logo
  • ঢাকা রবিবার, ২০ অক্টোবর ২০১৯, ৪ কার্তিক ১৪২৬

শোভন-রাব্বানীর নামে কেন চাঁদাবাজির মামলা হলো না, প্রশ্ন ছাত্র ইউনিয়ন সভাপতির

আরটিভি অনলাইন রিপোর্ট
|  ১৭ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ২২:২২ | আপডেট : ১৭ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ২২:৫০
ছাত্র ইউনিয়ন
ছাত্র ইউনিয়ন সভাপতি মেহেদী হাসান নোবেল
চাঁদাবাজির অভিযোগ প্রমাণিত হয়েছে বলেই ছাত্রলীগের দুই শীর্ষ নেতা শোভন-রাব্বানীকে পদচ্যুত করেছেন প্রধানমন্ত্রী। কিন্তু তাদের বহিষ্কার করা হয়নি। কেন মামলা হলো না? কোরবানি ঈদ সেলামির নামে কোটি টাকা চাঁদাবাজি করা হলেও কেন জেলখানায় নেয়া হচ্ছে না? এভাবেই প্রশাসনের কাছে প্রশ্ন করলেন ছাত্র ইউনিয়ন সভাপতি মেহেদী হাসান নোবেল।  

মঙ্গলবার (১৭ সেপ্টেম্বর) ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের বটতলায় ৫৭তম শিক্ষা দিবস উপলক্ষে ছাত্র ইউনিয়ন আয়োজিত ছাত্র সমাবেশে তিনি এ মন্তব্য করেন।  

মেহেদী হাসান নোবেল বলেন, ছাত্রলীগের বন্ধুরা বলেন, ছাত্রলীগের ইতিহাস বাংলাদেশের ইতিহাস। কিন্তু অনুরোধ করবো, বাংলাদেশের ইতিহাস এত কলঙ্কিত করবেন না। আপনারা চাঁদাবাজি, খুন, ধর্ষণের ইতিহাস গড়েছেন। সেগুলো বাংলাদেশের ইতিহাস হতে পারে না। 

তিনি বলেন, স্বাধীন দেশে এখনও সবার জন্য শিক্ষা নিশ্চিত করতে পারিনি রাষ্ট্র। কারণ, বাজেটে বরাদ্দ বাড়াইনা সরকার। এই বছর শুভঙ্করের ফাঁকি দেয়া হয়েছে। শিক্ষা  বাজেটে প্রযুক্তি খাতও যুক্ত করে বড় শিক্ষা বাজেট দেয়া হয়েছে। তিনি বলেন, মোট বাজেটের ২৫ শতাংশ, এবং জিডিপির ৮ শতাংশ শিক্ষাখাতে বরাদ্দ না দিলে উন্নতি করা সম্ভব না। 

তিনি আরও বলেন, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় এখন এক বেলা প্রাইভেট এক পাবলিক। এভাবে একটি পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয় চলতে পারে না।  

সমাবেশে বক্তব্য রাখেন সিপিবির সাবেক সভাপতি মঞ্জুরুল আহসান খান, জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক এবং তেল-গ্যাস খনিজ সম্পদ ও বিদ্যুৎ বন্দর রক্ষা জাতীয় কমিটির সদস্য সচিব অধ্যাপক আনু মুহাম্মদ, বাংলাদেশ ছাত্র ইউনিয়নের কেন্দ্রীয় সভাপতি মেহেদী হাসান নোবেল ও সাধারণ সম্পাদক অনিক রায়। 

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্র ইউনিয়নের সভাপতি ও ঢাকা বিভাগীয় সমন্বয়ক মো. ফয়েজ উল্লাহ সভাপতিত্বে সমাবেশে আরও বক্তব্য রাখেন ঢাকা মহানগর সভাপতি জহর লাল রায়, ঢাকা জেলা সভাপতি আরিফুল ইসলাম সাব্বির, ঢাবি সাধারণ সম্পাদক রাগীব নাঈম, নারায়ণগঞ্জ জেলা সভাপতি সুমাইয়া সেতু। 

সমাবেশে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়, জাহাঙ্গীরনগর, জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়, ঢাকা মহানগর, ঢাকা জেলার বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠান থেকে শিক্ষার্থীরা অংশ নেন।  

এসজে

  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়