Mir cement
logo
  • ঢাকা শুক্রবার, ২৩ এপ্রিল ২০২১, ১০ বৈশাখ ১৪২৮

মোদিকে ঘিরে নয়, রাষ্ট্রকে চ্যালেঞ্জ ছুড়েছে হেফাজত: ১৪ দল

Hefazat: 14 parties have challenged the state, not Modi
ফাইল ছবি

হেফাজতের এ কর্মসূচি মোদিকে ঘিরে নয় জানিয়ে ১৪ দলের নেতাকর্মীরা বলেন, তাদের কর্মসূচি মোদিকে নিয়ে নয়। তারা বঙ্গবন্ধু ও রাষ্ট্রকে চ্যালেঞ্জ ছুড়েছে । সরকারের সমঝোতার কারণেই সাম্প্রদায়িক গোষ্ঠী বারবার বিশৃঙ্খলা তৈরি করছে। ধর্মীয় সংগঠনগুলোর বিষয়ে ভুল সিদ্ধান্ত সামনে বড় বিপদ ডেকে আনতে পারে উল্লেখ করে তারা সরকারকে সতর্ক থাকার আহ্বান জানিয়েছেন।

আজ সোমবার (২৯ মার্চ) স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী উপলক্ষে কেন্দ্রীয় ১৪ দলের আলোচনা সভায় নেতারা এ মন্তব্য করেন।

সভাপতির বক্তব্যে আমির হোসেন আমু বলেন, তারা মোদিকে ঢাল হিসেবে ব্যবহার করছে। সাম্প্রদায়িকতার আশ্রয় নিয়ে তারা বারবার দেশের শান্তি বিনষ্ট করতে চায়। এই বিষয়টাকে ছোট করে দেখার কোনো সুযোগ নেই। এই অপশক্তিকে আমাদের শক্ত হাতে দমন করতে হবে।

রাজনীতিতে আজ যেটা শুরু হয়েছে, তা অশনি সংকেত জানিয়ে আওয়ামী লীগের উপদেষ্টা পরিষদের সদস্য তোফায়েল আহমেদ বলেন, হেফাজতের মধ্যে অধিকাংশই জামায়াতের লোক। মামুনুল হকের পিতা কে? আমদের উচিত এখনই এই অপশক্তিকে দমন করা। অন্যথায় আমাদের সর্বশক্তি নিয়ে তাদের বিরুদ্ধে নামতে হবে।

আমরা মৌলবাদী রাষ্ট্র হবো না অসাম্প্রদায়িক রাষ্ট্র হবো, সেটা ভাবতে হবে উল্লেখ করে ওয়ার্কার্স পার্টির সভাপতি রাশেদ খান মেনন বলেন, হেফাজত মোদির বিরোধীতা করেনি, তারা রাষ্ট্রের বিরোধীতা করেছে। আমদের এখনই ভাবতে হবে আমরা মৌলবাদী রাষ্ট্র হবো না অসাম্প্রদায়িক রাষ্ট্র হবো।

তিনি বলেন, ‘যৌক্তিক বলে প্রমাণ করেছে বিএনপি। এদের বিষয়ে চোখ বন্ধ করে থাকার সুযোগ নেই। দৃঢ় হস্তে এদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে হবে। এদের বিরুদ্ধে ১৪ দলকে কর্মসূচিতে দিতে হবে।’

বৈঠকে ১৪ দলের নেতাদের সঙ্গে মোদির সাক্ষাৎ নিয়ে অনেক নেতা যেতে না পারায় ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন তারা। এছাড়াও দ্রব্যমূল্যের ঊর্ধ্বগতি নিয়েও আলোচনা করে ১৪ দলের নেতারা। তারা মূল্য নিয়ন্ত্রণে সরকারকে সক্রিয় হওয়ার আহ্বান জানান।

সভায় ১৪ দলের সমন্বয়ক ও আওয়ামী লীগের জ্যেষ্ঠ নেতা আমির হোসেন আমুর সভাপতিত্বে এবং আওয়ামী লীগের মুক্তিযুদ্ধ-বিষয়ক সম্পাদক মৃণাল কান্তি দাসের সঞ্চালনায় বক্তব্য দেন, আওয়ামী লীগের উপদেষ্টা পরিষদের সদস্য তোফায়েল আহমেদ, প্রেসিডিয়াম সদস্য মতিয়া চৌধুরী, ওয়ার্কার্স পার্টির সভাপতি রাশেদ খান মেনন প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

আরএস/কেএফ

RTV Drama
RTVPLUS