• ঢাকা বুধবার, ১৯ জুন ২০২৪, ৫ আষাঢ় ১৪৩১
logo

তাপদাহ

বশেমুরবিপ্রবিতে ভার্চ্যুয়ালি ক্লাস, বন্ধ থাকবে সকল পরীক্ষা

বশেমুরবিপ্রবি প্রতিনিধি, আরটিভি নিউজ

  ২২ এপ্রিল ২০২৪, ১৫:১৫
বশেমুরবিপ্রবিতে ভার্চ্যুয়ালি ক্লাস, বন্ধ থাকবে সকল পরীক্ষা
ছবি : আরটিভি

সারাদেশের ওপর দিয়ে প্রবাহমান তাপদাহের প্রভাবে স্বাস্থ্যঝুঁকি এড়াতে ভার্চ্যুয়ালি ক্লাসের নির্দেশ দিয়েছে গোপালগঞ্জের বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় (বশেমুরবিপ্রবি) কর্তৃপক্ষ। এ সময়ে বন্ধ থাকবে সকল পরীক্ষা।

রোববার (২১ এপ্রিল) রাত ৮টা ৩০ মিনিটে বিশ্ববিদ্যালয়ের ভাইস-চ্যান্সেলর ড. এ কিউ এম মাহবুবের সভাপতিত্বে একাডেমিক কাউন্সিলের ৮ম জরুরি সভায় (ভার্চ্যুয়ালি) এ সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা হয়। আগামী ৪ মে পর্যন্ত চলমান থাকবে এ সিদ্ধান্ত।

রেজিস্ট্রার মো. দলিলুর রহমান স্বাক্ষরিত এক বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, ‘সারাদেশের ওপর দিয়ে প্রবাহমান তীব্র তাপদাহের কারণে ২২ এপ্রিল হতে আগামী ৪ মে পর্যন্ত বিশ্ববিদ্যালয়ের সকল বিভাগের ক্লাস ভার্চ্যুয়ালি অনুষ্ঠিত হবে এবং সকল প্রকার পরীক্ষা বন্ধ থাকবে। অফিস কার্যক্রম সকাল ৯টা থেকে দুপুর ১টা পর্যন্ত চলবে। তবে দাপ্তরিক প্রয়োজনে দপ্তর প্রধানের নির্দেশনা অনুযায়ী সংশ্লিষ্ট দপ্তরের কর্মকর্তা ও কর্মচারীরা দপ্তরে অবস্থান করবেন। বিশ্ববিদ্যালয়ের কেন্দ্রীয় গ্রন্থাগার এবং জরুরি পরিষেবাসমূহ যথানিয়মে চলবে।’

তাপদাহের প্রভাবে স্বাস্থ্যঝুঁকি এড়াতে স্বাস্থ্যবিধি মেনে সতর্কতার সঙ্গে সকলকে চলাফেরার পরামর্শ দিয়েছে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন। তবে এ সিদ্ধান্তে দেখা গেছে মিশ্র প্রতিক্রিয়া। এ বিষয়ে পরিবেশ বিজ্ঞান ও দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা বিভাগের চতুর্থ বর্ষের শিক্ষার্থী সাগর কর্মকার বলেন, ‘তীব্র গরমে ঘরের বাহিরে যাওয়া বেশ কষ্টসাধ্য। এই রোদে-গরমে আমাদের স্বাস্থ্যগত ঝুঁকির সম্ভাবনা অনেক বেশি। শিক্ষার্থীদের কথা চিন্তা করে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনের এই সিদ্ধান্তকে আমি সাধুবাদ জানাই।’

অপরদিকে ফার্মেসি বিভাগের চতুর্থ বর্ষের শিক্ষার্থী আতিক ফয়সাল বলেন, ‘শিক্ষার্থীদের স্বাস্থ্যের কথা চিন্তা করে প্রশাসন যে সিদ্ধান্ত নিয়েছে সেটার জন্য সাধুবাদ জানাচ্ছি। কিন্তু আসলেই কি শিক্ষার্থীদের কথা চিন্তা করা হয়েছে? অনেক বিভাগের সেশনজট আছে সেসব কথা কি কেউ ভেবে দেখেছে? ক্লাস অনলাইনে নিয়ে, অন্তত সশরীরে পরীক্ষা নিতে পারতো। এই সিদ্ধান্তের পরে অনেক বিভাগের পরীক্ষা স্থগিত হয়ে গেল। ২০১৮-১৯ শিক্ষাবর্ষের অনেক বিভাগের অনার্স শেষ করে মাস্টার্সের ক্লাস শুরু করেছে। সেখানে অনেক বিভাগের অনার্সই শেষ হয়নি। পরীক্ষা স্থগিতের সিদ্ধান্তে আরও জট বাড়বে। কারণ, জুন মাস থেকে আবার গ্রীষ্মকালীন ছুটি শুরু হবে।’

উল্লেখ্য, আগামী ২৭ এপ্রিল ও ৩ মে ২০২৩-২৪ শিক্ষাবর্ষের জিএসটি সমন্বিত ভর্তি পরীক্ষা উপলক্ষে বিশ্ববিদ্যালয়টির অফিস যথানিয়মে চলবে।

মন্তব্য করুন

daraz
  • শিক্ষা এর পাঠক প্রিয়
আরও পড়ুন
বাস-প্রাইভেটকার-ইজিবাইকের ত্রিমুখী সংঘর্ষ, নিহত ২ 
দর্শনার্থীদের জন্য খুলে দেওয়া হলো বেনজীরের সাভানা পার্ক
বেনজীরের সাভানা ইকোপার্কে টানানো হলো ক্রোক বিজ্ঞপ্তি
টুঙ্গিপাড়ায় বঙ্গবন্ধুর সমাধিতে ৩ দেশের বিচারপতির শ্রদ্ধা