logo
  • ঢাকা রোববার, ০৬ ডিসেম্বর ২০২০, ২১ অগ্রহায়ণ ১৪২৭

স্পোর্টস ডেস্ক, আরটিভি নিউজ

  ২১ অক্টোবর ২০২০, ১৮:৪০
আপডেট : ২১ অক্টোবর ২০২০, ২২:৩৩

ন্যায়বিচার নিয়ে কথা বলবোই, আর্সেনাল থেকে বাদ পড়ে ওজিল

mesut ozil pray arsenal
মেসুত ওজিল
আগামী ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত প্রিমিয়ার লিগে খেলার জন্য আর্সেনালের ২৫ সদস্যের দলে নেই মেসুত ওজিলের নাম। লিগের নিয়ম অনুযায়ী, শীতকালীন দলবদলের মৌসুম শেষ হওয়া পর্যন্ত ২৫ ফুটবলারের তালিকা দিতে হয়। ওই তালিকায় থেকে বাদ দেয়া হয়েছে জার্মানির হয়ে বিশ্বকাপ জয়ী এই তারকাকে।

ঘটনার মূলে গেল বছরের শেষ দিকে ইনস্টাগ্রামের একটি পোস্ট। যেখানে ৩২ বছর বয়সী ওজিল চীনের উইঘুর মুসলিম নির্যাতন নিয়ে প্রতিবাদ করেছিলেন তিনি।

উইঘুরে নির্যাতিত মুসলমানদের রক্ষায় মুসলিম বিশ্ব কেনো এগিয়ে আসছে না, তাই হতাশা ও ক্ষোভ প্রকাশ করেছিলেন রিয়াল মাদ্রিদের সাবেক তারকা মিডফিল্ডার।

এরপরই চীনে থাকা আর্সেনাল সমর্থকরা তুর্কী বংশোদ্ভূত ওজিলকে বয়কটের ঘোষণা দিয়েছিলেন। এনিয়ে আন্দোলনও করা হয়েছিল সেসময়।

যদিও আর্সেনাল কর্তৃপক্ষ সাফ জানিয়ে দিয়েছিল, এটি ওজিলের ব্যক্তিগত মন্তব্য। এতে ক্লাবের কোনও সম্পৃক্ততা নেই। এরপর থেকে দলে অনিয়মিত হয়ে পড়েন ওজিল। সবশেষ মার্চে নেমেছিলেন গানারদের জার্সিতে।

এদিকে নতুন মৌসুমে ওজিলকে বাদ দেয়ার কথা জানিয়ে সংবাদ মাধ্যমে কথা বলেছেন আর্সেনাল কোচ মাইকেল আর্তেতা। 

তিনি বলেন, ‘দলের সিনিয়র ফুটবলারকে বাদ দেয়া আমার জন্য কঠিন কাজ ছিল। কিন্তু ক্লাবের সিদ্ধান্তের প্রতি সম্মান দেখাতে হবে।’

এমন পরিস্থিতিতে খোলা চিঠি লিখেছেন ওজিল। বুধবার ইনস্টাগ্রামে জানিয়ে দিয়েছেন দল থেকে বাদ দিলেও তার মুখ বন্ধ করা যাবে না।

মেসুত ওজিলের চিঠিটি তুলে ধরা হলো

‘আর্সেনাল সমর্থকদের কাছে এমন বার্তা দেয়াটা আমার জন্য খুব কঠিন একটি কাজ। আমি দলটির জন্য বেশ কয়েক বছর ধরে খেলছি। এই মৌসুমে দলের হয়ে আমাকে খেলার সুযোগ দেয়া হয়নি। যা খু্বই দুঃখজনক। ২০১৮ সালের হওয়া নতুন চুক্তি অনুযায়ী আমি আমার আমার সেরাটাই দিচ্ছিলাম। বার বার প্রমাণ করেছি দলকে আমি কতটা ভালোবাসি। তবে দুঃখজনক হলেও সত্য, আনুগত্যের প্রতিদান হিসেবে আমাকে দল থেকেই বাদ দেয়া হয়েছে। আমি মনে করি বর্তমান সময়ে বিশ্বস্ততা একটি দুষ্প্রাপ্য বিষয়।

দিনের পর দিন দলে ফেরা নিয়ে আমি ইতিবাচক চিন্তাই করতাম। তবে আর্সেনালের হয়ে আর খেলার মতো অবস্থা আমার নেই। আমি কি বলতে পারি? এখনও লন্ডন আমার ঘরের মতোই। শহরে আর দলে এখনও অনেক ভালো বন্ধু রয়েছে আমার। ক্লাবের সমর্থকদের সঙ্গেও খু্ব ভালো সম্পর্ক বিদ্যমান।

যেটাই হোক আর্সেনালের হয়ে খেলার জন্য আমি লড়াই চালিয়ে যাবো। এখানে নিজের অষ্টম মৌসুম এভাবে নষ্ট হতে দিবো না। আমি অঙ্গীকার করছি। এমন কঠিন সিদ্ধান্ত আমার মানসিকতায় কোনও পরিবর্তন আসবে না। সেরাটা দেয়ার জন্য কঠোর অনুশীলন চালিয়ে যাবো। যখনই সুযোগ পাবো অমানবিকতার বিরুদ্ধে ও ন্যায়বিচার প্রতিষ্ঠায় কথা বলবোই।’

ওয়াই

RTVPLUS