logo
  • ঢাকা সোমবার, ১৮ জানুয়ারি ২০২১, ৪ মাঘ ১৪২৭

দয়া করে ব্যাপারটা নিয়ে কিছু লিখবেন না: নাসুম

Mushfiqur Rahim, nasum ahmed, BAN, T-20, Bangabondhu T-20, Rajshahi, Dhaka, rtvnews, rtvnews
ছবি- সংগৃহীত
মুশফিকুর রহিমের সঙ্গে হয়ে যাওয়া অনাকাঙ্ক্ষিত ঘটনাটি নিয়ে কিছু না লিখতে আহ্বান জানিয়েছেন নাসুম আহমেদ। 

বঙ্গবন্ধু টি-টোয়েন্টি কাপে দুইজনই খেলছেন বেক্সিমকো ঢাকার জার্সিতে।

সোমবার রাতে এলিমিনেটর ম্যাচে তাদের প্রতিপক্ষ ছিল ফরচুন বরিশাল। শেরে বাংলা জাতীয় স্টেডিয়ামে ১৩ ও ১৭তম ওভারে পর পর দুইবার স্পিনার নাসুমকে মারতে যান অধিনায়ক মুশফিক।  

ওই দুই ঘটনার ছবি/ভিডিও সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ভাইরাল হয়। দেশি গণমাধ্যমের পাশাপাশি বিদেশি গণমাধ্যমেও প্রকাশ পেয়েছে ঘটনাটি।

মঙ্গলবার সকালে অবশ্য বিষয়টি নিয়ে ক্ষমা চেয়ে নেন মুশফিক।

ফেসবুকে অভিজ্ঞ এই ক্রিকেটার বলেন, ‘আসসালামু আলাইকুম। গতকালের ম্যাচ চলাকালীন অনাকাঙ্ক্ষিত ঘটনার জন্য আনুষ্ঠানিকভাবে আমি আমার ভক্ত-সমর্থকদের কাছে ক্ষমা চাচ্ছি। সতীর্থ নাসুমের কাছে খেলার পরেই ক্ষমা চেয়েছি। সর্ব শক্তিমান আল্লাহর কাছেও ক্ষমা প্রার্থনা করেছি। আমি সব সময় মনে রাখি যে আমি একজন সর্বোপরি একজন মানুষ। আমার আচরণ মোটেই গ্রহণযোগ্য ছিল না। কথা দিচ্ছি, ইনশাল্লাহ আগামীতে মাঠে অথবা বাইরে এমনটা আর হবে না। জাজাকআল্লাহ খায়ের।’

এদিন সন্ধ্যায় দ্বিতীয় কোয়ালিফায়ার ম্যাচে ঢাকার প্রতিপক্ষ গাজী গ্রুপ চট্টগ্রাম। এই ম্যাচে জয় পেলেই ফাইনালে পৌঁছে যাবে মুশফিক-নাসুমের দল। যেখানে তাদের অপেক্ষা করছে জেমকন খুলনা। দুপুরে নাসুম নিজ ফেসবুকে একটি পোস্ট দেন। সবাই বিষয়টি নিয়ে আর না লিখতে আহ্বান জানান তিনি।

নাসুমের দেয়া পোস্টটি তুলে ধরা হলো  

‘আসসালামু আলাইকুম। আশাকরি সবাই ভালো আছেন। আমিও আলহামদুলিল্লাহ ভালো আছি। গতকাল ম্যাচের পর থেকে আমাকে আর মুশফিক ভাইকে নিয়ে আপনারা অনেকে যেগুলো লিখছেন এগুলো একদমই কাম্য নয়। টিভি সেটে যা দেখেছেন এগুলো মাঠে হতেই পারে। গতকালকে আমাদের মিস এফোর্টের মাত্রাটা একটু বেশিই ছিল। গতকাল ম্যাচে পার্টিকুলারলি আমি মনে হচ্ছে এফোর্টলেস ছিলাম। মুশফিক ভাই অনেক সিরিয়াস ও ডেডিকেটেড ছিলেন ম্যাচে এবং আমার প্রতি এক্সপেকটেশনটাও বেশি ছিল টিমের। যাই হোক, মাঠের বিষয় আমরা মাঠেই শেষ করে নেই। আর মুশফিক ভাইয়ের সঙ্গে আমার মাঠের বাইরের বন্ডিংটাও অনেক ভালো। এমনকি এই টুর্নামেন্টে উনি আমাকে ইন্ডিভিজুয়ালি প্রচুর সময় দিয়েছেন কিভাবে ভালো করা যায় এবং দুর্বল দিকগুলা দ্রুত কাটিয়ে উঠা যায় এসব ব্যাপারে। আমাদের মধ্যে কোনও সিরিয়াস কিছু হয়নি। ম্যাচের পর ড্রেসিংরুমে এবং টিম হোটেলে তার সঙ্গে অনেকবার কথা হয়েছে। তাছাড়া আমার বড় ভাইয়ের মতো। তাই বড় ভাই এবং অধিনায়ক হিসেবে শাসন করতেই পারেন। দয়া করে আমাদের এই ব্যাপারটা নিয়ে আর কিছু লিখবেন না। আজ আমাদের গুরুত্বপূর্ণ খেলা আছে। সবাই দোয়া করবেন। জাজাকাল্লাহু খাইরান।’

ওয়াই

RTV Drama
RTVPLUS