• ঢাকা বুধবার, ১২ জুন ২০২৪, ২৯ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১
logo

মেসির ন্যাপকিন পেপারের দাম সাড়ে ১১ কোটি টাকা!

স্পোর্টস ডেস্ক, আরটিভি নিউজ

  ১৯ মে ২০২৪, ১০:৩০
মেসি
ছবি- সংগৃহীত

সেই ২০০০ সালে ১৩ বছর বয়সী লিওনেল মেসিকে বার্সার ডেরায় ভেড়াতে কি কাণ্ডটাই না করেছিল সে সময়ের ক্লাব কর্তারা। মেসিতে মুগ্ধ সে সময়ের বার্সা কর্তারা সে বছরের ১৪ ডিসেম্বর বার্সেলোনা টেনিস ক্লাবে মেসির সঙ্গে চুক্তি করেছিলেন, আর সে চুক্তিটি হয়েছিল একটি ন্যাপকিন পেপারে।

এ গল্প আপনারা অনেকেই জানেন। ১৩ বছর বয়সী মেসির লুকায়িত ফুটবল মেধাকে ঠিকই দেখে ফেলেছিলেন সে সময়ের বার্সা কর্তারা। তাকে যাতে অন্য কোনো ক্লাব নিতে না পারে, সে জন্য তাড়াহুড়ো করে একটি ন্যাপকিন পেপারের ওপর সেই চুক্তি করা হয়েছিল।

গত ফেব্রুয়ারিতেই ঘোষণা হয়েছিল, ঐতিহাসিক সেই ন্যাপকিন পেপার মার্চে নিলামে তুলবে ব্রিটিশ নিলাম প্রতিষ্ঠান বোনহামস। চলতি বছর মার্চে বার্তা সংস্থা এএফপির খবরে বলা হয়েছিল, নিলামে ন্যাপকিন পেপারের দাম উঠতে পারে ৬ লাখ ৩৫ হাজার ডলার পর্যন্ত। বাস্তবে সে দামকেও ছাড়িয়ে গেল।

বোনহামস জানিয়েছে, ৩ লাখ ডলার ভিত্তিমূল্যের ন্যাপকিন পেপারটি নিলামে ৯ লাখ ৬৫ হাজার ডলার, যা বাংলাদেশি মুদ্রায় প্রায় ১১ কোটি ২৯ লাখ টাকায় বিক্রি হয়েছে।

মেসির কিংবদন্তি হয়ে ওঠার যাত্রা শুরু সেই ক্যাম্প ন্যু থেকেই। ২০০০ সালের ১৪ ডিসেম্বর মেসির সঙ্গে করা সে চুক্তির আনুষ্ঠানিকতায় উপস্থিত ছিলেন মিনগেলা, হোরাশিও আর বার্সার ক্রীড়া পরিচালক কার্লোস রেক্সাস। মেসির নাম প্রথম সুপারিশ করেছিলেন আর্জেন্টাইন এজেন্ট হোরাশিও গ্যাগিওলি।

বোনহামস জানিয়েছে, ন্যাপকিন পেপারটি গ্যাগিওলির কাছ থেকে সংগ্রহ করা হয়েছে। এটি নিলামে যে দামে বিক্রি হয়েছে, সেখান থেকে একটি অংশ অনলাইন নিলামের প্রশাসনিক ফি হিসেবে দিতে হবে।

চুক্তির শুরুতে অবশ্য কিছুটা বাধ সেধেছিলেন মেসির বাবা হোর্হে মেসি। তিনি তার ছেলেকে আর্জেন্টিনায় ফিরিয়ে নিয়ে যাওয়ার হুমকি দিয়েছিলেন। তবে হোর্হেকে আশ্বস্ত করতে বার্সা তড়িঘড়ি করে ন্যাপকিন পেপারে চুক্তিটি সম্পন্ন করে। এই ন্যাপকিন পেপারে গ্যাগিওলি, মিনগেলা ও রেক্সার্সের সই আছে। সেখানেও আছে এক মজার ঘটনা।

বার্সার সেই সময়ের ক্রীড়া পরিচালক রেক্সার্স সে সময় ঘটনাস্থলে একজন ওয়েটারের কাছে কাগজ চেয়েছিলেন। কিন্তু সেই ওয়েটার হাতের সামনে কোনো কাগজ না পেয়ে সামনে থাকা ন্যাপকিন তুলে দেন রেক্সার্সের হাতে। ব্যাস! এরপরই এই ন্যাপকিনেই চুক্তি সেরে নিয়ে ইতিহাস তৈরি করে মেসি ও বার্সা।

সেই ন্যাপকিন এবার নিলামে বিক্রি হলো রেকর্ড দামে। মেসির বার্সা অধ্যায় শেষ হবার পর এই ন্যাপকিন নিলামে ওঠার গুঞ্জন ওঠে। চলতি বছরের শুরুর দিতে সবকিছু প্রকাশ্য হয়।

বার্সার হয়ে ৪ বার চ্যাম্পিয়নস লিগ, ১০ বার লা লিগা জয়ের পর ২০২১ সালে মেসি পিএসজিতে যোগ দেন। এরপর গত বছর মেসি যোগ দেন যুক্তরাষ্ট্রের মেজর লিগ সকারের ক্লাব ইন্টার মায়ামিতে।

মন্তব্য করুন

daraz
  • খেলা এর পাঠক প্রিয়
আরও পড়ুন
এসকেএফ ফার্মায় চাকরি, সপ্তাহে ৫ দিন কাজ
নিয়োগ দেবে পপুলার, সপ্তাহে কাজ ৫ দিন
মেসির ফেরার ম্যাচে আর্জেন্টিনার কষ্টার্জিত জয়
মেসিকে নিয়ে ভোরে মাঠে নামছে আর্জেন্টিনা, যেভাবে দেখবেন