Mir cement
logo
  • ঢাকা বৃহস্পতিবার, ১৭ জুন ২০২১, ৩ আষাঢ় ১৪২৮

আরটিভি

  ১৪ মে ২০২১, ১৮:৪১
আপডেট : ১৪ মে ২০২১, ২১:২১

ঢাকায় দুই রোগীর শরীরে ভারতীয় ভ্যারিয়েন্ট

ঢাকায় দুই রোগীর শরীরে ভারতীয় ভ্যারিয়েন্ট শনাক্ত

ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের (ডিএনসিসি) আওতাধীন মহাখালী ডেডিকেটেড করোনা হাসপাতালে প্রাণঘাতী করোনাভাইরাসের ভারতীয় ভ্যারিয়েন্ট (ধরন) দুই জনের শরীরে শনাক্ত হয়েছে। শুক্রবার (১৪ মে) হাসপাতালটির পরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল এ কে এম নাসির গণমাধ্যমে এ তথ্য নিশ্চিত করেন।

পরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল এ কে এম নাসির বলেন, ভারত থেকে আসা দু’জনের মধ্যে আমরা ভারতীয় ভ্যারিয়েন্টের করোনা ভাইরাস পেয়েছি। নির্দেশনা মোতাবেক তাদের টেস্ট হাসপাতালে (বক্ষব্যাধি হাসপাতাল) পাঠানো হয়েছে। ভারত থেকে যারা আসছেন তাদের আমরা কঠোর নজরদারির মধ্যে রেখেছি।

তিনি বলেন, করোনাভাইরাস রোগীদের চিকিৎসা দেওয়া চ্যালেঞ্জিং। এই চ্যালেঞ্জিং নিয়ে এগিয়ে যাচ্ছি। করোনা রোগীদের নিয়ে কাজ করছি তাই প্রতি মুহূর্তেই নিজেদেরই আক্রান্ত হওয়ার আশঙ্কা রয়েছে। করোনা রোগীদের সঙ্গে কাজ করার অভিজ্ঞতা থেকে বলছি, আমাদের সবারই করোনা সম্পর্কে সচেতন হতে হবে, মাস্ক পরতে হবে এবং অন্যান্য স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলতে হবে। ভারতীয় ভ্যারিয়েন্ট যদি ছড়িয়ে পড়ে তাহলে কিন্তু পরিস্থিতি ভয়াবহ হতে পারে।

বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (ডব্লিউএইচও) বরাত দিয়ে বার্তাসংস্থা এএফপি গত বুধবার তথ্য প্রকাশ করে যে, করোনাভাইরাসের ‘ভারতীয় ভ্যারিয়েন্ট’ বিশ্বের ৪৪টি দেশে শনাক্ত হয়েছে।

ডব্লিউএইচওর সাপ্তাহিক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, করোনাভাইরাসের ভারতীয় ভ্যারিয়েন্ট বি.১.৬১৭ ডব্লিউএইচওর আওতাধীন ছয়টি অঞ্চলের ৪৪টি দেশে শনাক্ত হয়েছে। ডব্লিউএইচওর আওতাধীন ছয়টি অঞ্চলের বাইরে আরও পাঁচটি দেশেও এই ভ্যারিয়েন্ট শনাক্ত হয়েছে বলে তথ্য পাওয়া গেছে।

এএফপির প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, গত বছরের অক্টোবরে ভারতে প্রথম এই ভ্যারিয়েন্ট শনাক্ত হয়। এই ভ্যারিয়েন্টের কারণেই ভারতে বর্তমানে করোনার সংক্রমণ ও মৃত্যু বেড়েছে। ভারতের পর এই ভ্যারিয়েন্টটি সবচেয়ে বেশি ছড়িয়েছে ব্রিটেনে।

এফএ

RTV Drama
RTVPLUS