Mir cement
logo
  • ঢাকা শনিবার, ৩১ জুলাই ২০২১, ১৬ শ্রাবণ ১৪২৮

ম্যাচ সেন্টার

শেষ ম্যাচ জিতে হোয়াইটওয়াশ এড়াল শ্রীলঙ্কা

তিন ওয়ানডে সিরিজের প্রথম দুই ম্যাচে জয় পাওয়া বাংলাদেশ শেষ ওয়ানডেতে এসে হেরেছে শ্রীলঙ্কার কাছে। ২৮৭ রানের লক্ষ্যে ব্যাট করতে নেম ৪২.৩ ওভারে মাত্র ১৮৯ তুলতেই হারিয়েছে সব উইকেট। তাতে ৯৭ রানের জয় নিয়ে মাঠ ছেড়েছে লঙ্কানরা।

দলের হয়ে সর্বোচ্চ ৫৩ রানের ইনিংস খেলেন মোসাদ্দেক হোসেন। বিপরীতে ৫ উইকেট নিয়ে বাংলাদেশের ব্যাটিং লাইন-আপ ধ্বসে দেন দুষমন্থ চামিরা। লঙ্কানদের প্রথমবার সিরিজে হারালেও হোয়াইটওয়াশের দারুণ সুযোগটা হাতছাড়া করল বাংলাদেশ।

চামিরার প্রথম ৫ উইকেট

টাইগার ব্যাটসম্যানদের একের পর এক উইকেট নিয়ে দুষমন্থ চামিরা তুলে নিলেন ক্যারিয়ারের প্রথম ৫ উইকেটে। এর আগে ২৭ ওয়ানডের ক্যারিয়ারের এক ম্যাচে যার সর্বোচ্চ উইকেট ছিল ৩ উইকেট।

সেই চামিরা একাই ধ্বসে দিল বাংলাদেশের ব্যাটিং লাইন আপ। তামিম ইকবাল, নাঈম শেখ, সাকিব আল হাসানকে ফেরানোর পর মেহেদী হাসান মিরাজ আর সবশেষ তাসকিন আহমেদকে বোল্ড করে নেন প্রথমবার পাঁচ উইকেট নেয়ার স্বাদ।

দলকে বিপদে ফেলে বিদায় মোসাদ্দেকের

মুশফিকুর রহিমের বিদায়ের পর জয়ের আশা অনেকটা ক্ষীন হয়ে আসে বাংলাদেশের। তবুও আশা বেঁচে ছিল মোসাদ্দেক হোসেন ও মাহমুদউল্লাহ রিয়াদের জুটিতে।

মুশফিক-মাহমুদউল্লাহ’র জুটিতে গত দুই ম্যাচে দারুণ জয় তুলে নেয় বাংলাদেশ। আজ মুশফিক পারেননি তো মোসাদ্দেককে নিয়ে এগোচ্ছিলেন মাহমুদউল্লাহ।

মোসাদ্দেকও দারুণ সঙ্গ দিয়ে যাচ্ছিলেন, তুলে নিয়েছিলেন ক্যারিয়ারের তৃতীয় অর্ধশতকও। কিন্তু দায়িত্ব যেন এখানেই শেষ।

ব্যক্তিগত ৫১ (৭২) রানের মাথায় রিভার্স সুপ খেলতে গিয়ে শর্ট থার্ডম্যান ভিনুরা ফার্নান্দোর কাছে ক্যাচ তুলে দেন রমেশ মেন্ডিসের বলে।

৩৪ ওভার শেষে বাংলাদেশ সংগ্রহ করেছে ৫ উইকেটে ১৩০ রান।

আশা জাগিয়ে ফিরলেন মুশফিক

প্রথম ম্যাচে ৮৪, দ্বিতীয় ম্যাচে ১২৫ রানের ইনিংস খেলে দলকে জিতিয়েছেন মুশফিকুর রহিম। গত দুই ম্যাচে দলের বিপর্যয়ে নিজের কাজটা করেছিলেন দারুণ ভাবে।

তবে আজ আর পারলেন না। শ্রীলঙ্কার দেয়া ২৮৭ রানের লক্ষ্যে ব্যাট করতে নেমে টপ-অর্ডার হারিয়ে বিপাকে পড়া দলকে টেনে তোলার চেষ্টায় ব্যর্থ হয়েছেন তিনি।

মোসাদ্দেক হোসেনকে নিয়ে ৫৬ রানের জুটি গড়ে লং অনে রমেশ মেন্ডিসের বলে বাউন্ডারি হাঁকাতে গিয়ে ধানাঞ্জায়া ডি সিলভার হাতে ক্যাচ দিয়ে ফিরেছেন সাজঘরে।

তার বিদায়ে চাপটা আরও বাড়ল টাইগার শিবিরে। বাংলাদেশের সংগ্রহ ২৪ ওভারে ৪ উইকেট হারিয়ে ৮৮ রান।

তামিমও ফিরলেন সাজঘরে

দলীয় ৯ রানের ভেতর নাঈম শেখ ও সাকিব আল হাসানের বিদায়ের পর তামিম ইকবাল-মুশফিকুর রহিমের ব্যাটে ঘুরে দাড়ানোর চেষ্টা। কিন্তু সেটিও টিকল না বেশিক্ষণ। দুজনের ১৯ রানের জুটি ভাঙল তামিমের ১৭ (২৯) রানে বিদায়ে।

নাঈম-সাকিবকে ফেরানো দুষমন্থ চামিরার বলে উইকেটের পেছনে ক্যাচ দিয়ে ফেরেন টাইগার ওপেনার। নিরোশন ডিকওয়েলার হাতে বল গেলে রিভিউ নেন তামিম। তাতেও রক্ষা হয়নি

এখন পর্যন্ত বাংলাদেশের সংগ্রহ ৯ ওভার ৩ বলে ৩ উইকেটে ২৮ রান। লঙ্কানদের দেয়া ২৮৭ রানের লক্ষ্য টপকাতে হলে লাগে আরও ২৫৯ রান।

নাঈম-সাকিবের বিদায়, বিপাকে বাংলাদেশ

২৮৭ রানের লক্ষ্যে ব্যাট করতে নেমে শুরুতেই খেই হারিয়েছে বাংলাদেশ। লিটন দাসের পরিবর্তে একাদশে সুযোগ পাওয়া নাঈম শেখের বিদায় দ্বিতীয় ওভারেই। মাত্র ১ রান করে দুষমন্থ চামিরার বলে ক্যাচ দিয়ে ফিরেছেন সাজঘরে।

নাঈমের পর সাকিবও ফিরেছেন সাজঘরে। চামিরার বলেই ক্যাচ দিয়ে ফিরেছেন মাত্র ৪ রান করে। দলীয় ৯ রানে দুইজনের দ্রুত ফেরায় বিপাকে পড়েছে বাংলাদেশ।

এখন পর্যন্ত বাংলাদেশের সংগ্রহ ৬ ওভারে ২ উইকেটে ১৭ রান।

বাংলাদেশকে বড় লক্ষ্য দিলো শ্রীলঙ্কা

তিন ওয়ানডের শেষ ম্যাচ। আগের দুই ম্যাচে হেরে যাওয়া শ্রীলঙ্কার মান বাঁচানোর ম্যাচ। মিরপুরের শের ই বাংলা স্টেডিয়ামে বৃষ্টির বিঘ্নিত ম্যাচে টস জিতে ব্যাট করার সিদ্ধান্ত নেয় লঙ্কান অধিনায়ক কুশল পেরেরা।

ব্যাট করতে নেমে দুই ওপেনার কুশল পেরেরা আর ধানুষ্কা গুনাথিলাকার ব্যাটে দারুণ শুরুর পর দলীয় ৮২ রানের মাথায় গুনাথিলাকাকে ৩৯ (৩৩( রানে ফিরিয়ে জুটি ভাঙ্গেন তাসকিন আহমেদ।

এরপর তো কুশল পেরেরার দুর্দান্ত ব্যাটিং। তুলে নেন ক্যারিয়ারের ষষ্ঠ শতক। তবে তাসকিন আহমেদের বোলিং তোপে ভুগতে হয়েছে লঙ্কান ব্যাটারদের।

কুশল পেরেরার ১২০ (১২২) রানের ইনিংসের সঙ্গে ধানাঞ্জায়া ডি সিলভার অপরাজিত ৫৫ (৭০) রানে ভর করে লঙ্কানদের সংগ্রহ ৬ উইকেটে ২৮৬ রান।

বাংলাদেশের পক্ষে তাসকিন নেন ৪ উইকেট। এছাড়া শরিফুল নেন ১টি উইকেট।

রান আউট হয়ে ফিরলেন ডিকওয়েলা

লঙ্কানদের বড় সংগ্রহের পথটা কঠিন করে দিলেন সাকিব আল হাসানের শেষ ওভার। তার আগে শতক হাঁকানো কুশল পেরেরাকে ১২০ রানে আঁটকে দেন শরিফুল ইসলাম। দলীয় ২৩১ রানের মাথায় ৭ (৯) রান করে ফিরেছেন সিরিজে প্রথম ম্যাচ খেলা ডিকওয়েলা।

Shoriful Islam celebrates a wicket, Bangladesh vs Sri Lanka, 2nd ODI, Dhaka, May 25, 2021

সেঞ্চুরিয়ান পেরেরাকে ফেরালেন শরিফুল

অবশেষে ফেরানো গেল কুশল পেরেরাকে। দলের ভিত গড়ে দিয়েছেন শতক হাঁকিয়ে। যদিও তার শতক পূর্ণ করার আগে জীবন পেয়েছেন তিনবার। সবশেষ ৯৯ রানের মাথায়ও জীবন পান মাহমুদউল্লাহ রিয়াদের হাত থেকে সহজ ক্যাচ ফসকে যাওয়ায়। শেষ পর্যন্ত মিড অফে থাকা সেই মাহমুদউল্লাহ’র হাতেই ক্যাচ দিয়ে ফিরেছেন ১২০ (১২২) রান করে।

তার বিদায়ে লঙ্কানদের সংগ্রহ ৪০ ওভার শেষে ৪ উইকেটে ২১৭ রান।

তিনবার জীবন পেয়ে পেরেরার সেঞ্চুরি

ক্যারিয়ারের ষষ্ঠ শতক পূর্ণ করেছেন কুশল পেরেরা। লঙ্কান অধিনায়কের ব্যাটে ভর করে বড় সংগ্রহের পথে সফরকারীরা। ব্যাক্তিগত ৭৯ রানের মাথায় লং অফে ক্যাচ তুললেও আফিফ হোসেনের হাত ফসকে জীবন পান পেরেরা। ৯৯ রানের মাথায় মাহমুদউল্লাহর হাত থেকে ফসকে যায় সহজ ক্যাচ। শেষ পর্যন্ত মোস্তাফিজের ওভারের শেষ বলে সেঞ্চুরি।

লঙ্কানদের সংগ্রহ ৩২ ওভার শেষে ৩ উইকেটে ১৭৭ রান।

মেন্ডিসকে ফেরালেন তাসকিন, পেরেরার ব্যাটে চাপে বাংলাদেশ

ব্যাটিংয়ের শুরু থেকেই বাংলাদেশ বোলারদের চাপে রেখেছেন লঙ্কান অধিনায়ক কুশল পেরেরা। প্রথমে ধানুষ্কা গুনাথিলাকাকে নিয়ে ওপেনিংয়ে ৮২ রানের জুটি গড়ার পর কুশল মেন্ডিসের সঙ্গে জুটি গড়ে তুলে নেন ১৫তম অর্ধশতক।

তবে তার ৭৯ রানের মাথায় লং অফে ক্যাচ তুললেও আফিফ হোসেনের চেষ্টা বৃথা যায়। ৮০ রান পূর্ণ করে ছুটছেন শতকের পথে।

লঙ্কানদের সংগ্রহ ২৫.৩ ওভার শেষে ৩ উইকেটে ১৫১ রান। তবে ২২ রান করা কুশল মেন্ডিসকে ২৫.২ ওভারের মাথায় ফেরান তাসকিন।

তাসকিনের জোড়া শিকার

লঙ্কান দুই ওপেনারের দুর্দান্ত শুরুর পর এক ওভারে দুই উইকেট নিয়েছেন তাসকিন আহমেদ। ১১.২ ওভারের সময় ওপেনার ধানুষ্কা গুনাথিলাকাকে ৩৯ (৩৩) রানে বোল্ড করে ফেরানোর পর একই ওভারের শেষ বলে পান্থুম নিষাঙ্কাকে ফেরান রানের খাতা খোলার আগেই।

লঙ্কানদের সংগ্রহ ১৬ ওভার শেষে ২ উইকেটে ১০১ রান। ৫৫ রানে অপরাজিত আছেন কুশল পেরেরা।

দারুণ শুরু শ্রীলঙ্কার

তিন ওয়ানডের প্রথম দুই ম্যাচ হেরে সিরিজ হেরেছে শ্রীলঙ্কা। বাংলাদেশের কাছে এটিই লঙ্কানদের প্রথম সিরিজ হার। আজ তৃতীয় ম্যাচ হারলে হবে হোয়াইটওয়াশ।

লজ্জার হোয়াইটওয়াশ এড়াতে টস জিতে আগে ব্যাটিং করছে সফরকারীরা। ব্যাট করতে নেমে দারুণ শুরু করেছেন দুই ওপেনার ধানুষ্কা গুনাথিলাকা ও কুশল পেরেরা।

দশ ওভার শেষে গুনাথিলাকা ৩৮ (৩৭) ও পেরেরা অপরাজিত আছে ৩৮ (৩২) রানে।

শ্রীলঙ্কার একাদশে তিন অভিষেক

তৃতীয় ও শেষ ম্যাচে চার পরিবর্তন নিয়ে নামছে শ্রীলঙ্কা। একাদশে জায়গা পাওয়া তিন জনেরই অভিষেক ম্যাচ। রমেশ মেন্ডিস, চামিকা করুণারত্নে ও বিনুরা ফার্নান্দোর অভিষেকে বাদ পড়েছেন লাকশান সান্দাকান, ইসুরু উদানা ও আশেন বান্দারা। দাসুন সানাকার পরিবর্তে খেলছেন নিরোশন ডিকওয়েলা।

টস হেরে ফিল্ডিংয়ে বাংলাদেশ

সিরিজের তৃতীয় ও শেষ ওয়ানডেতে মাঠে নেমেছে বাংলাদেশ-শ্রীলঙ্কা। গত দুই ম্যাচ জিতে সিরিজ জিতে নেয়া বাংলাদেশের সামনে নিয়ম রক্ষার ম্যাচ হলেও ওয়ার্ল্ড কাপ সুপার লিগের পয়েন্ট তালিকায় শীর্ষে থাকতে গুরুত্বপূর্ণ ম্যাচ।

দুপুরে টসের আগে ঝিরিঝিরি বৃষ্টি হলেও ১০ মিনিট পরে টস হয়েছে। গত দুই ম্যাচে বাংলাদেশ টস জিতে ব্যাটিং নিলেও শেষ ম্যাচে এসে টস হেরেছে। লঙ্কানরা টস জিতে সিদ্ধান্ত নিয়েছে ব্যাটিংয়ের।

একাদশে জায়গা হয়নি ওপেনার লিটন দাসের। তার পরিবর্তে দলে নেয়া হয়েছে নাঈম শেখকে।

বাংলাদেশ একাদশ : তামিম ইকবাল (অধিনায়ক), নাইম শেখ, সাকিব আল হাসান, মুশফিকুর রহীম (উইকেটরক্ষক), মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ, আফিফ হোসেন ধ্রুব, মোসাদ্দেক হোসেন সৈকত, মেহেদি হাসান মিরাজ, তাসকিন আহমেদ, শরিফুল ইসলাম ও মোস্তাফিজুর রহমান।

শ্রীলঙ্কা একাদশ : দানুশকা গুনাথিলাকা, কুশল পেরেরা (অধিনায়ক ও উইকেটরক্ষক), কুশল মেন্ডিস, পাথুম নিসাঙ্কা, নিরোশান ডিকভেলা, ধনঞ্জয় ডি সিলভা, রমেশ মেন্ডিস, বিনুরা ফার্নান্দো, চামিকা করুনারান্তে, ভানিন্দু হাসারাঙ্গা, ও দুশমন্থ চামিরা।

এমআর/

মন্তব্য করুন

RTV Drama
RTVPLUS