Mir cement
logo
  • ঢাকা মঙ্গলবার, ২৪ মে ২০২২, ১০ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯

এত ঘাটতি নিয়ে বিপিএল!

বিপিএল গর্ভনিং কাউন্সিলের সদস্য সচিব ইসমাইল হায়দার মল্লিক

বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগের (বিপিএল) অষ্টম আসর শুরু হতে যাচ্ছে চলতি মাসের ২১ তারিখে। অনেকটা হুটহাট করেই শুরু হতে যাওয়া বিপিএলে যেন কোনো পরিকল্পনাই নেই। অনেকটা ‘করতে হবে তাই করছি’ আচরণ।

অথচ পাকিস্তান সুপার লিগের (পিসিএল) দিকে তাকালেই দেখা যায় বিপিএলের পরে এসে তারা কতটা গুছানো আর পেশাদার। এই তো কদিন আগেই বিপিএলের যে ভেরিফাইড পেজটা ছিল সেটির নাম পরিবর্তন করে অন্য নামে করা হয়। অথচ কয়েকমাস আগে থেকেই পিএসএল, সিপিএলের মতো লিগগুলো খেলোয়াড়দের নানা ভিডিও প্রমোশন করা শুরু করে দেয়। এসব না হয় সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে।

দুই একটি দল ছাড়া খেলোয়াড় নির্বাচনেও বিদেশি তারকা ক্রিকেটারদের ভেড়াতে পারেনি ফ্র্যাঞ্চাইজিগুলো। জাতীয় দল থেকে অবসর নেওয়া, দল থেকে ছিটকে পড়া কিংবা জাতীয় দলের আশপাশে থাকাদের নিয়ে কোনো মতে দল গড়েছে।

এখন জানা গেল আসন্ন আসরে নেই ‘ডিআরএস’ বিপিএল গর্ভনিং কাউন্সিলের সদস্য সচিব ইসমাইল হায়দার মল্লিক সংবাদমাধ্যমে বলেন, বর্তমান করোনা পরিস্থিতির কারণেই নাকি আনতে পারছে না ডিআরএস টেকনিশিয়ানদের। অথচ পিএসএলে ঠিকই রয়েছে এই ডিআরএস সিস্টেম।

‘ইসমাইল হায়দার বলেন, কোভিড পরিস্থিতির কারণে ডিআরএস রাখা সম্ভব হচ্ছে না। এর কারণ টেকনিশিয়ানরা কেউ ফ্লাই করতে পারছে না। ওদের দুইটা টিম এখন দুই দেশে আছে, সেখান থেকে এই অবস্থায় বাংলাদেশে আসতে পারবে না।’

এই তো গেল ডিআরএস। ইসমাইল হায়দার জানিয়েছেন, বিদেশি আম্পায়ার নিয়েও শঙ্কা। ইংল্যান্ডের একজন আম্পায়ার আসার কথা ছিল, সেও আসবে না বলে জানিয়ে দিয়েছে। এখন পার্শ্ববর্তী দেশ শ্রীলঙ্কা বা ভারত থেকে আনার পরিকল্পনা করা হচ্ছে। এক্ষেত্রে দেশি একজন ও বিদেশি একজন আম্পায়ারকে দিয়ে খেলা পরিচালনা করা হবে।

‘শুধু বিপিএলে নয়, আন্তর্জাতিক সিরিজেও ভুল সিদ্ধান্ত হয়। একপাশে বিদেশি আম্পায়ার, আরেক পাশে দেশি। আমার মনে হয় না, আম্পায়ারিং নিয়ে প্রশ্নের অবকাশ থাকবে।’

প্রতিবারের মতো এবারও শঙ্কা থেকে যায় টিভি সম্প্রচারের মান নিয়ে। তবে এবারের সম্প্রচারের মান নিয়ে আশার বাণী শুনিয়েছেন ইসমাইল হায়দার।

‘প্রোডাকশন ভালো করার চেষ্টা করা হবে। প্রতিবারের তুলনায় এবার ক্যামেরা বেশি থাকবে। অতীতে গ্রাফিক্স নিয়ে যে সমস্যা হয়েছে এবার এটি নিয়ে সতর্ক থাকার চেষ্টা করা হবে। অন্যান্য সব প্রযুক্তি, ড্রোন বা যা থাকে, সব থাকবে।’

বিপিএলের শুরুর আসর থেকে এখন পর্যন্ত মান সম্পন্ন ধারাভাষ্যকার নিয়ে আসতে পারেনি বিসিবি। এবারও সেটিই হতে যাচ্ছে। অথচ একই সময়ে শুরু হতে যাওয়া পিএসএলের ধারাভাষ্যে দেখা যাবে ড্যানি মরিসন, ম্যাথু হেইডেন, গ্রায়েম স্মিথ, অ্যালান উইলকিন্স, কেপলার ওয়েসেলস, জন্টি রোডসদের। এ নিয়েও খোঁড়া যুক্তি দেখিয়েছেন ইসমাইল হায়দার।

‘কোভিড পরিস্থিতিতে লোক (ধারাভাষ্যকার) পাওয়াই কঠিন। তারপরও খারাপ থাকার কথা নয়। মোটামুটি ভালো মানেরই আসার কথা। তবে ওমিক্রন পরিস্থিতির কারণে অনেক কিছু সম্ভব হচ্ছে না।’ সূত্র- বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম

এম/এসকে

মন্তব্য করুন

RTV Drama
RTVPLUS