logo
  • ঢাকা সোমবার, ১৮ জানুয়ারি ২০২১, ৪ মাঘ ১৪২৭

বঙ্গবন্ধু টি-টোয়েন্টি কাপ

‘চ্যাম্পিয়ন হতে হলে ম্যাচ জিততে হবে’

'Match must be won to be champion'
রোববার অনুশীলনের ফাঁকে মাশরাফীর সঙ্গে কথা বলে নিচ্ছেন খালেদ মাহমুদ
লিগ পর্ব শেষ হয়েছে বঙ্গবন্ধু টি-টোয়েন্টি কাপের। তিন নম্বর দল হিসেবে প্লে-অফে জায়গা করে নিয়েছে বেক্সিমকো ঢাকা। যদিও প্লে-অফে যেতে মসৃণ ছিল না পথটা।

টুর্নামেন্টের শুরুতে টানা তিন ম্যাচে হেরে যায় মুশফিকুর রহিমের দল। এরপর অবশ্য টানা চার ম্যাচে জয় তুলে নেয়। তবে লিগের সবশেষ ম্যাচে ফরচুন বরিশালের কাছে হেরে যায় ঢাকা।

এই ম্যাচটায় জিতে গেলে প্রথম কোয়ালিফায়ারের ম্যাচটা খেলতে পারতো ঢাকা। যেহেতু সেটা হয়নি এ নিয়ে আফসোস নেই ঢাকার কোচ খালেদ মাহমুদ সুজনের। রোববার অনুশীলনের সময় গণমাধ্যমের সঙ্গে এমনটা জানান তিনি।

‘যদি আর দুইটা রান করতে পারতাম তাহলে হয়ত বা কোয়ালিফায়ারে খেলতাম। কিন্তু কোয়ালিফায়ারে খেললেও আপনাকে ম্যাচ জিততে হবে, ফাইনালে যেতে হবে, চ্যাম্পিয়ন হতে হলে আবার ম্যাচ জিততে হবে। আমরা গত কালকে জিততে পারলে ১৫ তারিখ আবার খেলতে পারব ঐ একইভাবে প্রথম না হলে দ্বিতীয় কোয়ালিফায়ারটা তো খেলতে পারব।’

প্রথম তিন ম্যাচে হেরে পরের টানা চার জয়ে ঘুরে দাঁড়ানোটা আত্মবিশ্বাস যোগাচ্ছে খালেদ মাহমুদ সুজনকে। সেসব ভুলে এবার সামনের ম্যাচগুলো জিততে চান ঢাকাই কোচ।

‘প্রথম তিন ম্যাচ হারার পর যেভাবে কাম ব্যাক করেছি সেখানে আমি মনে করি টিমের কনফিডেন্সের আর কোন সমস্যা নেই। আমরা ছোট ছোট যেসব ভুলগুলো করেছি ওগুলা থেকে বের হয়ে এসে বরিশালের বিপক্ষে ম্যাচটা অনেক গুরুত্বপূর্ণ।’

এলিমিনেটরে ঢাকার প্রতিপক্ষ বরিশালের সঙ্গে লিগ পর্বে এক ম্যাচে জয়, এক ম্যাচে হেরেছিল ঢাকা। তবে এই ম্যাচে ছেড়ে কথা বলবে না, তাই নতুন করে পরিকল্পনা সাজাচ্ছে  ঢাকা।

‘আমরা তো বরিশালের সঙ্গে এর আগেও দুইবার খেলেছি একবার জিতেছি একবার হেরেছি তারা খুবই ভালো একটি দল। সবচেয়ে বড় কথা আমরা আবারও তাদের সঙ্গে খেলব তাই, এবার আমাদের পরিকল্পনা সাজাতে হয়ত আরো বেশি সুবিধা হবে।’

সোমবার দুপুর সাড়ে ১২টায় বরিশাল-ঢাকার ম্যাচটি অনুষ্ঠিত হবে মিরপুর শের ই বাংলা স্টেডিয়ামে।

এমআর/

RTV Drama
RTVPLUS