logo
  • ঢাকা মঙ্গলবার, ১২ নভেম্বর ২০১৯, ২৮ কার্তিক ১৪২৬

সিন্ডিকেটের জালে আটকে আছে ছাত্রদলের কমিটি (ভিডিও)

মাইদুর রহমান রুবেল আরটিভি
|  ২২ জুন ২০১৯, ১৪:২৬ | আপডেট : ২২ জুন ২০১৯, ১৬:৫২
ছাত্রদের হাতে সংগঠনটির দায়িত্ব তুলে দিতে গিয়ে বেশ বিপাকে বিএনপি। পুরনো কমিটি বিলুপ্ত করলেও আন্দোলনের মুখে নতুন কমিটি দেয়ার সাহস পাচ্ছে না দলটি। বিক্ষুব্ধ ছাত্রনেতাদের আন্দোলনের মুখে কেন্দ্রে দফায় দফায় বৈঠক হলেও পৌঁছানো যায়নি সমাধানে।

বয়সসীমা তুলে নেয়ার দাবিতে বিক্ষোভের পাশাপাশি দলীয় কার্যালয়ে তালাও ঝুলিয়েছে ছাত্রদলের বয়স্ক নেতারা। দাবি আদায় না হওয়া পর্যন্ত আন্দোলন চালিয়ে যাবার হুমকিও দেন তারা। যদিও গয়েস্বর চন্দ্র রায় বলেছেন, ছাত্র নয় এমন কাউকে আর ছাত্রদলে রাখতে চায় না বিএনপি।

আন্দোলনে গতি বাড়াতে সম্প্রতি ছাত্রদলের ৫ বছরের পুরনো কমিটি বিলুপ্ত করে বিএনপি। ২০০০ সালের আগে এসএসসি পাস করেছে এমন কেউ স্থান পাবে না ছাত্রদলে। এমন ঘোষণার পরই ক্ষোভে ফেটে পড়ে সংগঠনটির বয়স্ক নেতারা।

বিক্ষোভরত নেতাদের অভিযোগ- একটি সিন্ডিকেট নিজেদের পছন্দের লোকদের কাঁধে দায়িত্ব দেয়ার জন্যই টালবাহানা করছে। ঈদের পর থেকে বিরতি দিয়ে নয়াপল্টনে কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের সামনে বিক্ষোভ করছে বয়স্ক ছাত্রনেতারা। আন্দোলনের নেতৃত্ব দিচ্ছেন বিলুপ্ত কমিটির ভাইস প্রেসিডেন্ট এজমল হোসেন পাইলট। তিনি বলেন, লন্ডনে অবস্থানরত বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমানকে ভুল বুঝিয়ে কমিটি গঠন নিয়ে ধুম্রজাল সৃষ্টি করছে বিএনপির একটি মহল।

ছাত্রদলের বিলুপ্ত কমিটির ভাইস প্রেসিডেন্ট ইকতিয়ার আহমেদ কবির ক্ষোভ প্রকাশ করে আরটিভিকে বললেন, পবিত্র ঈদ-উল ফিতরের আগের দিন ৪ জুন আমাদের কমিটি বিলুপ্ত করে দিয়েছে। এটা আমাদের কাছে মোটেও ভালো মনে হয়নি। ২০০০ সালের এসএসসি পাস করা ছাত্রদের বয়স ৩৬ বছর তবে ৩৭/৩৮ বছরের ছাত্রদের নিতে কী সমস্যা তা বুঝতে পারছি না।

বিরতি দিয়ে নয়াপল্টনের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের সামনে সপ্তাহব্যাপী আন্দোলন করছে ছাত্রদল। এক পর্যায়ে দলীয় অফিসের প্রধানফটকে তালা ঝুলিয়ে দেয় বিক্ষোভকারীরা। ছাত্রদলের বিলুপ্ত কমিটির ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক আসাদুজ্জামান আসাদ বলেছেন, আমাদের পিঠ দেয়ালে ঠেকে গেছে, তাই বাধ্য হয়েই আন্দোলনে নেমেছি। বিএনপির জন্য অনেক ত্যাগ স্বীকার করেছি। হামলা-মামলার শিকার হয়েছি- এমন দল মূল্যায়ন না করলে কোথায় যাবো?

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রদলের সাধারণ সম্পাদক আবুল বাশার আরটিভিকে বলেন, ছাত্রদের দিয়ে ছাত্রদল করার বিষয়টিকে আমরা সাধুবাদ জানাই। কিন্তু উদ্দেশ্য প্রণোদিতভাবে আমাদের বাদ দিয়ে অন্যদের কমিটিতে অন্তর্ভুক্ত করা হলে আন্দোলনে গতির বদলে স্থবির হয়ে পড়বে।

ছাত্রদলের কমিটি গঠনের বিষয়টি গড়ায় দলের নীতিনির্ধারণী ফোরাম হয়ে লন্ডনে অবস্থান করা বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান পর্যন্ত। তবে সেখান থেকে কোনো সিদ্ধান্ত এসছে কিনা তা এখনো প্রকাশ করেনি বিএনপি।

বিগত দিনের আন্দোলন সংগ্রামে ত্যাগ স্বীকার করার দাবি করে মূল্যায়ন চায় আন্দোলনরত ছাত্রনেতারা। সম্মানজনক সমাধান না হওয়া পর্যন্ত আন্দোলনেরও হুমকি দেন তারা।

তবে বিএনপির নীতি নির্ধারকরা মনে করেন, আন্দোলনের গতি আনতে ছাত্রদের দিয়েই গঠন করা হবে ছাত্রদল। দলটির স্থায়ী কমিটির সদস্য গয়েস্বর চন্দ্র রায় বলেছেন- আন্দোলনকারীদের যৌক্তিক বিষয় বুঝতে হবে। অযৌক্তিক আন্দোলনে কোনো ফল বয়ে আনে না বলেও মনে করেন তিনি। বয়স্কদের আর কমিটিতে স্থান না দেয়ার সিদ্ধান্তে বিএনপি অনড় বলেও জানান গয়েস্বর চন্দ্র রায়।

যদিও যোগ্যতা অনুযায়ী বিলুপ্ত কমিটির নেতাদের যুবদল ও স্বেচ্ছাসেবক দলে পদ দিয়ে সমন্বয়ের দাবি জানিয়েছেন আন্দোলনকারীরা।

আগামীকাল রোববার থেকে আরো কঠোর আন্দোলনের হুমকি দিয়েছেন বয়স্ক ছাত্রনেতারা।

 

সি/

  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়