• ঢাকা বৃহস্পতিবার, ২৫ জুলাই ২০২৪, ১০ শ্রাবণ ১৪৩১
logo

ভারত-পাকিস্তান মহারণ ছাপিয়ে আলোচনায় ‘বিতর্কিত উইকেট’

স্পোর্টস ডেস্ক, আরটিভি নিউজ

  ০৯ জুন ২০২৪, ১২:৫৩
টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ
ছবি- সংগৃহীত

চলমান টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে সবচেয়ে হাইভোল্টেজ ম্যাচে মুখোমুখি হবে দুই চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী ভারত-পাকিস্তান। যুক্তরাষ্ট্রের নিউইয়র্কের নাসাউ কাউন্টি স্টেডিয়ামে হবে এই লড়াই। বাংলাদেশ সময় রাত ৮টা ৩০ মিনিটে শুরু হবে ম্যাচটি।

তবে ভারত-পাকিস্তান মহারণকে ছাপিয়ে আলোচনার কেন্দ্রবিন্দুতে স্টেডিয়ামের উইকেট। ব্যাটারদের জন্য এই উইকেটে ব্যাটিং করাটা বড় চ্যালেঞ্জিং হয়ে দাঁড়িয়েছে। ইতোমধ্যে তিনটি ম্যাচ থেকে সেই প্রমাণও মিলেছে। তাই এই ম্যাচকে প্রাণবন্ত করতে হাই-স্কোরিং উইকেট তৈরিতে ব্যস্ত আইসিসি।

গত ৩ জুন শ্রীলঙ্কা-দক্ষিণ আফ্রিকার ম্যাচ দিয়েই আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে নিউইয়র্কের নাসাউ কাউন্টি স্টেডিয়ামের অভিষেক হয়। ওই ম্যাচে প্রথমে ব্যাট করে ১৯ দশমিক ১ ওভারে মাত্র ৭৭ রানে অলআউট হয় লঙ্কানরা। এরপর ৭৮ রানের টার্গেট স্পর্শ করতে ১৭ ওভার পর্যন্ত খেলতে হয় প্রোটিয়াদের।

একই ভেন্যুতে খেলতে নেমে ভারত ও আয়ারল্যান্ডের ব্যাটারদেরও হিমশিম খেতে হয়। প্রথমে ব্যাট করে ৯৬ রানে গুটিয়ে যায় আইরিশরা। ১৩তম ওভারে টার্গেট স্পর্শ করে ৮ উইকেটে জয় পায় ভারত। কিন্তু উইকেটের অস্বাভাবিক বাউন্সে হাত ও পেটে ব্যথা পান দু’দলের বেশ কিছু ক্রিকেটার। এর মধ্যে কনুইর উপরের অংশে আঘাত পেয়ে মাঠ ছাড়েন ভারতের অধিনায়ক রোহিত শর্মা।

নতুনভাবে উইকেট দেখভাল শুরু পর শনিবার ওই ভেন্যুতে খেলতে নামে কানাডা ও আয়ারল্যান্ড। অবশেষে দলীয় স্কোর ১শ রানের গণ্ডি পেরোয়। প্রথমে ব্যাট করে কানাডা ৭ উইকেটে ১৩৭ এবং পরে আয়ারল্যান্ড ৭ উইকেটে ১২৫ রান করে।

এরপরও এই ভেন্যুর উইকেট নিয়ে সন্তুষ্ট নয় আইসিসি ও যুক্তরাষ্ট্র। তাই আরও ভালো উইকেট তৈরি করতে বদ্ধপরিকর আইসিসি।

এক বার্তায় জানানো হয়, ‘আইসিসি এবং টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের আয়োজকরা বুঝতে পারছে যে নাসাউ স্টেডিয়ামের উইকেট সন্তোষজনক নয়। ইতোমধ্যে আমরা নতুনভাবে কাজ শুরু করেছি। বাকি ম্যাচের কথা ভেবে উইকেট ঠিক করার চেষ্টা চলছে। আশা করা হচ্ছে, ভারত-পাকিস্তান ম্যাচে ভালো কিছু হবে।’

এদিকে নিউইয়র্ক থেকে ভারত-পাকিস্তান ম্যাচ সরিয়ে ফেলা হতে পারে বলেও গুঞ্জন উঠেছিল। কিন্তু ম্যাচের সব আয়োজন সম্পন্ন হওয়ায় সেটা আর সম্ভব নয় বলে জানান আইসিসির এক কর্মকর্তা। তিনি বলেন, ‘ভারত-পাকিস্তান ম্যাচে ৩০ হাজার দর্শক মাঠে থাকবেন। তারা টিকিট কিনে ফেলেছেন। ফলে এই ম্যাচ নিউইয়র্ক থেকে সরিয়ে দেওয়া সম্ভব নয়।’

ম্যাচের ভেন্যু পরিবর্তন প্রসঙ্গে ভারতীয় অধিনায়ক রোহিত বলেন, ‘উইকেট নিয়ে উদ্বেগ অবশ্যই আছে। কিন্তু কিছু করার নেই। এই উইকেটেই খেলতে হবে, যেহেতু আগের থেকেই সূচি নির্ধারিত। আমরা ম্যাচের জন্য পুরোপুরি প্রস্তুতি নিয়েছি। এখন মাঠের লড়াইয়ে নামার পালা।’

অন্যদিকে ভারতের বিপক্ষে ম্যাচ দিয়ে ঘুরে দাঁড়াতে চান পাক অধিনায়ক বাবর আজম। তার ভাষ্যমতে, ‘প্রথম ম্যাচে আমরা তিন বিভাগেই খারাপ খেলেছি। আশা করছি, ভারতের বিপক্ষে ম্যাচ দিয়ে ঘুরে দাঁড়াতে পারবো। যুক্তরাষ্ট্রের বিপক্ষে ম্যাচের পর, আমরা নিজেদের মধ্যে আলোচনা করেছি এবং ঘুরে দাঁড়াতে নিজেদের সেরা পারফরমেন্স উজাড় করে দিতে বদ্ধপরিকর। ভারত শক্তিশালী দল। তাদের ব্যাটার-বোলাররা দারুণ ছন্দে আছে। আমরাও তাদের সামলাতে সব ধরণের প্রস্তুতি ও পরিকল্পনা নিয়েছি। মাঠের লড়াইয়ে সেরাটা দিতে পারলে, সাফল্য নিয়ে মাঠ ছাড়তে পারব।’

উইকেট নিয়ে বাবর বলেন, ‘নিউ ইয়র্কের উইকেট নিয়ে অনেক আলোচনা হচ্ছে। আমরা সেখানে খেলিনি, তাই আমাদের ধারণা কম। তবে সেখানে হওয়া তিনটি ম্যাচ দেখেছি। তাতে মনে হচ্ছে, ওমন উইকেটে ব্যাট করা কঠিন হবে। উইকেটের পরিস্থিতি বুঝে খেলতে হবে।’

মন্তব্য করুন

  • খেলা এর পাঠক প্রিয়
আরও পড়ুন
আগামী ওয়ানডে বিশ্বকাপেও খেলবেন রোহিত-কোহলি
বিএনপি-জামায়াত চক্র পাকিস্তান কমিউনিটির সহায়তা নিয়েছে: পররাষ্ট্রমন্ত্রী
বড় জয়ে সেমিফাইনালে বাংলাদেশ, প্রতিপক্ষ ভারত
আটকের পর ছাড়া পেলেন পাকিস্তানি গায়ক রাহাত ফতেহ আলী