logo
  • ঢাকা মঙ্গলবার, ১৫ অক্টোবর ২০১৯, ৩০ আশ্বিন ১৪২৬

ব্রাইটসাইড গ্রাউন্ড বা কাউন্টি গ্রাউন্ড

স্পোর্টস ডেস্ক, আরটিভি অনলাইন
|  ২০ ফেব্রুয়ারি ২০১৯, ১৩:৩২ | আপডেট : ২৭ ফেব্রুয়ারি ২০১৯, ১৬:৪৯
আর ৯৮ দিন পরই ইংল্যান্ডে বসছে দ্বাদশ বিশ্বকাপ ক্রিকেটের আসর। প্রায় দেড় মাস বুদ হয়ে থাকবে ক্রিকেটপ্রেমীরা। ক্রিকেটের মক্কা খ্যাত লর্ডস ক্রিকেট গ্রাউন্ডে ফাইনালের মধ্য দিয়ে পর্দা নামবে এ আসরের।

বিশ্বের ১০টি দল নিয়ে এবারের আসর অনুষ্ঠিত হবে। যেখানে ৪৪টি ম্যাচ হবে। খেলা হবে ইংল্যান্ডের ১০টি স্টেডিয়ামে। ক্রিকেট বিশ্বকাপ নিয়ে আমাদের প্রতিদিনের আয়োজনে চলছে বিশ্বকাপের ভেন্যু পরিচিতি। আজ আমাদের আয়োজনে থাকছে ব্রিস্টলের কাউন্টি ক্রিকেট গ্রাউন্ড নিয়ে।

এ মাঠটি ইংল্যান্ডের ব্রিস্টলে অবস্থিত প্রাচীন ক্রিকেট মাঠ। সম্প্রচারস্বত্ত্বজনিত কারণে এ স্টেডিয়ামটি ব্রাইটসাইড গ্রাউন্ড নামে পরিচিতি। শুরুতে এটি অ্যাশলে ডাউন গ্রাউন্ড নামে পরিচিত ছিল। এটি গ্লুচেস্টারশায়ার কাউন্টি ক্রিকেট ক্লাবের প্রধান মাঠ।

ইংল্যান্ডের বিখ্যাত ক্রিকেটার ডব্লিউ জি গ্রেস এ মাঠটি ১৮৮৯ সালে কিনেছিলেন। এরপর থেকেই গ্লুচেস্টারশায়ার কর্তৃপক্ষ চিরকালের জন্য দখল করে নেয়। ২০০৯ সালের জুলাইয়ে ক্লাব কর্তৃপক্ষ দর্শক ধারণ ক্ষমতা ২০ হাজার করার লক্ষ্যে মাঠ পুনর্গঠনের পরিকল্পনা নেয়। অবশেষে ২০১০ সালে মার্চে ব্রিস্টল সিটি কাউন্সিল কর্তৃপক্ষ নতুন মাঠের কার্যক্রমের উদ্বোধন করে।

১৯৮৩ সালের ১৩ জুন নিউজিল্যান্ড ও শ্রীলঙ্কার ম্যাচ দিয়ে ওয়ানডে ম্যাচের যাত্রা শুরু হয়। ২০০৬ সালের ২৮ আগস্ট ইংল্যান্ড ও পাকিস্তানের মধ্যকার ম্যাচ দিয়ে অনুষ্ঠিত হয় প্রথম টি-টোয়েন্টি ম্যাচ।

ওয়ানডে ক্রিকেটে এ মাঠে রয়েছে ১৩টি সেঞ্চুরি। যার মধ্যে পুরুষদের রয়েছে ৬টি ও মেয়েদের রয়েছে ৭টি সেঞ্চুরি। টি-টোয়েন্টি ক্রিকেট এ মাঠের একমাত্র সেঞ্চুরি ভারতের রোহিত শর্মার। পুরুষ ক্রিকেটে ভারতের ক্রিকেট ঈশ্বর শচীন টেন্ডুলকারের অপরাজিত ১৪০ রান ও মহিলা ক্রিকেটে শ্রীলঙ্কার চামারি আতাপাত্তুর অপরাজিত ১৭৮ রানের ইনিংস সর্বোচ্চ। এ মাঠে বিশ্বকাপের মোট তিনটি ম্যাচ অনুষ্ঠিত হবে। মাঠে দর্শক ধারণ ক্ষমতা ১৭ হাজার ৫০০।

এখানে বিশ্বকাপের চতুর্থ ম্যাচে ১ জুন মুখোমুখি হবে অস্ট্রেলিয়া-আফগানিস্তান। এছাড়া ৭ জুন বিশ্বকাপের ১১তম ম্যাচে শ্রীলঙ্কার মুখোমুখি হবে পাকিস্তান এবং ১১ জুন বিশ্বকাপের ১৬তম ম্যাচে বাংলাদেশের মুখোমুখি হবে শ্রীলঙ্কা। ২৪টি ওয়ানডে ম্যাচ এখানে অনুষ্ঠিত হয়েছে। আগে ব্যাট করে জয়ী হয়েছে ১০টি ম্যাচ। আগে বল করে জয়ী হয়েছে ১৩টি ম্যাচে।

প্রথম ইনিংসে গড় রান ২৩৯ আর দ্বিতীয় ইনিংসের গড় রান ২১০। এই মাঠে সর্বোচ্চ রান ৫ উইকেটে ৩৭৩ রান। আর সর্বনিম্ন ৯২ রান। সর্বোচ্চ ২৭২ রান তাড়া করে জয়ের রেকর্ড রয়েছে এ মাঠে। সর্বনিম্ন ১৮২ রান করেও জয়ের রেকর্ড রয়েছে এখানে।

এএ/পি

  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়