Mir cement
logo
  • ঢাকা বৃহস্পতিবার, ২৭ জানুয়ারি ২০২২, ১৩ মাঘ ১৪২৮
discover

তিন মাস পর প্রকাশ্যে এলো হারিছ চৌধুরীর মৃত্যুর খবর

তিন মাস পর প্রকাশ্যে এলো হারিছ চৌধুরীর মৃত্যুর খবর
হারিছ চৌধুরী

সাবেক প্রধানমন্ত্রী খালেদা জিয়ার রাজনৈতিক সচিব ও ২১ আগস্ট গ্রেনেড হামলা মামলায় যাবজ্জীবন সাজাপ্রাপ্ত আসামি হারিছ চৌধুরী প্রায় সাড়ে তিন মাস আগে লন্ডনের একটি হাসপাতালে মারা গেছেন বলে জানিয়েছেন তার চাচাতো ভাই। তিনি করোনায় আক্রান্ত ছিলেন।

তিনি আগে থেকেই ব্লাড ক্যানসার ও অন্যান্য জটিলতায় ভুগছিলেন।

মঙ্গলবার (১১ জানুয়ারি) রাতে হারিছ চৌধুরীর চাচাতো ভাই সিলেট জেলা বিএনপির সহসভাপতি আশিক চৌধুরী মৃত্যুর খবরটি নিশ্চিত করেন। তিনি বলেন, প্রায় সাড়ে তিন মাস আগে তার মৃত্যু হয়। পরিবারের সদস্যরা এতদিন সংবাদটি গোপন রেখেছিলেন।

আশিক উদ্দিন চৌধুরী মঙ্গলবার রাতে তার ফেসবুকে একটি স্ট্যাটাস দেন।এরপর বিষয়টি জানাজানি হয়। তিনি তার ফেসবুক আইডিতে হারিছ চৌধুরী ও তার ছবি সংযুক্ত করে লেখেন, ‘ভাই বড় ধন, রক্তের বাঁধন’।

এরপর থেকে বিএনপির অঙ্গসংগঠনের নেতাকর্মীসহ অনেকেই ‘ইন্না লিল্লাহি ... রাজিউন’ লিখে কমেন্ট দিতে থাকেন। তারপর হারিছ চৌধুরীর মৃত্যুর বিষয়টি নিয়ে আলোচনায় আসতে থাকে।

বিএনপির সাবেক এমপি ওয়াদুদ ভূঁইয়া বলেন, আমরা জেনেছি হারিছ চৌধুরী সাহেব মারা গেছেন। একটা মানুষ মারা গেছেন সে তথ্যও প্রকাশ করতে পারছি না আমরা। তিন মাস আগে তিনি মারা গেলেন আর এখনও সেটা প্রকাশ করতে ভয় পেতে হচ্ছে পরিবারকে।

এদিকে হারিছ চৌধুরীর ছোট ভাই কামাল চৌধুরীর শ্যালক ও হারিছ চৌধুরীর মৃত্যুর বিষয় নিশ্চিত করে বলেন, তিনি লন্ডনে মারা গেছেন।

হারিছ চৌধুরীর ছোট ভাই কামাল চৌধুরীর শ্যালক মইনুল হক বুলবুল বলেন, হারিছ চৌধুরী সাহেব তিন মাস আগে লন্ডনে মারা গেছেন। নানান কারণে পরিবারের পক্ষ থেকে তার মৃত্যুর বিষয়টি প্রকাশ করা হয়নি।

তিনি বলেন, গত অক্টোবর মাসে হারিছ চৌধুরী চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান। মারা যাওয়ার সংবাদ দেশে ও বিদেশে অবস্থানরত আত্মীয়-স্বজনদের তার মৃত্যুর বিষিয়টি গোপন রাখতে বলা হয় পরিবারের পক্ষ থেকে। এ জন্য কেউ বিষয়টি নিয়ে মুখ খোলেনি।

২০০৪ সালের ২১ আগস্ট গ্রেনেড হামলা মামলায় ২০১৮ সালের ১০ অক্টোবর যাবজ্জীবন সাজা হয় হারিছ চৌধুরীর। একই বছরের ২৯ অক্টোবর জিয়া চ্যারিটেবল ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলায় হারিছ চৌধুরীর ৭ বছরের কারাদণ্ড ও ১০ লাখ টাকা জরিমানা হয়। সাবেক অর্থমন্ত্রী শাহ এ এম এস কিবরিয়া হত্যা মামলারও আসামি ছিলেন তিনি।

এমএন/টিআই

মন্তব্য করুন

RTV Drama
RTVPLUS