itel
logo
  • ঢাকা শনিবার, ০৪ জুলাই ২০২০, ২০ আষাঢ় ১৪২৭

করোনা আপডেট

  •     গত ২৪ ঘণ্টায় দেশে করোনায় মৃত্যু ২৯ জন, আক্রান্ত ৩২৮৮ জন, সুস্থ হয়েছেন ২৬৭৩ জন: স্বাস্থ্য অধিদপ্তর

কার্তিকের কাছে বাংলাদেশকে হারানো ম্যাচটাই সেরা

স্পোর্টস ডেস্ক, আরটিভি অনলাইন
|  ৩০ মে ২০২০, ২২:৪২ | আপডেট : ৩০ মে ২০২০, ২৩:১২
The best match for Karthik is to lose to Bangladesh
ছবি- সংগৃহীত
নায়ক হতে পারতেন সৌম্য সরকারও। কিন্তু ম্যাচের শেষ বলে অবিশ্বাস্য এক ছয় হাঁকিয়ে নায়ক বনে যান দীনেশ কার্তিক। ২০১৮ সালে শ্রীলঙ্কায় নিদাহাস ট্রফির ফাইনালে সেদিন বাংলাদেশের বিপক্ষে মাত্র ২৯ রানের ইনিংস খেলেও ম্যাচ সেরা হন ৩৫ বছর বয়সী এই উইকেট কিপার-ব্যাটসম্যান। 

বাংলাদেশের বিপক্ষে নিঃসন্দেহে কার্তিক তার ক্যারিয়ারের সেরা ম্যাচটা খেলে ফেলেছেন বলা যায়। আর এটি স্বীকারও করেছেন তিনি।

দীর্ঘ ১৬ বছরের ক্যারিয়ার হলেও দলে নিয়মিত হতে পারেননি কখনও। যে দলে মাহেন্দ্র সিং ধোনির মতো বিশ্বসেরা ক্রিকেটার আছে সেখানে দীনেশ কার্তিকের সুযোগ পাওয়াটা ভাগ্যের। আর নিজেকে প্রমাণও করে ফেললেন সুযোগ পেয়ে।

বাংলাদেশের দেয়া ১৬৬ রানের লক্ষ্যে খেলতে নেমে রোহিত শর্মা (৫৬) ছাড়া ব্যর্থ হয়েছিলেন টপ-অর্ডারের ব্যাটাররা। ১৩৩ রানেই হারায় ৫ উইকেট। কার্তিকের ভাবনায় ছিল নিজেকে প্রমাণের।

 ‘নিজেকে প্রমাণের জন্য আমি ওই রকম একটা মুহূর্তের অপেক্ষায় ছিলাম দীর্ঘ দিন।’

বাকি রানগুলো তখন গলার কাঁটা হয়ে গিয়েছিল ভারতের জন্য। ঠিক সেসময় দলকে সামনে থেকে নেতৃত্ব দিয়েছিলেন দীনেশ কার্তিক।

ব্যাট করতে নেমে ঝড় তুলেছিলেন। রুবেল-সৌম্যদের একের পর এক বাউন্ডারি হাঁকিয়ে মাত্র ৮ বলে ২৯ রান করেছিলেন কার্তিক। এমন ইনিংসকে নিজের ক্যারিয়ারের স্মরণীয় দাবি করেছেন তিনি।

‘এ রকম একটা মুহূর্তের মুখোমুখি হওয়ার জন্য আমি দীর্ঘদিন অনুশীলন করেছি। আমি জানতাম, আমাকে কি করতে হবে এমন একটা কঠিন সময়ে। আমি যখন ব্যাট করতে নামি তখন বেশ কঠিন ছিল জেতার সমীকরণ। শেষ ২ ওভারে আমাদের জেতার জন্য দরকার ছিল ৩৪ রান। তখনও আমি নিজের উপরে বিশ্বাস হারাইনি। মনে মনে বলছিলাম, এ রকম জায়গা থেকেও আমি ম্যাচ জেতাতে পারি।’

এমআর/

RTVPLUS
corona
দেশ আক্রান্ত সুস্থ মৃত
বাংলাদেশ ১৫৯৬৭৯ ৭০৭২১ ১৯৯৭
বিশ্ব ১১১৯০৬৭৮ ৬২৯৭৯১০ ৫২৯১১৩
  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়
  • খেলা এর সর্বশেষ
  • খেলা এর পাঠক প্রিয়