logo
  • ঢাকা বুধবার, ০১ এপ্রিল ২০২০, ১৮ চৈত্র ১৪২৬

করোনা আপডেট

  •     স্পেনে গত ২৪ ঘণ্টায় মৃত্যু ৮৪৯ জন, মোট মৃত্যু ৮১৮৯ জন, আক্রান্ত ৯৪৪১৭ জন: এএফপি। সৌদিতে গত ২৪ ঘণ্টায় আরো ১১০ আক্রান্ত, মোট আক্রান্তের সংখ্যা ১৫৬৩ জন: সৌদি গেজেট। এই প্রথম কাতারে এক বাংলাদেশির মৃত্যু: কাতার স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়। গত ২৪ ঘণ্টায় বাংলাদেশে নতুন আক্রান্ত ২, মোট আক্রান্ত ৫১ জন, সুস্থ ৬ জন: আইইডিসিআর। যুক্তরাষ্ট্রে ২৪ ঘণ্টায় মৃত্যু ৫৬৫, আক্রান্ত ১৯৯৮৮, মোট মৃত্যু ৩০৪০, আক্রান্ত এক লাখ ৬৪২৭৪ জন, এর মধ্যে সবচেয়ে বেশি ২৭৯ জনের মৃত্যু হয়েছে নিউইয়র্ক সিটিতে। গত ২৪ ঘণ্টায় স্পেনে মৃত্যু ৯১৩, জীবন-মৃত্যুর সন্ধিক্ষণে ৫২৩১ জন, আক্রান্ত ৭৮৪৬, সবচেয়ে বেশি মৃত্যু ইতালিতে ১১ হাজার ৫৯১, তারপর স্পেনে ৭৭১৬, ফ্রান্স ৩১৮৬: জনস হপকিন্স ইউনিভার্সিটি।

স্কুলের প্রশ্নে রবীন্দ্রনাথের পিতা পর্নস্টার মিয়া খলিফা!

আরটিভি অনলাইন রিপোর্ট
|  ১৮ এপ্রিল ২০১৯, ১৯:০৯ | আপডেট : ১৮ এপ্রিল ২০১৯, ১৯:৪০
নবম শ্রেণির বাংলা প্রথমপত্রের বহু নির্বাচনী প্রশ্নে অদ্ভুত সব প্রশ্ন করা হয়েছে। জানতে চাওয়া হয়েছে, ‘বিশ্বকবি রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের পিতার নাম কী?’ এই প্রশ্নের সম্ভাব্য যে চারটি উত্তর দেওয়া হয়েছে, তার মধ্যে রয়েছে পর্নস্টার মিয়া খালিফার নাম! তবে সেই নামটিও ছিল ভুল বানানে। লেখা হয়েছে, -মিয়া কালিফা।

বুধবার (১৭ এপ্রিল) ঢাকার রামকৃষ্ণ মিশন উচ্চ বিদ্যালয়ের নবম শ্রেণির বাংলা প্রথমপত্রে এমন প্রশ্ন দেখা গেছে। 

ওই প্রশ্নপত্রে বিভূতিভূষণ বন্দ্যোপাধ্যায়ের বিখ্যাত কিশোর উপন্যাস আম-আঁটির-ভেঁপুর রচয়িতার সম্ভাব্য উত্তর অপশন রাখা হয়েছে সাবেক পর্নতারকা অভিনেত্রী সানি লিয়নকে!

চতুর্থ প্রশ্নটিতে প্রমথ চৌধুরীর পৈতৃক নিবাস কোথায়— এমন প্রশ্নের সম্ভাব্য উত্তরে রাখা হয়েছে রাজধানীর বলধা গার্ডেনের কথা। তবে নামটি লেখা হয়েছে বলদা গার্ডেন।

আবার ২২ নম্বর প্রশ্ন শেষে যতীন্দ্রমোহন বাগচীর বিখ্যাত কাজলা দিদি কবিতার প্রথম দুটি লাইন উদ্দীপক হিসেবে দেওয়া হলেও তাতে শোলোক শব্দটিকে ভুল করে লেখা হয়েছে ‘শ্লোক’। প্রশ্নপত্রের ১২ নম্বর প্রশ্নের শেষে উদ্দীপক পড়ে ১৩ ও ১৪ সংখ্যক প্রশ্নের উত্তর দাও- লেখা হলেও সেখানে কোনো উদ্দীপকের উপস্থিতিই নেই। আবার ৯ নম্বর প্রশ্নটিই পুনরাবৃত্তি করা হয়েছে ১৯ নম্বর প্রশ্নে। এছাড়া বেশকিছু বানান ভুল তো আছেই।

প্রশ্নপত্রটি তৈরি করেছেন ওই বিদ্যালয়ের শিক্ষক শংকর চক্রবর্তী। তিনি বলেন, এটি মানবিক ভুল। আমি বুঝতেই পারিনি এটি এমন বিতর্ক তৈরি করবে। প্রধান শিক্ষকের কাছে ক্ষমা চেয়েছি। এই ভুলের জন্য যেকোনো শাস্তি মাথা পেতে নিতে রাজি আছি।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে রামকৃষ্ণ মিশন উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক জয় প্রকাশ আরটিভি অনলাইনকে বলেন, অভিযুক্ত শিক্ষককে নিয়ে আমরা মিটিং করেছি। শিগগিরই তার বিরুদ্ধে কঠিন ব্যবস্থা নেওয়া হবে। 

এসজে/সি

corona
দেশ আক্রান্ত সুস্থ মৃত
বাংলাদেশ ৫১ ১৯
বিশ্ব ৮২৩৭৪৯ ১৭৪১১৫ ৪০৭০৮
  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়
  • শিক্ষা এর সর্বশেষ
  • শিক্ষা এর পাঠক প্রিয়