ১

বেশ ভালোই বোলিং করছিলেন বিশ্ব ফার্নান্ডো। সেটারই পুরস্কার পেলেন। তার নৈপুণ্যে ফিফটির পরপরই থামলেন জাকির। এতে দিনের প্রথম উইকেট হারাল বাংলাদেশ, এতে তাইজুলের সঙ্গে ভাঙল তার ৪৯ রানের জুটি।

৯৬/২, ৪৩৫ রানে পিছিয়ে বাংলাদেশ

জাকিরের অর্ধশতক

১১: ১৭, এপ্রিল ১

লঙ্কানরা রিভিউ হারানোর পরপরই ফিফটি তুলে নিয়েছেন জাকির। বিশ্ব ফার্নান্ডোকে চার মেরে ৯৭ বলে ফিফটি পূর্ণ করেন বাঁহাতি এই ওপেনার। অভিষেকে সেঞ্চুরির মাঠেই ক্যারিয়ারের চতুর্থ ফিফটি পেলেন এবার।

বাংলাদেশ ৯০/১, ৪৪১ রানে পিছিয়ে

শ্রীলঙ্কার ব্যর্থ রিভিউ

১১: ০৪, এপ্রিল ১

জাকির-তাইজুলের প্রতিরোধ ভাঙতে গিয়ে নিজেদের প্রথম রিভিউ হারাল শ্রীলঙ্কা। জাকিরের কট-বিহাইন্ডে রিভিউ নিয়ে কোনো লাভ হয়নি সফরকারীদের।

ফার্নান্দোর অফ স্টাম্পের বাইরে ফুল লেংথ ডেলিভারিতে জাকিরের ব্যর্থ ড্রাইভ উইকেটরক্ষকের গ্লাভসে যেতেই জোরাল আবেদন। তবে তাতে সাড়া দেননি ফিল্ড আম্পায়ার।

রিপ্লেতে দেখা যায়, বল ও ব্যাটের মাঝে স্পষ্ট দূরত্ব ছিল। মূলত জাকিরের ব্যাট মাটিতে আঘাত করার শব্দেই বিভ্রান্ত হন লঙ্কানরা।

দিনের প্রথম ঘণ্টায় কোনো উইকেট না হারিয়ে ৩০ রান তুলেছে বাংলাদেশ।

৩০ ওভারে ৮৫/১। জাকির ৪৯* ও তাইজুল ৮*।

অল্পের জন্য বাঁচলেন জাকির

১০: ৩২, এপ্রিল ১

তৃতীয় দিনের ষষ্ঠ ওভারেই কঠিন পরীক্ষায় পড়েছিলেন জাকির। কুমারার অফ স্টাম্পের লেংথ ডেলিভারি আলতোভাবে জাকিরের ব্যাটের বাইরের কানা ছুঁয়ে যায়। এরপর সামনে এগিয়ে বল ধরেন দ্বিতীয় স্লিপে থাকা কামিন্দু মেন্ডিস। তবে অল্পের জন্য ঘটেনি বিপদ।

শঙ্কা থাকায় টিভি আম্পায়ারের কাছে যায় বিষয়টি। রিপ্লেতে দেখা যায়, হাতে জমা পড়ার আগেই বল মাটি স্পর্শ করেছে।

২২ ওভারে বাংলাদেশ ৭২/১; জাকির ৪২* ও তাইজুল ৩*

৪৭৬ রানে পিছিয়ে বাংলাদেশ

০৯: ৫৭, এপ্রিল ১

শ্রীলঙ্কা প্রথম ইনিংস : ৫৩১

বাংলাদেশ প্রথম ইনিংস : ১৫ ওভারে ৫৫/১

বাংলাদেশের জন্য কাজটা কতটা কঠিন হবে, তা দ্বিতীয় দিনের স্কোরকার্ডই আভাস দিচ্ছে।

নাইটওয়াচম্যান তাইজুলকে নিয়ে তৃতীয় দিন শুরু করবেন জাকির। ২৮ রানে অপরাজিত এই ওপেনার, অন্যদিকে ৯ বল খেলে রানের খাতা খুলতে পারেননি তাইজুল।

জহুর আহমেদ চৌধুরী স্টেডিয়ামে তৃতীয় দিনের মতো স্বাগতম।

সংক্ষিপ্ত স্কোর (দ্বিতীয় দিন শেষে) :

০৯: ৫৬, এপ্রিল ১

শ্রীলঙ্কা প্রথম ইনিংস : ৫৩১

বাংলাদেশ প্রথম ইনিংস : ১৫ ওভারে ৫৫/১ (জয় ২১, জাকির ২৮*, তাইজুল ০*; ভিশ্ব ৩-১-১২-০, আসিথা ৪-০-২১-০, কুমারা ৪-৩-৪-১, জায়াসুরিয়া ৪-১-১৩-০)

মন্তব্য করুন

daraz
    আরও
    • লাইভ স্কোর আপডেট এর পাঠক প্রিয়
    X
    Fresh