logo
  • ঢাকা সোমবার, ১৬ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ১ আশ্বিন ১৪২৬

পরাজিত শত্রুরা জাতির পিতাকে হত্যা করে: গণপূর্তমন্ত্রী

পিরোজপুর প্রতিনিধি
|  ৩১ আগস্ট ২০১৯, ২০:১০ | আপডেট : ৩১ আগস্ট ২০১৯, ২০:১৩
স্বাধীনতার পরাজিত শত্রু
গৃহায়ণ ও গণপূর্তমন্ত্রী শ ম রেজাউল করিম বলেছেন, ৭৫ সালের ১৫ আগস্ট স্বাধীনতার পরাজিত শত্রুরা জাতির পিতাকে হত্যা করেছিল। আর এ হত্যার প্রধান কারণ ছিল আন্তর্জাতিক চক্র। জিয়াউর রহমান ১৯৭৯ সলের ৬ এপ্রিল অবৈধভাবে ক্ষমতা দখল করে বঙ্গবন্ধু হত্যার বিচার যাতে না হয়, সে জন্য আইন করেছিলেন। আল্লাহর কি নির্মম বিচার, তিনিও ঘাতকের হাতে নিহত হন।

বঙ্গবন্ধুর ৪৪তম শাহাদাতবার্ষিকী উপলক্ষে শনিবার বিকেলে নাজিরপুর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ আয়োজিত আলোচনা সভা ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ সব কথা বলেন।

তিনি আরও বলেন, প্রধানমন্ত্রী ও তার পরিবার কোনো দুর্নীতি করেন না। তিনি দুর্নীতিকে জিরো টলারেন্স করেন। তার পরিবার কখনো কোনো অবৈধ তদবির করেন না। খালেদা জিয়া ও তার পরিবার দুর্নীতির দায়ে আজ দণ্ডপ্রাপ্ত হয়ে কারাভোগ করছেন।

এ সময় তিনি নেতাকর্মীদের উদ্দেশ্যে বলেন, কোনোরকম গ্রুপিং করবেন না। আমাকে নিয়ে কারো স্লোগান দিতে হবে না। দলের স্লোগান দিবেন। তবেই হবে সংগঠন মজবুত। বঙ্গবন্ধু ও শেখ হাসিনার সংগঠন করতে কারো তেল মাখবেন না।

ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি মো. সাইফুদ্দিন বাদশার সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে আরও বক্তব্য রাখেন জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট হাকিম হাওলাদার, পিরোজপুরের পৌর মেয়র মো. হাবিবুর রহমান মালেক, সিনিয়র সহসভাপতি মো. শাহজাহান খান তালুকদার, নাজিরপুর উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান অমূল্যরঞ্জন হালদার, জেলা আওয়ামী লীগের সহসাধারণ সম্পাদক ও জেলা যুবলীগের সভাপতি মো. আক্তারুজ্জামান ফুলু, উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মো. মোশারেফ হোসেন খান, কৃষকলীগের কেন্দ্রীয় নেতা মো. আতিয়ার রহমান চৌধুরী নান্নু, উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান মোস্তাফিজুর রহমান রঞ্জু, উপজেলা যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক চঞ্চলকান্তি বিশ্বাস, ছাত্রলীগ সভাপতি মো. তরিকুল  ইসলাম চৌধুরী তাপস প্রমুখ।

এর আগে মন্ত্রী শনিবার সকালে উপজেলার ৮টি মন্দির সংস্কারের জন্য অনুদানের চেক বিতরণ করেন। ধর্ম বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের অধীনে হিন্দু ধর্মীয় কল্যাণ ট্রাস্টের উদ্যোগে এ চেক বিতরণ করা হয়। এসময় উপজেলার ৮টি মন্দিরে ৮৫ হাজার টাকার চেক বিতরণ করা হয়।

উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান অমূল্যরঞ্জন হালদারের সভাপতিত্বে উপজেলা পাবলিক লাইব্রেরি মিলনায়তনে অনুষ্ঠিত চেক বিতরণ অনুষ্ঠানে আরো বক্তব্য রাখেন জেলা প্রশাসক আবু আলী মো. সাজ্জাদ হোসেন, পুলিশ সুপার মো. হায়াতুল ইসলাম খান, হিন্দু ধর্মীয় কল্যাণ ট্রাস্টের ট্রাস্টি অধ্যক্ষ বিপুল বিহারী হালদার।

পরে মন্ত্রী দরিদ্র পরিবারের মাঝে বাংলাদেশ জাতীয় সমাজকল্যাণ পরিষদের অনুদানের চেক বিতরণ করেন। এ সময় ২০ জনকে ৬ হাজার টাকা করে মোট ১ লাখ ২০ হাজার টাকার চেক বিতরণ করেন।

এ সময় অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন পিরোজপুর এলজিইডির নির্বাহী প্রকৌশলী সুশান্ত কুমার সাহা, পিরোজপুর গণপূর্ত বিভাগের নির্বাহী প্রকৌশলী বিশ্বনাথ বণিক, উপজেলা নির্বাহী অফিসার রোজি আক্তার প্রমুখ।

পি

  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়