logo
  • ঢাকা শনিবার, ১৭ এপ্রিল ২০২১, ৪ বৈশাখ ১৪২৮

পেশিতে হঠাৎ করে টান, ভীষণ ব্যথা থেকে মুক্তির উপায়

Sudden muscle tension, a way to get rid of excruciating pain, rtv
পেশিতে হঠাৎ করে টান, ভীষণ ব্যথা থেকে মুক্তির উপায়

পেশিতে টান লাগা নতুন কিছু নয়। বিভিন্ন কারণেই পেশিতে টান হতে পারে। এসময় প্রচুর ব্যথা অনুভব হয়। তাৎক্ষণিকভাবে ব্যথা থেকে মুক্তির জন্য অনেকে বাজারে সচরাচর পাওয়া বিভিন্ন ব্যথানাশক খেয়ে থাকেন বা ক্রিম ব্যবহার করে থাকেন। এসবের বিভিন্ন পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া থাকে। তার থেকে বরং ভালো ঘরোয়াভাবে কিছু উপায় অনুসরণ করে ব্যথা থেকে মুক্তি পাওয়া। পেশি টানের ব্যথা থেকে লবণ-পানি, শীতল পরশ বা অ্যাপল সিডার ভিনেগারই হতে পারে সহজ সমাধান। এবার তাহলে পেশিতে টান লাগলে ঘরোয়াভাবে ব্যথা থেকে মুক্তির উপায়সমূহ জেনে নেয়া যাক-

লবণ-পানি : পেশিতে টান লাগার পর পেশি শিথিল করার জন্য এবং ক্ষত হলে তা সারাতে লবণ-পানি খুবই উপকার করে। এসময় সঙ্গে সঙ্গে লবণ-পানি পান করা যেতে পারে।

শীতল করা : ব্যথার অনুভূতি ভোঁতার মূল অস্ত্র হল ঠাণ্ডা। ঠাণ্ডা জ্বালা ভাব কমায় এবং আক্রান্তস্থান শিথিল করে তুলে। সেই সঙ্গে রক্তনালীর পুনঃবিন্যাস করে ব্যথা কমিয়ে আনে। এজন্য পাতলা কাপড়ে কয়েক টুকরো বরফ নিয়ে আক্রান্ত স্থানে ধরে রাখলে ব্যথা কমে যাবে।

অ্যাপল সিডার ভিনেগার : পটাশিয়ামের অভাবে পেশিতে ঘন ঘন টান লেগে থাকে। শরীরে তরলের ভারসাম্য নিয়ন্ত্রণকারী সকল পুষ্টি উপাদান অ্যাপল সিডার ভিনেগারে থাকে। এজন্য এক গ্লাস গরম পানিতে এক চামচ অ্যাপল সিডার ভিনেগার মিশিয়ে নিয়মিত পান করলে পেশির টানের সমস্যা দূর হবে।

এছাড়াও অনেকের হঠাৎ করেই পেশিতে টান লাগে। অনেকের আবার রাতের বেলা পেশিতে টান লাগে। এজন্য এক টেবিল চামচ পরিমাণ অ্যাপল সিডার ভিনেগার, মধু ও ক্যালসিয়াম ল্যাক্টেট এক গ্লাস গরম পানিতে মিশিয়ে ঘুমানোর আধ ঘণ্টা আগে পান করলে অনেক উপকার পাওয়া যায়।

হলুদ সর্ষে : হলুদ সর্ষে তাৎক্ষণিক পেশির টান সারাতে পারে। হলুদ সর্ষে রয়েছে অ্যাসিটিক অ্যাসিড, এটি অ্যাসিটোলকোলিন তৈরিতে বিশেষ ভূমিকা পালন করে। পেশির কর্মকাণ্ড পরিচালনায় নিউরোট্রান্সমিটার হিসেবে কাজ করে থাকে।

লবঙ্গ তেল : পেশিতে টান লেগে অনেকের পেশি ফুলে যায়। সঙ্গে ব্যথাও হয়ে থাকে। এ জন্য হালকা গরম লবঙ্গ তেল দিয়ে মিশিয়ে কয়েকবার আক্রমণ স্থানে মালিশ করলে উপকার আসে। তবে হ্যা, ঘরোয়াভাবে যদি সমস্যা থেকে সমাধান না পান তাহলে অবশ্যই বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকদের পরামর্শ নিবেন।

সূত্র : জি-নিউজ

এসআর/

RTV Drama
RTVPLUS