• ঢাকা বৃহস্পতিবার, ২৫ জুলাই ২০২৪, ১০ শ্রাবণ ১৪৩১
logo

ইউরো ২০২৪ স্পনসরশিপ : আগে টাকা, পরে ‘দেশপ্রেম’!

ডয়চে ভেলে

  ১৪ জুন ২০২৪, ১৪:০৭
ইউরো
ছবি- সংগৃহীত

আসন্ন ইউরোপিয়ান চ্যাম্পিয়নশিপে অভূতপূর্ব কিছু বিষয় দেখবে ফুটবল বিশ্ব। আসরের মূল স্পনসরদের তালিকায় থাকবে চীন এবং ইউরোপের বাইরের আরেও কিছু দেশের দাপট।

অ্যাডিডাসবিহীন জার্মান জাতীয় দল!

৭০ বছরেরও বেশি সময় ধরে জার্মানির জাতীয় দলের স্পনসর জার্মান কোম্পানি অ্যাডিডাস। ১৯৫৪ সালের বিশ্বকাপে জার্মানি যে প্রথম সাফল্যের দেখা পেয়েছিল তার পেছনেও অ্যাডিডাসের ছিল গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা। গ্রুপ পর্বে যে জার্মানিকে উড়িয়ে দিয়েছিল ফেরেঙ্ক পুসকাসের হাঙ্গেরি, তারাই কিনা ফাইনালে হেরে বসেছিল ২-৩ গোলে। মাঠের ট্যাকটিকেল দিক তো ছিলই, পাশাপাশি অ্যাডিডাসের সর্বাধুনিক বুটও জার্মানদের যে বাড়তি সুবিধা দিয়েছিল তা অনস্বীকার্য।

তারপর থেকে যেখানেই জার্মান দল খেলেছে, স্পনসর হয়ে অ্যাডিডাসও সঙ্গে থেকেছে।

কিন্তু গত ২২ মার্চ জার্মান ফুটবল অ্যাসোসিয়েশন (ডিএফবি) জানিয়ে দেয় আর অ্যাডিডাস নয়, আগামীতে (১৯২৭ সাল থেকে) অন্তত সাত বছরের জন্য ‘ডি মানশাফট’র স্পনসর থাকবে যুক্তরাষ্ট্রের নাইকি। ডিএফবির এই ঘোষণায় সাড়া পড়ে যায় জার্মানিতে। প্রতিবাদে মুখর হন অনেকেই। জার্মানির খেলোয়াড়দের গায়ে-পায়ে মার্কিন কোম্পানির উপস্থিতি তারা মানতে নারাজ।

জার্মানির স্বাস্থ্যমন্ত্রী কার্ল লাউটারবাখ এক্স হ্যান্ডেলে লেখেন, ‘আমি মনে করি এটা খুবই খারাপ সিদ্ধান্ত।’

সামাজিক গণতান্ত্রিক দলের এই নেতার মতে, ‘বাণিজ্যের কাছে ঐতিহ্য এবং ঘরোয়া শান্তি ধ্বংস হয়ে যাচ্ছে।’

জার্মানির অর্থনীতিমন্ত্রী, সবুজ দলের নেতা রবার্ট হাবেক জানান, ‘আমার কাছে অ্যাডিডাস এবং (জার্সির) কালো, লাল আর সোনালি সবসময় এক মনে হয়েছে। ওটাই আমার কাছে জার্মানির পরিচয় (স্পনসরশিপে), একটু দেশপ্রেম থাকলে আমার ভালো লাগতো।’

কিন্তু সাধারণ মানুষ থেকে ছোট-বড় রাজনৈতিক নেতাও অসন্তোষ প্রকাশ করলেও ডিএফবি অটল। আসল কারণ টাকা।

জানা গেছে, স্পনসরশিপ চুক্তির কারণে অ্যাডিডাসের কাছ থেকে যে অর্থ পাওয়া যেতে, নাইকির কাছ থেকে তার দ্বিগুণ পাবে ডিএফবি। বছরে নাকি অন্তত ৫০ মিলিয়ন ইউরো অর্থাৎ ৫৪ মিলিয়ন ডলারের মতো খরচ করবে নাইকি।

ইউরো ২০২৪-এর স্পনসরশিপেও ‘নতুনত্ব’

ডিএফবির সেই ঘোষণার এক সপ্তাহ পরেই আসে ইউরো ২০২৪-এর স্পনসরশিপ নিয়ে অবাক করা খবর– মূল স্পনসরদের তালিকায় থাকছে না জার্মানির মার্সেডেজ বা ফক্সভাগেন, সেখানে ঢুকে পড়ছে চীনের ইলেকট্রিক গাড়ি তৈরির কোম্পানি বিওয়াইডি।

তবে প্রধান পাঁচ স্পনসরের তালিকায় অবশ্য অ্যাডিডাস রয়েছে। তারা শুধু ম্যাচ বল আর স্বেচ্ছাসেবী এবং কর্মীদের সরঞ্জামাদি সরবরাহ করবে। এ ছাড়া ডিজিটাল সেবাদান প্রতিষ্ঠান অ্যাটস দেখবে আসরের প্রযুক্তির দিকটা। মূল পাঁচ স্পনসরের তালিকায় আরও রয়েছে কোকাকোলা এবং জার্মানির জাতীয় রেলযোগাযোগ কর্তৃপক্ষ ডয়চে বান।

মন্তব্য করুন

  • খেলা এর পাঠক প্রিয়
আরও পড়ুন
ইউরো সেরা একাদশে স্প্যানিশদের আধিপত্য
ইউরো চ্যাম্পিয়নদের বরণে স্পেনের রাস্তায় জনসমুদ্র
অবসরে ফ্রান্সের বিশ্বকাপজয়ী তারকা
বাংলাদেশি টাকায় আজকের মুদ্রা বিনিময় হার (১৬ জুলাই)